বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:১২ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুরে আওয়ামীলীগের দু’পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মীসভাকে কেন্দ্র করে ১৪৪ ধারা বহাল

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর, ২০১৫
  • ৪৮ Time View

স্টাফ রিপোর্টার :: জগন্নাথপুর পৌর আওয়ামীলীগের দুই পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মীসূচীকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার উপজেলা সদরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। শহরে দেখা দেয় উত্তেজনা মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ। বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত থাকলেও উদ্বেগ উৎকন্ঠা রয়েছে নেতাকর্মীদের মধ্যে।
পুলিশ ও আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা জানান, বেশ কয়েকদিন ধরে জগন্নাথপুর পৌর আওয়ামীলীগের নামে আজিজুস সামাদ ডন সমর্থিত পৌর আওয়ামীলীগের একাংশের আহবায়ক শুধাংশু শেখর রায় বাচ্চু ও সদস্য সচিব পৌর কাউন্সিলর আবাব মিয়ার নামে চিঠি ছাপিয়ে শহরের আবদুল খালিক কমপ্লেক্সের সামনে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় কর্মীসভার আহবান করা হয়। অপর দিকে এ খবর পেয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম, এ মান্নান সমর্থিত পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আবদুল আহাদ ও সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন ভূইয়া নের্তৃত্বে পৌর আওয়ামীলীগ একই স্থানে একই সময়ে সভায় আহবান করেন। বুধবার রাতে তারা সভাস্থল পরির্দশন করে স্থানীয় যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে শহরে মহড়া দেন। বৃহস্পতিবার সকালে যথারীতি যথাসময়ে পৌর শহরে মিছিল করে আব্দুল খালিক কমপ্লেক্স্র চত্বরে এসে পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আবদুল আহাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ভূঁইয়ার পরিচালনায় এক সভা অনুষ্টিত হয়। এতে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল জব্বার, মতিউর রহমান, উপজেলা কৃষকলীগ আহ্বায়ক আফছর উদ্দিন ভূঁইয়া,সাবেক ছাত্রনেতা বজলুর রশীদ ভূইয়া,উপজেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম রিপন, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মুজিবুর রহমান মুজিব, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাফরোজ ইসলাম প্রমুখ। অপরদিকে যথাসময়ে সভা করতে না পারলেও দুপুর ২টায় পৌর আওয়ামীলীগের অপর অংশ আওয়ামীলীগ নেতা শফিকুল হক ভূঁইয়ার নেতৃত্বে উক্ত স্থানে সভা করতে গেলে পুলিশ তাদেরকে বাধা দেয়। পরে তারা স্থান ত্যাগ করে সভাস্থলের পাশে শফিকুল হক ভূঁইয়ার মালিকানাধীন একটি দ্বিতল ভবনের কক্ষে কর্মীসভা করে। আওয়ামীলীগ নেতা শফিকুল হক ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে ও পৌর আওয়ামীলীগ একাংশের সদস্য সচিব আবাব মিয়ার পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, আওয়ামীলীগ নেতা মিন্টু রঞ্জন ধর, জয়দ্বীপ সূত্রধর বীরেন্দ্র, ,ছালিক আহমদ ডন, আফু মিয়া,সুহেল মিয়া,সেলিম আহমদ,আমিনুল ইসলাম,রুমেন আহমদ ডুমন প্রমুখ। এসময় উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহরে যাতে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য শহরে কোন ধরনের সভা সমাবেশ না করতে ১৪৪ ধারা জারি করে মাইকিং করা হয়। জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির পরবর্তী ঘোষনা না দেয়া পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারির আদেশ দেন।
আজিজুস সামাদ ডন অনুসারী হিসেবে পরিচিত আওয়ামীলীগ নেতা জয়দ্বীপ সূত্রধর বীরেন্দ্র জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে জানান, জেলা আওয়ামীলীগের অনুমোদিত কমিটি হিসেবে আমরা কর্মীসভা ডেকেছিলাম। আমরা আমাদের কর্মীসভা করেছি। কিন্তু ক্ষমতার প্রভাব কাটিয়ে আমাদের সভাকে বানচাল করতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। যা দুঃখজনক।
অপরদিকে পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ডাঃ আব্দুল আহাদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে বলেন, আমাদের নের্তৃত্বে পৌর আওয়ামীলীগ ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছে। যারা অবৈধভাবে পৌর আওয়ামীলীগের নাম ব্যবহার করে তারা প্রকৃতপক্ষে আওয়ামীলীগের কেউ না। আমরা যথাসময়ে নির্ধারিতস্থাণে আমাদের কর্মসূচী পালন করেছি। এসময় আওয়ামীলীগ দাবিদার অবৈধ কমিটির কাউকে দেখা যায়নি।

জগন্নাথপুর থানার ওসি তদন্ত খান মোহাম্মদ মাইনুল জাকির জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। সময়মতো ১৪৪ ধারা প্রত্যাহার করা হবে। জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, শুক্রবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা বলবৎ থাকবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24