শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:২১ অপরাহ্ন

অচিরেই ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সন্মেলণ

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২ মে, ২০১৫
  • ৪৬ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: প্রধানমন্ত্রীর নিদেশে অবশেষে টনক নড়েছে ছাত্রলীগের। নির্ধারিত সময় পার হওয়ার পরও সম্মেলন করা নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব কাজ করছিল বর্তমান নেতৃত্বের মধ্যে। প্রধানমন্ত্রীও বিষয়টির দিকে নজর রাখছিলেন। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী চাইছেন নতুন নেতৃত্ব উঠে আসুক। পুরোনা নেতৃত্ব নতুন দায়িত্ব নিয়ে এগিয়ে যাক। ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দকে সম্মেলন করার জন্য এরই মধ্যে কয়েক দফা তাগিদও দিয়েছেন দলের সভানেত্রী। শেখ হাসিনার মনোভাব বুঝতে পেরে অবশেষে নড়েচড়ে বসেছে ছাত্রলীগ বর্তমান নেতৃত্ব।
সর্বশেষ ছাত্রলীগ নেতাদের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, বর্তমান নেতৃত্ব এ নিয়ে আর সময় ক্ষেপন করতে চাইছে না। এরই মধ্যে নিজেদের মধ্যে সম্মেলন করা নিয়ে কয়েক দফা বৈঠকও করেছেন ছাত্রলীগের শীর্ষ নেতারা। জানা গেছে, যেকোন সময় মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হবে। যোগাযোগ করা হলে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলম শুক্রবার দুপুরে বলেন, শীঘ্রই সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় কমিটির সম্মেলনের তারিখ জানিয়ে দেওয়া হবে। কবে নাগাদ হতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কয়েকদিনের মধ্যেই সেটা হবে।
ছাত্রলীগের বিভিন্ন সূত্র বলছে, সম্মেলন করা নিয়ে তারা চাপের মধ্যে রয়েছে। ফলে সহসাই সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার আয়োজন শুরু হয়েছে।
সূত্রটি বলছে, সম্মেলনের ব্যাপারে ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদকের মাঝে এক ধরনের অনীহা ছিল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাপের কারণেই তারা তাদের অবস্থান পরিবর্তন করেছেন।

এর আগে গত ১৪ এপ্রিল নববর্ষ উপলক্ষে গণভবনে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়ের সময় ছাত্রলীগ সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগকে সম্মেলন করার তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী।

বদিউজ্জামান সোহাগকে প্রধানমন্ত্রী তখন বলেন, এখনো সম্মেলন দাও নাই কেন? সংবাদ সম্মেলন করে তাড়াতাড়ি সম্মেলনের তারিখ জানিয়ে দাও।
এর আগেও গত ২৬ মার্চ ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পন করার সময় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমকে সম্মেলন করার তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেসময় প্রধানমন্ত্রী নাজমুলকে বলেন, তোমরা সাবেক হবে কবে? তাড়াতাড়ি সম্মেলন দিয়ে তোমরা সাবেক হও।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের জুলাই মাসে ছাত্রলীগের সর্বশেষ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে সভাপতি নির্বাচিত হন বদিউজ্জামন সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক হন সিদ্দিকী নাজমুল আলম।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24