শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
ঠিকাদারের দায়িত্বহীনতায় জগন্নাথপুর-বেগমপুর সড়কে অসহনীয় দুর্ভোগ জগন্নাথপুরের টমটম চালকের হত্যাকাণ্ড উন্মোচিত,ঘাতকের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান জগন্নাথপুরে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় জন্মাষ্টমী উদযাপন জগন্নাথপুরে সরকারি গাছ কাটায় সেই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ভারত-পাকিস্তান গুলি বিনিময় প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা ১৭ নভেম্বর টমটম গাড়ীর জন্য জগন্নাথপুরের এক চালককে রশিদপুরে নিয়ে খুন,গ্রেফতার-১ জেলা আ.লীগের গণমিছিল ৫ বছরেও শেষ হয়নি জগন্নাথপুরের ভবেরবাজার-গোয়ালাবাজার সড়কের কাজ,দুর্ভোগ লাখো মানুষের “জুম্মু কাশ্মীরে,গণতহ্যা শুরু করেছে মোদী সরকার”

জগন্নাথপুরের নলুয়া হাওরের একটি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সেবা পাচ্ছেন না হাওরবাসী

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৩১ জানুয়ারী, ২০১৮
  • ৫০ Time View

স্টাফ রিপোর্টার :: জগন্নাথপুরের নলুয়া হাওরের একটি কমিউনিটি ক্লিনিকে স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছেননা হাওরপাড়ের লোকজন। মাসের অধিকাংশ সময় ক্লিনিকটি বন্ধ থাকে। ফলে চিকিৎসার সুফল থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন সাধারন মানুষ।
বুধবার দুপুরে সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, নলুয়া হাওর বেষ্টিত উপজেলার চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের ভুরাখালি কমিউনিটি ক্লিনিক বন্ধ রয়েছে। স্থানীরা জানিয়েছেন, ক্লিনিকের দায়িত্বরত স্বাস্থ্য কর্মীরা সপ্তাহে এক দুইদিন আসেন। মাসের অধিকাংশ সময়ই ক্লিনিকটি বন্ধ থাকে। ফলে চিকিৎসার জন্য লোকজনকে উপজেলা সদরে যেথে হয়।
জানা যায়, ভুরাখালি কমিউনিটি ক্লিনিকে দায়িত্বরত তিনজনের মধ্যে দুইজন নিয়োজিত রয়েছেন। তারা হলেন স্বাস্থকর্মী সরজিত দাস ও এডাব্লিউএ (মাঠ কর্মী) জয়শ্রী ভট্রাচার্য্য।
অপর জন হেলথ কেয়ার প্রভাইডার (সিএইচসিপি) হরিপদ দাস ২০১৬ সালে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে থেকে অন্যস্থ চলে যান। এর পর থেকে ওই পদটি শুণ্য হয়ে যাওয়ায় স্বাস্থ্য কর্মী সরজিত দাস ওই পদে দায়িত্ব পালন করছেন। অন্যদিনে এডাব্লিউএ পদে (মাঠ কর্মী) জয়শ্রীয় প্রায় দুই মাস ধরে ক্লিনিকে আসছেন না। স্বাস্থ্য কর্মী সরজিত দাস মাঝে মধ্যে ক্লিনিকে আসেন বলে স্থানীয়রা এমন অভিযোগ করেছেন।
ভুরাখালি গ্রামের বাসিন্দা কৃষক শাহাদাৎ মিয়া বলেন, স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এসে চিকিৎসকদের পাওয়া যায় না। মাসের মধ্যে ২০/২৫দিনই ক্লিনিকটি বন্ধ থাকে। ফলে চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হচ্ছি আমরা।
স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য রনবীর দাস নান্টু জগন্নাথপুর টুয়েন্টিেেফার ডটকমকে বলেন, নলুয়া হাওরপাড়ের বাসিন্দাদেন স্বাস্থ্য সেবার একমাত্র অবলম্বন হচ্ছে ভুরাখালি কমিউনিটি ক্লিনিক। অধিকাংশ সময় ক্লিনিকটি বন্ধ থাকায় সুফল পাচ্ছেননা লোকজন। চিকিৎসার জন্য উপজেলা সদরে যেথে হচ্ছে জনসাধারনকে।
ভূরাখালি ক্লিনিকের বর্তমানে দায়িত্বরত স্বাস্থ্য কর্মী সরজিত দাস অভিযোগ অস্বীকার করে জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আজকে (বুধবার) উপজেলা সদরে মিটিং থাকায় ক্লিনিকে যেথে পারিনি। অপর মাঠ কর্মী মাসদেড় ধরে আসছেন না।
তিনি বলেন, প্রায় দিন বাড়ি বাড়ি গিয়ে স্বাস্থ্য সেবার কাজ করতে হয়। এ জন্য অনেক সময় ক্লিনিক বন্ধ তাকে।
সুনামগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন আশুতোষ দাস জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ভুরাখালি ক্লিনিকের সিএইচসিপি পদটি শুণ্য রয়েছে। দ্রুত এই পদে নিয়োগ দেয়া হবে। দায়িত্বরত কোন স্বাস্থ্য কর্মী যদি ক্লিনিকে সময় মতো না যান তবে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24