বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে র‍্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে বৈধ কাজগপত্র না থাকায় ১২টি মোটরসাইকেল চালককে জরিমানা জগন্নাথপুরে বিভিন্ন কর্মসুচির মধ্যে দিয়ে নিরাপদ সড়ক দিবস পালন জগন্নাথপুরে দু’পক্ষের বিরোধে বলীর শিকার শিশু সাব্বিরের খুনীরা এখনও ধরা পড়েনি জগন্নাথপুরে ৬০ কৃষক কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান জগন্নাথপুরে সনাক্তকারী ‘বহিরাগতদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন প্রাণের চেয়েও প্রিয় মহানবী (সা.) সুনামগঞ্জে আ.লীগ নেতার ছেলে পিটালেন ডাক্তারকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে আহত ৩ জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠানের উদ্যাগে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান

ঘুষের টাকা না দেওয়ায় মারধর,ওসি প্রত্যাহার

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২৭ মে, ২০১৮
  • ৭১ Time View

জগন্নাথপুর২৪::ঘুষের টাকা দিতে না পারায় দুই ব্যক্তিকে মারধরের অভিযোগে নওগাঁর নিয়ামতপুর থানার সেই ওসি আকরাম হোসেনকে জেলা পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

তার বিরুদ্ধে আইনের সহায়তা চাইতে আসা মানুষের কাছে ঘুষ দাবি করা এবং ঘুষ না পেলে মারধরসহ মাদকব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ঘুষ নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়া সহ নানা অভিযোগ রয়েছে।
নওগাঁর পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গঠিত তদন্ত কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী তাকে নিয়ামতপুর থানা থেকে জেলা পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে।
লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওসি আকরাম হোসেন এই থানায় যোগদান করার পর থেকে থানায় আইনি সহায়তা চাইতে আসা সাধারণ মানুদের নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছে।

সম্প্রতি দাবি অনুযায়ী, উৎকোচের টাকা দিতে না পারায় উপজেলার নাকইল গ্রামের আইজুল হক ও উপজেলার রাজাপুর দরগাপাড়া গ্রামের সোহেল রানা নামের দুই ব্যক্তিকে মারধর করেন ওসি।

এসব ঘটনা ছড়িয়ে পড়ায় স্থানীয় জনসাধারণের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া ওসির অসহযোগিতার কারণে গ্রাম আদালত কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানদের কাছ থেকে মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা নিয়ে তাদের কাছ মোটা অংকের টাকা নিয়ে ব্যবস্থা না নিয়ে বরং তাদের ব্যবসা চালিয়ে যাবার নির্দেশ দেন।

ওসি আকরাম হোসেন গত ১৬ মার্চ নিয়ামতপুর থানায় যোগ দেন। কিন্তু মাস দুয়েকের মধ্যেই তার বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ঘুষ গ্রহণ, ঘুষ না দিলে আইনের সহায়তা চাইতে আসা মানুষজনকে মারধর, মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে উৎকোচ গ্রহণ করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়াসহ বিভিন্ন অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে।

ওসি আকরামের বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ তুলে গত ২০ মে নিয়ামতপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানসহ উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দ তার অপসারণের দাবি জানিয়ে রাজশাহী রেঞ্জের পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শকের কাছে লিখিত আবেদন জানান।
যুগান্তর

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24