সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:২৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে নৌপথে বেপরোয়া ‘চাঁদাবাজি’,চাঁদা না দিলে শ্রমিকদের মারধর করে লুটে নেয় মালামাল মিরপুরের সেই প্রার্থী আপিলে ফিরলেন নির্বাচনী লড়াইয়ে মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেন দুইজন, কাল প্রতিক বরাদ্দ পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নামাজ শেখানো হয় যে বিদ্যালয়ে পানির নিচে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে মৃত্যু! সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা

জগন্নাথপুরের দরিদ্র পরিবারের সন্তান অলক দাশকে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে দিতে এগিয়ে আসুন

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১০ আগস্ট, ২০১৫
  • ৫৪ Time View

মানবিক আবেদন-
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: মানুষ মানুষের জন্য,জীবন জীবনের জন্য চিরন্তন শ্বাশত মর্মস্পশী এই কন্ঠধ্বনী যুগে যুগে মানুষকে বিজয়ী করেছে। জয় হয়েছে মানবতার। বর্তমান বাংলাদেশের সামাজিক বাস্তবতায় এখনও অসংখ্য সহযোগীতার হাত প্রসারিত করে সমাজের অসহায় মানুষের পাশে । আবারও আপনাদের সামান্য সহায়তা পারে একটি অদম্য শিশুর মুখে হাসি ফুটাতে। পারে তাকে আবারও তার প্রিয় বিদ্যালয়ে পাঠিয়ে কর্মচাঞ্চল করে তুলতে। এই শিশুটি হয়তো একদিন আলোকিত করে দিতে পারে আমাদের সমাজকে। পারে আমাদের কারো না কারো স্বজনদের জীবনে সহায়তার হাত প্রসারিত করতে। সামান্য কিছু টাকার জন্য আজ তার জীবনপ্রদীপ বিপন্ন। দরিদ্র বাবা-মা অসহায় হয়ে চারিদিকে ঘুরছে। সেই অদম্য মুখটির ছেলেটির বাড়ি জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের গোড়ারগাঁও গ্রামে। ওই গ্রামের লাল মিয়ার বাডিতে আশ্রিতা হিসেবে ছেলেটিকে নিয়ে তার দিনমজুর বাবা গৃহিনী মা বসবাস করছেন। এরালিয়া বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র অলক দাশ(১৫) বর্তমানে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে বাঁচার সংগ্রাম করছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, দ্রুত অপারেশন করতে হবে। এজন্য ৩০ হাজার টাকার প্রয়োজন। গত ছয় মাস চিকিৎসা করাতে গিয়ে দরিদ্র বাবা- মায়ের শেষ সম্বল বিক্রি করে এখন পরিবারটি দিশেহারা। পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন, এক বছর আগে কোন এক বিকেলে খেলতে গিয়ে আম গাছের ডাল থেকে পড়ে গিয়ে সে অসুস্থ হয়ে পড়ে। প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসকরা তার হাত ভাঙ্গার চিকিৎসা করলেও পরবর্তীতে তিন মাস পর তার লিবারে সমস্যা দেখা দেয়। তাকে ভর্তি করা হয় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সেখানে চিকিৎসকরা অপারেশনের মাধ্যমে তার মলদ্বারের জায়গা বন্ধ করে দিয়ে পেটের দিকে স্থাপন করেন। দীর্ঘ দুই মাস চিকিৎসকদের তত্বাবধানে থাকার পর এখন চিকিৎসকরা তাকে পুনরায় অপারেশ করে মলদ্বারের জায়গা সঠিকস্থানে পুনস্থাপনের পরামর্শ দিয়েছেন। এতে অপারেশনসহ আনুষাঙ্গিক ব্যায় ৩০ হাজার টাকা খরচ হবে বলে জানিয়েছেন। এত টাকা জোড়ার করতে গিয়ে দরিদ্র পরিবারের নেমে এসেছে চরম হতাশা। তার দিন মজুর বাবা অনন্ত দাশ জানান, ছেলের চিকিৎসা করাতে গিয়ে আমি এখন নিঃস্ব। সহায় সম্বল যা ছিল সব হারিয়েছি। এত টাকা জোগাড় করার মতো ক্ষমতা নেই। সমাজের কিছু মানুষের কাছে হাত পাতলেও সামান্য কিছু সহায়তা পেয়েছি। যা দিয়ে অপারেশনের ব্যায় নির্বাহ করা সম্ভব নয়। তিনি তার ছেলেকে বাঁচাতে সমাজের বিশাল হৃদয়ের মানুষের প্রতি আকুল আবেদন জানিয়েছেন। আমরাও বিশ্বাস করি আপনাদের সামান্য সহায়তা পারে একটি মুখে হাসি ফুটাতে। পারে অদম্য মেধাবী ছেলেটিকে আবারও বিদ্যালয়ের আঙ্গিনায় ফিরিয়ে দিতে। অদম্য মেধাবী এই কারণে বলছি ছেলেটি ২০১২ সালে গনেশ্বরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে বৃত্তি পেয়েছে। বর্তমানে সে এরালিয়া বাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা জানিয়েছেন, ছেলেটি পড়ালেখায় খুবই ভালো। সহায়তা পেলে সে ভালো কিছু করতে পারে। সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চতুর্থ তলার ৪ নং ওয়ার্ডে ২০ নং বেডে সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অপারেশন হলেই আবার সে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারে। পারে আবারও পড়ার টেবিলে ঝড় তুলতে। ছেলেটিকে সহায়তা করতে পারেন সরাসরি কিংবা জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমের মাধ্যমে অথবা তার নিকট আত্বীয়ের রূপালী ব্যাংক জগন্নাথপুর শাখার সঞ্চয়ী হিসার নং১৪৮৩২ এর মাধ্যমে। আমরা বিশ্বাস করি আবারও প্রমাণ হবে মানুষ মানুষের জন্য। আমাদের অনেক প্রবাসী ভাই আছেন যাদের একটু কষ্টার্জিত অর্থ পারে আবারও একটি মহৎ কাজে লাগাতে। জয় হোক মানবতার।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24