শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
একটি নৃশংস হত্যাকাণ্ড,নাড়িয়ে দিল জগন্নাথপুরবাসিকে, ক্রাইম সিন ইউনিটের ঘটনাস্থল পরিদর্শন অফিসার্স ক্লাব থেকে রানীগঞ্জের তহশীলদারসহ ৪ জুয়াড়ি গ্রেফতার আজানের মর্মবানী জগন্নাথপুরে ২২তম ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সম্পন্ন জগন্নাথপুরে সেই সড়কে ২৩ কোটি টাকার টেন্ডার সম্পন্ন, নতুন বছরের শুরুতেই কাজ শুরু হতে পারে জগন্নাথপুরে ১৫ দিন পর অবশেষে ধান কেনা শুরু জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দুর্বৃত্তরা হত্যা করল স্টুডিও’র মালিক আনন্দকে সিলেট জেলা আ’লীগের নেতৃত্বে লুৎফুর-নাসির, মহানগরে মাসুক-জাকির প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রতিটি উপজেলায় সহায়তা কেন্দ্র: প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরশহরে স্টুডিও দোকানদারের মরদেহ পাওয়া গেছে

আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৫ জুলাই, ২০১৬
  • ৮২ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: বছর ঘুরে আবার এলো ঈদ। ঈদ-উল-ফিতর। মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব। মাসব্যাপী সিয়াম সাধনা শেষে কাল অথবা পরশু ঈদের আমেজ ছড়িয়ে পড়বে সবখানে। ঘরে ঘরে বইবে আনন্দের বন্যা। পথে পথে ছড়িয়ে পড়বে খুশির ঝিলিক। শিশু থেকে বৃদ্ধ সবার মনে আনন্দের কোন সীমা থাকবে না। আশরাফ আতরাফ ভেদাভেদ ভুলে সবাই এক কাতারে ঈদের নামাজে শরিক হবেন। গাইবে সাম্যের গান। নতুন জামাকাপড় পরে সবাই ছুটে যাবে ঈদগাহে। ঈদের নামাজ আদায় করতে যাওয়ার আগে সেমাই, পায়েস, খেজুর, খোরমা অথবা মিষ্টান্ন খেয়ে রওনা হবে। গোসল করে নতুন পোশাক পরে আতর-সুরমা লাগিয়ে ঈদের মাঠে গমন করবে। নামাজ শেষে পথে পথে প্রিয়জনদের সঙ্গে সালাম বিনিময় ও কোলাকুলিতে শরিক হবে। জানাবে ঈদ মোবারক। তাই কবি কাজী নজরুল ইসলাম লিখেছেন ঈদ এসেছে দুনিয়াতে শিরনি বেহেশতী, দুষমনে আজ গলায় গলায় পাতালো ভাই দোস্তী, জাকাত দেবো ভোগ-বিলাস, আজ গোস্বা বদমস্তি, প্রাণের তশতরীতে ভরে বিলাব তৌহিদ। চলো ঈদগাহে।

আজ রমজানে ২৯ তারিখ। হিজরি বর্ষপঞ্জি অনুসারে রমজান শেষে শাওয়াল মাসের ১ তারিখে ঈদ-উল- ফিতর উৎসব পালন করা হয়। ঈদের চাঁদ স্বচক্ষে দেখে তবেই ঈদের ঘোষণা দেয়া ইসলামী বিধান। তাই ঈদের চাঁদ নিয়ে সুফিয়া কামাল লিখিছেন “চাঁদ উঠিয়াছে, ঈদের চাঁদ কি উঠেছে? শুধায় সবে। লাখো জনতার আঁখি থির আজি, সুদূর সুনীল নভে। আজ পশ্চিম আকাশে এক ফালি চাঁদের হাসিই জানান দেবে আগামীকাল অথবা পরশু ঈদ।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশেও ঈদ-উল- ফিতরই হলো বৃহত্তম বাৎসরিক উৎসব। বাংলাদেশে ঈদ উপলক্ষে রমজান মাস ধরে কেনাকাটা চলে। অধিকাংশ পরিবারে ঈদের সময়েই নতুন পোশাক কেনা হয় সাধ্যমতো। এদিকে ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে পত্র-পত্রিকাগুলো বিশেষ ঈদ সংখ্যা প্রকাশ করেছে। টিভি চ্যানেলগুলো ঈদের দিন থেকে শুরু করে বিশেষ অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে। ঈদের দিন প্রত্যেক মুসলমানের ঘরে ঘরে সাধ্যমতো বিশেষ খাবারের প্রস্তুতিও রয়েছে। ঈদের দিনে সেমাই বা অন্যান্য মিষ্টি নাস্তা না হলে চলে না।

ঈদ-উল-ফিতরকে আরবীতে রোজা ভাঙার দিবস অভিহিত করা হয়ে থাকে। ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের দুটো সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসবের একটি। দীর্ঘ এক মাস রোজা রাখা বা সিয়াম সাধনার পর বিশ্বের মুসলমানেরা এই দিনটি ধর্মীয় কর্তব্যপালনসহ খুব আনন্দর সঙ্গে পালন করে থাকে। সম্প্রীতি ও সৌহার্দ্যরে বন্ধনেও আবদ্ধ করে সবাইকে।

ঈদ মুসলমানদের জীবনে শুধুমাত্র আনন্দ-উৎসবই নয়, বরং এটি একটি মহান ইবাদত যার মাধ্যমে মুসলিম উম্মাহ ঐক্যবদ্ধ হওয়ার প্রেরণা খুঁজে পায়। সব শ্রেণী ও সকল বয়সের নারী-পুরুষ ঈদের জামাতে শামিল হয়ে মহান আল্লাহ্র শোকর আদায়ে নুয়ে পড়ে। ইসলামী বিশেষজ্ঞদের মতে, ঈদ-উল-ফিতরের দিনে খুশি প্রকাশ করা মুসলমানের জন্য মুস্তাহাব। যখন ঈদের দিন ভোর হয় তখন আল্লাহ্ তাআলার আপন ফেরেস্তারা সব শহরে, সব গলি ও রাস্তাগুলোর মাথায় দাঁড়িয়ে যায়। আল্লাহ তাআলাও তাঁর বান্দাদের এভাবে সম্বোধন করেন, হে আমার বান্দারা! চাও, কি চাইতে ইচ্ছে হয়! আমার সম্মান ও মহত্ত্বের শপথ! আজকের দিনে এ জমায়েতে (ঈদের নামাজে) তোমাদের আখিরাত সম্পর্কে যা কিছু চাইবে তা পূরণ করব। আর যা কিছু দুনিয়া সম্পর্কে চাইবে তাতে তোমাদের মঙ্গলের দিক দেখব। আমার সম্মানের শপথ! তোমরা যতক্ষণ পর্যন্ত আমার বিধানাবলীর প্রতি যত্মবান থাকবে আমিও তোমাদের ভুলত্রুটিগুলো গোপন রাখব। আমার সম্মান ও মহত্ত্বের শপথ, আমি তোমাদের সীমালঙ্ঘনকারীদের সঙ্গে অপমানিত করব না। তোমাদের ঘরের দিকে ক্ষমাপ্রাপ্ত হিসেবে ফিরে যাও। তোমরা আমাকে সন্তষ্ট করেছে। আমিও তোমাদের ওপর সন্তষ্ট হয়ে গেছি।

ইতোমধ্যে প্রিয়জদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে রাজধানীসহ সারা দেশ ছেড়েছে লাখে লাখে মানুষ। সরকারের পক্ষ থেকেও ঈদ যাত্রা নির্বিঘœ করতে নেয়া হয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। এছাড়া এবারের ঈদে সরকারী ছুটি নয় দিন হওয়ায় যাত্রীরা স্বচ্ছন্দেই বাড়ি ফিরতে পেরেছেন। এর আগে প্রিয়জনদের জন্য সাধ্যমতো কেনাকাটও সম্পন্ন হয়েছে। ঈদগাহের নামাজ আদায়ের জন্য প্রায় প্রতি ঈদগাহ ময়দান প্রস্তুত করা হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, প্রতিবারের ন্যায় এবারও দেশের প্রধান ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে। ইতোমধ্যে ঈদের প্রধান জামায়াতের জন্য জাতীয় ঈদগাহ ময়দান প্রস্তুত করা হয়েছে। জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। এছাড়া বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদেও অনুষ্ঠিত হবে ঈদের পাঁচটি জামাত।

চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক ॥ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ১৪৩৭ হিজরির পবিত্র ঈদ-উল-ফিতরের তারিখ নির্ধারণ এবং শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখার সংবাদ পর্যালোচনা ও এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে আজ সন্ধ্যা ৭.৩০ টায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় সভাপতিত্ব করবেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। দেশের আকাশে কোথাও পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেলে তা নিম্নোক্ত টেলিফোন ও ফ্যাক্স নম্বরে অথবা অন্য কোন উপায়ে জানানোর জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। টেলিফোন নম্বর : ৯৫৫৯৪৯৩, ৯৫৫৯৬৪৩, ৯৫৫৫৯৪৭, ৯৫৫৬৪০৭ ও ৯৫৫৮৩৩৭। ফ্যাক্স নম্বর : ৯৫৬৩৩৯৭ ও ৯৫৫৫৯৫১।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24