শনিবার, ১৬ নভেম্বর ২০১৯, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সাম্রাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল জগন্নাথপুরে এখনও সম্পন্ন হয়নি আ.লীগের ওয়ার্ড ভিত্তিত্ব কমিটি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর জগন্নাথপুরে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে সুযোগ পেল ১৭ পরীক্ষার্থী বন্ধ হলো ফেসবুকের সাড়ে পাঁচ’শ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

জগন্নাথপুরে ধসে যাওয়া সেই অ্যাপ্রোচে ৯৬ লাখ টাকা ব্যয়ে বেইলি সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ১৩৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার::
জগন্নাথপুরের নলজুর সেতুর ধসে যাওয়া অ্যাপ্রোচে ৯ মাস পর সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, দীর্ঘ ভোগান্তির পর স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে সংস্কার কাজ শুরু হয়। দীর্ঘ ভোগান্তির পর সংষ্কার কাজ শুরু হওয়ায় এলাকার লোকজন উপস্থিত থেকে কাজ দেখছেন। এসময় কথা হয় ঘোষগাঁও গ্রামের রমজান আলীর ছানার সঙ্গে। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, দীর্ঘ ৯ মাস ধরে অ্যাপ্রোচ সড়ক ধসে যাওয়ায় সড়ক দিয়ে পাঁয়ে হাঁটা ছাড়া যানচলাচল বন্ধ ছিল। এখন কাজ শুরু হওয়ায় আমরা খুশি।
জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটমকে বলেন, ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত সেতুটি ২০১৩ সালে উদ্বোধন করা হয়। কিন্তুু সেতুর একপাশে অ্যাপ্রোচ সড়ক আজো হয়নি। আরেকপাশের অ্যাপ্রোচ সড়ক ৯ মাস ধরে ধসে গেছে। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন,বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের সাথে আলোচনা করেছি একাধিকার।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর এলজিইডির জগন্নাথপুর উপজেলা কার্যালয় সূত্র জানায়, নলজুর নদীর ঘোষগাঁও নামকস্থাণে ৩৯.১৫ মিটার গার্ডার সেতুটি ২০১৩ সালে ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়।
সেতুর পূর্বপাশে অ্যাপ্রোচ সড়কের জায়গা নিয়ে বিরোধ থাকায় বিকল্প অ্যাপ্রোচে সেতুটি চালু করে সেতুর মুল নকশা অনুযায়ী অ্যাপ্রোচ সড়কের জায়গার ভুমি অধিগ্রহনের উদ্যোগ নেয়া হয়।
স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর জগন্নাথপুর উপজেলা কার্যালয়ের প্রকৌশলী আনোয়ার হোসেন জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ৯৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ক্ষতিগ্রস্থ সংযোগ সড়কে বেইলিসেতু নির্মাণ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সুনামগঞ্জের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মের্সাস নুরুল ইসলাম ট্রের্ডাসএ কাজ করছে। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েটিফোর ডটকমকে বলেন,সেতুর অপরপ্রান্তের অ্যাপ্রোচ সড়কে ভুমি অধিগ্রহনের কাজ চলছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, নলজুর সেতুটি উপজেলা সদরের সাথে তিন ইউনিয়নের যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম। সেতুটির একপাশে সেতুর মুল নকশা অনুযায়ী অ্যাপ্রোচ সড়ক না থাকা ও অপরাংশের অ্যাপ্রোচ সড়কে ৯ মাস ধরে কাজ না হওয়ায় জনদুর্ভোগ চরম আকার ধারন করেছে। বিষয়টি আমি সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্টদের নজরে এনেছি।
এ প্রসঙ্গে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবদুল আহাদ জগন্নাথপুর টুয়ে›িন্টফোর ডটকমকে বলেন, আমি এ জেলায় নতুন এসেছি। খোঁজ নিয়ে নলজুর সেতুর ভুমি অধিগ্রহনের বিষয়ে পদক্ষেপ নিব।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ৬ ডিসেম্বর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ঘোষগাঁও নামকস্থানে নলজুর সেতুর অপ্রোচ ধসে পড়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বেড়ে যায় সামীহীন জনদূর্ভোগ। এ সংক্রান্ত সংবাদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমে একাধিকবার প্রকাশিত হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24