সোমবার, ১৯ অগাস্ট ২০১৯, ১০:৪৬ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুরে কেটে দেওয়া হলো বেড়িবাঁধ, খোলা হয়েছে স্লুইচ গেট

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১১ মে, ২০১৮
  • ৫০ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি:: জগন্নাথপুরের সর্ববৃহৎ নলুয়া হাওরের একটি বেড়িবাঁধ গতকাল শুক্রবার বিকেলে কেটে দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ওই হাওরের সব ক’টি স্লুইচ গেই খুলে দেওয়া হয়েছে। হাওরের ফসল পরিবহনের সুবিদার্থে স্থানীয় প্রশাসনের উদ্যোগে
নলুয়া হাওরের ফসলরক্ষায় জগন্নাথপুর পৌশহরের ইকড়ছই বিদ্যুতের সাব ষ্টেশনের নিকটবর্তী জগন্নাথপুর-সুনামগঞ্জ সড়কের পাশে স্লুইচ গেটের সামনের বেড়িবাঁধটি পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন কেটে দিয়ে স্লুইচগেটও খুলে দেন। পরে ওই হাওরের চিলাউড়া,আমআমি, বেতাউকাসব চারটি স্লুইট গেট খুলে দেওয়া হয়েছে।
স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের আঞ্চিলক কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, নলুয়া হাওরের বোরো ফসলরক্ষায় পানি উন্নয়ন বোর্ড কর্তৃক চারটি স্লুইচ গেট নির্মিত হয়। এ হাওরে বর্তমানে ধান কাটা শেষ হয়ে গেছে। কিছু সংখ্যা কৃষকরা হাওরে তাদের কাটা ধান তোলে আনতে পারছেন না পরিবহনের কারন এর জন্য জগন্নাথপুরের সকল ইউনিয়ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মতামতের ভিত্তিত্বে স্লুইচ গেটগুলো খুলে দেওয়া হয়।
সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের এসও জগন্নাথপুর উপজেলা আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রধান কর্মকর্তা নাসীর উদ্দিন জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, হাওরের ধানকাটা শেষ হয়ে গেছে। স্থানীয় কৃষক ও জনপ্রতিনিধিদের দাবির প্রেক্ষিতে ধান পরিবহনের সুবিধার্থে স্লুইচ গেটগুলো খুলে দেয়া হয়েছে। পানি বের হওয়ার জন্য ইকড়ছই স্লুইচ গেটের সামনের বাঁধটি কেটে দেওয়া হয়েছে।

হাওর বাচাঁও সুনামগঞ্জ বাচাঁও আন্দোলনের জগন্নাথপুর উপজেলা কমিটির আহবায়ক সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, নলুয়া হাওরসহ উপজেলার প্রায় সব কটি হাওরের ধান কর্তৃন শেষে হয়েছে। গত কয়েকদিনের অব্যাহত বৃষ্টিপাতে হাওরের যাতায়াতের রাস্তাগুলো পানিতে ডুবে যাওয়ায় কাটা ধান পরিবহনে সমস্যা দেখা দেয়। স্লুইচ গেটগুলো দেওয়া নৌকা দিয়ে এখন কৃষকরা তাদের হাওরে আটকে থাকা কাটা ধানগুলো আনতে পারবেন।
জগন্নাথপুরের ইউএনও মোহাম্মদ মাসুম বিল্লাহ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ধানকাটা শেষ হয়েছে এমন নিশ্চয়তা পাওয়ার পর পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ সহকারী প্রকৌশলীর নের্তৃত্বে স্লূইচগেটগুলো খুলে দেয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদের সাধারণ সভায় সকল জনপ্রতিনিধিরা স্লুইচ গেট খুলে দেয়ার দাবি জানিয়েছিলেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24