শুক্রবার, ২৩ অগাস্ট ২০১৯, ০৮:১৭ পূর্বাহ্ন

আওয়ামীলীগের জাতীয় সন্মেলনে ছয় নেতাকে ঘিরে সুনামগঞ্জবাসীর প্রত্যাশা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৯ অক্টোবর, ২০১৬
  • ৩১ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি:: উপমহাদেশের অন্যতম প্রাচীন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন কে সামনে রেখে সারাদেশের ন্যায় সুনামগঞ্জের রাজনীতিতেও বইছে সাজ সাজ রব। সারাদেশ থেকে নেতাকর্মীরা ইতোমধ্যে ঢাকায় অবস্থান করছেন। নিজ নিজ এলাকার নেতাদের নিয়ে শেষ হিসেব কষছেন তারা। সুনামগঞ্জের ছয় আওয়ামীলীগ নেতাকে ঘিরে জেলাবাসীর প্রত্যাশা এখন সন্মেলনের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় কমিটিতে মুল্যায়িত হবেন জেলার এই ছয় নেতা।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন নিয়ে দেশব্যাপী উৎসবের আমেজ বিরাজ করলেও সুনামগঞ্জের চিত্র ভিন্ন। পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকায় সম্মেলনকে কেন্দ্র করে চিরচেনা উৎসব লক্ষণীয় নয়। তাছাড়া দলীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যেও এ নিয়ে সমন্বয় দেখা যাচ্ছে না। তবে বিচ্ছিন্নভাবে দলীয় নেতাকর্মীরা সম্মেলনে যেতে তৎপরতা শুরু করেছেন। সম্মেলনের দুইদিন আগেই তারা ঢাকার উদ্দেশ্যে সদলবলে রওয়ানা দিয়েছেন বলে জানা গেছে। আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনে সুনামগঞ্জ থেকে ১০১ জন কাউন্সিলর ও ১০১ ডেলিগেট অংশগ্রহন করছেন। আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত অসুস্থ্যতার কারণে কাউন্সিল নিয়ে জেলা পর্যায়ে শুধু ফোন যোগাযোগই রক্ষা করে যাচ্ছেন।

দলীয় সুত্রে জানা গেছে- চলতি বছরের ২৫ ফেব্রুয়ারি প্রায় দেড়যুগ পর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন হয় উৎসবমুখর পরিবেশে। সভায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সভাপতি পদে সাবেক সাংসদ মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক পদে ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমনের নাম ঘোষণা করেন।

প্রায় ৮ মাস অতিবাহিত হলেও নানা কারণে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জেলা কমিটি পূর্ণাঙ্গ করতে পারেননি। দলীয় পদ না থাকায় এবং কমিটি না থাকায় আসন্ন কেন্দ্রীয় সম্মেলনে অনেকেই গাছাড়া ভাব নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তবে বিচ্ছিন্নভাবে তারা সম্মেলনে অংশ নিবেন বলে জানা গেছে। এ উপলক্ষে ছোট ছোট গ্রুপভিত্তিক কাজ চালাচ্ছেন নেতাকর্মীরা।

এদিকে, কেন্দ্রীয় সম্মেলনকে ঘিরে সুনামগঞ্জের নেতাকর্মীদের আশানুরূপ উচ্ছ্বাস লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। নেতাকর্মীরা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে দৃশ্যমান সমন্বয় দেখতে না পারার কারণেই এমনটা হচ্ছে বলে মনে করেন সচেতন সুনামগঞ্জবাসী। এর সত্যতাও পাওয়া গেছে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের দেওয়া বক্তব্যে সম্মেলনে কাউন্সিলর ও ডেলিগেট সংখ্যা দু-জন, দু-রকম বলেছেন। সভাপতি ৯৮ জন করে, সাধারণ সম্পাদক ১০১ জন করে কাউন্সিলর ও ডেলিগেট অংশগ্রহন করবেন। পরে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সূত্রে নিশ্চিত করেছেন সাধারণ সম্পাদকের কথাই ঠিক। তবে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক সাংসদ মতিউর রহমান এসব বিষয় অস্বীকার করে বলেন- সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক মানে ব্যারিস্টার ইমন আর আমার প্রতিদিন যোগাযোগ হচ্ছে, মিটিং হচ্ছে। যারা আওয়ামী লীগের সুনাম নষ্ট করতে চায় তারাই এসব বলছে। তা না হলে, সুনামগঞ্জ পৌর মেয়র আইয়ূব বখত জগলুল আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য হওয়ার পর হাজার হাজার নেতাকর্মীরা কেন তাকে ফুল দিয়ে বরন করবে। তিনি প্রশ্ন তুলেন- এটা কী উৎসাহ-উদ্দীপনা নয়?

সুনামগঞ্জ প্রগতিশীল রাজনীতির উর্বর জায়গা। ব্রিটিশ আমল থেকে এ পর্যন্ত প্রগতিশীল সব রাজনৈতিক দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন সুনামগঞ্জের কৃতি পুরুষরা। সুনামগঞ্জবাসীর আশা উপমহাদেশের বৃহৎ সংগঠন আওয়ামী লীগও সুনামগঞ্জবাসীকে মূল্যায়ন করবে। প্রতিনিধিত্বশীল নেতৃত্ব থেকে বঞ্চিত হতে চান না তারা।

আওয়ামী রাজনীতির উর্বর ভূমি সুনামগঞ্জেও নেতাকর্মীদের প্রত্যাশা নিজ বলয়ের নেতাদের ঘিরে। সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সিলেট বিভাগীয় সাংগঠনিক স¤পাদকের পদে কে আসছেন এ নিয়ে নেতা-কর্মীদের রয়েছে ব্যাপক কৌতূহল। গুরুত্বপূর্ণ এ পদে পুরনো মুখই থাকছেন, নাকি আসছেন নতুন কেউ এ নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে চলছে জল্পনা-কল্পনা। শেষ মুহূর্তে এসে বাংলাদেশের প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আবদুস সামাদ আজাদের ছেলে আজিজুস সামাদ আজাদ ডনকে নিয়ে চলছে আলোচনা। বিভিন্ন সংস্থাও এই নেতা সম্পর্কে সব রকম খোঁজ খবর নিয়েছে বলে জানা গেছে। তাঁর অনুসারীরাই শুধু নয় সাধারণ মানুষও চাচ্ছেন ডনকে কেন্দ্রীয় কমিটিতে ভালো অবস্থানে নেয়া হোক।

বাবার মৃত্যুর পর রাজনীতিতে সক্রিয় ডন ইতিমধ্যে রাজনীতিতে নিজের গ্রহণযোগ্য অবস্থান তৈরী করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। বর্তমানে কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সহ-স¤পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। সুনামগঞ্জ-৩ আসনে সর্বশেষ জাতীয় নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। সিলেটের রাজনীতির মাঠে তারও রয়েছে একটি বলয়। আওয়ামীলীগের বর্ষিয়ান নেতা আব্দুস সামাদ আজাদের তনয় হিসেবে কেন্দ্র থেকে শুরু করে সিলেট সুনামগঞ্জ জগন্নাথপুরের রাজনৈতিক মহল এবার অাশাবাদী ডন গুরুত্বপূর্ণ পদে মূল্যায়িত হবেন।

এ ছাড়া সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি মুহিবুর রহমান মানিকও এ পদে লবিং করছেন। তার অনুসারীরা মনে করছেন এবার মুহিবুর রহমান মানিককে মূল্যায়ন করা হবে।

মুহিবুর রহমান মানিক ১৯৯০ সালে ছাতক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে জনপ্রতিনিধি হিসেবে পথচলা শুরু করেন। এরপর ১৯৯৬, ২০০৮ ও ২০১৪-এর জাতীয় নির্বাচনে হয়েছেন সংসদ সদস্য। উন্নয়নের মাধ্যমে ছাতক-দোয়ারাবাজারকে বদলে দেয়া তৃণমূলের আস্থাভাজন এই নেতা এবার কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাবেন বলেই তার অনুসারীরা মনে করেন।

বর্তমান কমিটির সদস্য, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নানকে ঘিরে প্রত্যাশা আছে তাঁর কর্মীদের মধ্যে। সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে ইতোমধ্যে তিনি গ্রহনযোগ্যতা অর্জন করায় প্রত্যাশাও একটু বেশি। গত দুটি আওয়ামীলীগের সন্মেলনে এম এ মান্নানকে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মনোনীত করা হয়। প্রত্যাশা করা হচ্ছে একজন সজ্জন রাজনীতিবীদ হিসিবে ইতিমধ্যে তিনি গ্রহনযোগ্যতা অর্জন করায় আসন্ন সন্মেলনে প্রেসিডিয়াম সদস্য কিংবা কেন্দ্রীয় কমিটিতে গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে পারেন। এছাড়াও সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মতিউর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক ব্যারিষ্টার এম এনামুল কবির ইমনের অনুসারিরাও আশাবাদী কেন্দ্রীয় কমিটিতে তাঁরাও গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে পারেন। অপরদিকে জেলার সবচেয়ে প্রবীণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সুরঞ্জিত সেন গুপ্তকে এবার আওয়ামীলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্যপদে মূল্যায়িত করা হবে বলে জোর আশাবাদ ব্যক্ত করছেন আওয়ামীলীগ পরিবারের নেতাকর্মীরা।

এ ব্যাপারে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম. এনামুল কবির ইমন বলেন, সুনামগঞ্জ প্রগতিশীল রাজনীতির উরবর জায়গা। ব্রিটিশ আমল থেকে এ পর্যন্ত প্রগতিশীল সব রাজনৈতিক দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতৃত্ব দিয়ে আসছেন সুনামগঞ্জের কৃতি পুরুষরা। আশা করি উপমহাদেশের বৃহৎ সংগঠন আওয়ামী লীগও সুনামগঞ্জবাসীকে মূল্যায়ন করবে। ব্যারিস্টার ইমন আরো বলেন- নবীন এবং প্রবীণের সমন্বয়ে দলকে সাংগঠনিকভাবে এগিয়ে নিতে আমরা কাজ করছি। আমাদের মধ্যে আছে তারুণ্যের গতি এবং প্রবীণের অভিজ্ঞতা। এই অভিজ্ঞতার আলোকেই আমরা দলকে আরো সংগঠিত, শৃঙ্খলিত করার জন্য কাজ করছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24