বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:৫২ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরের বিদ্যুৎ অফিসের এ কেমন প্রথা!

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৭ জুন, ২০১৭
  • ১৩৯ Time View

স্টাফ রির্পোটার :: জগন্নাথপুরে রমজানের শুরুতেই বিদ্যুতের ভেলকিবাজিতে অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন গ্রাহকরা। বিদ্যুৎ চলে যাওয়ার কারণ যানতে চাইলে স্থানীয় বিদ্যুৎ অফিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা কর্মচারীদের সবার এক বক্তব্য ৩৩ হাজার কেভি বিদ্যুৎ লাইনে সমস্যা। তাই বিদ্যুৎ নাই যেন প্রথা হয়ে গেছে জগন্নাথপুরের বিদ্যুৎ অফিসের।
মঙ্গলবার ইফতারের সময় বিদ্যুৎ চলে যায়। বিদ্যুতের দেখা মিলে রাত সাড়ে ১১টার দিকে। অসহনীয় গরমের মধ্যে টানা ৬ ঘন্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকে। বিদ্যুৎ না থাকার কারন জানতে চাইলে বিদ্যুৎ অফিসের দায়িত্বরত কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বরাবরের মতো জানান, জগন্নাথপুর-সিলেট লাইনের ৩৩ হাজার কেভি বিদ্যুৎ লাইনে ত্রুটি দেখা দেয়ায় বিদ্যুৎ সরবরাহ করা করা যাচ্ছেনা।

উপজেলাবাসি জানান, সামান্য ঝড় বৃষ্টিতে বিদ্যুৎ বিভ্রান্ত সৃষ্টি হলে বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করা হলে তাদের দাবী ৩৩ হাজার কেভি বিদ্যুৎ লাইনে সমস্যা। ঝড় বৃষ্টি ছাড়াও আবহাওয়া ভাল থাকলেও বিদ্যুৎ চলে গেলে এই একটি কথা শুনতে হয় ৩৩ হাজার কেভি লাইনে বিদ্যুৎ নাই। এটা যেন প্রথা হয়ে গেছে বিদ্যুৎ অফিসের।
জগন্নাথপুর উপজেলা বিদ্যুৎ প্রকৌশলী কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে জানান, জগন্নাথপুর-সিলেট বড়ইকান্দি নামক স্থানে বিদ্যুৎ মূল্য ৩৩ হাজার কেভি লাইনেই বেশি বিদ্যুৎ সমস্যা দেখা দেয়। তাই বিদ্যুৎ বিভ্রাট ঘটে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24