বুধবার, ২২ মে ২০১৯, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরে ধান কাটা শেষ পিআইসিদের কে দ্রুত চুড়ান্ত বিল দিতে আহ্বান

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ৫ মে, ২০১৯
  • ১০৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার : সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলায় হাওরের ফসলরক্ষা বেড়িবাঁধ নির্মাণ ও তদারক কমিটির সভায় প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটিকে চুড়াম্ত বিল দিতে দাবি জানানো হয়েছে। হাওরে শতভাগ ধান কাটার পরও বিল প্রদানে বিলম্ব না করতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। রোববার বিকেলে উপজেলা হাওরের ফসলরক্ষা বেঁড়িবাঁধ নির্মাণ তদারক উপজেলা কমিটির সভায় এ দাবি জানানো হয়। জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও হাওরের ফসলরক্ষা বেঁড়িবাঁধ নির্মাণ পর্যবেক্ষণ উপজেলা কমিটির সভাপতি মাহ্ফুজুল আলম মাসুম এর সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান,ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব,উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুমদার, জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতেয়ার উদ্দিন,পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ সহকারি প্রকৌশলী হাসান গাজী,জগন্নাথপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শংকর রায়,জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র সফিকুল হক,পাইলগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মখলেছুর রহমান,কলকলিয়া ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল হাশিম প্রমুখ
জগন্নাথপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুৃমদার জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে জানান,জগন্নাথপুর উপজেলার প্রধান হাওর নলুয়া, মইয়া,পিংলার হাওরে শতভাগ ধান কাটা শেষ হয়েছে।পাইলগাঁও, মীরপুর ও পাটলী ইউনিয়নের কিছু উঁচু জায়গা ৫ ভাগ ধান কাটার রয়েছে।
জগন্নাথপুর উপজেলার পাইলগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মখলেছুর রহমান
বলেন,পিআইসিদের তিন কিস্তিতে মাত্র ৬০ ভাগ বিল প্রদান করা হয়েছে। শতভাগ কাজ শেষ করতে অধিকাংশ পিআইসির সভাপতি ধার দেনা করেছেন। ধান উত্তোলনের পর পর চুড়ান্ত বিল দেয়ার কথা তাই আমরা চুড়ান্ত বিল দিতে দাবি জানিয়েছি।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে

জানান, হাওরে ধান কাটা শেষ হয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটিগুলোকে চুড়ান্ত বিল দিতে দাবি জানানো হয়।এছাড়াও মাছের উৎপাদনের জন্য কিছু কিছু বেড়িবাঁধ কেটে দেয়ার দাবি জানানো হয়।
জগন্নাথপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শংকর রায় বলেন, জগন্নাথপুর উপজেলার হাওরগুলোতে ফসল উত্তোলন শেষ হয়েছে এখন পিআইসিদের চুড়ান্ত বিল দিতে সবাই একমত পোষন করেন।
পানি উন্নয়ন বোর্ড সুনামগঞ্জের উপ সহকারি প্রকৌশলী হাসান গাজী বলেন, জগন্নাথপুর উপজেলায় এবার ৫০টি প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির মাধ্যমে ৫ কোটি টাকা ব্যায়ে ৩২ কিলোমিটার বাঁধ নির্মাণ করা হয়। চুড়ান্ত বিল প্রদান ও আগামী ১০ মে এর পর কৃষকদের সাথে আলোচনা করে কিছু কিছু বাঁধের অংশ কেটে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহ্ফুজুল আলম মাসুম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম কে  বলেন,সভায় সর্বসন্মতিক্রমে প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটিগুলোকে চুড়ান্ত বিল দেয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। জুন মাসের মধ্যে সবার বিল দেয়া হবে।
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান বলেন, ধান কাটা শেষ প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটিকে চুড়ান্ত বিল দিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে আমরা ইউএনওকে বলেছি।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24