বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও সংবাদ সন্মেলন অনুষ্ঠিত

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ২০ জুলাই, ২০১৬
  • ২৯ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: জগন্নাথপুর উপজেলা মৎস্য অধিদপ্তরের উদ্যোগে সপ্তাহব্যাপী মৎস্য সপ্তাহ পালনের অংশ হিসেবে বুধবার র‌্যালী, আলোচনা সভা,গনমাধ্যম প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় ও পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়। সকালে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গন থেকে র‌্যালীটি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রর্দক্ষিন শেষে এক আলোচনা সভায় মিলিত হয়। উপজেলা পরিষদ সন্মেলন কক্ষে আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি কাজী আরিফুর রহমান। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ওয়াহিদুল আবরার এর পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আকমল হোসেন, বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদীর আহমদ মুক্তা। পরে জগন্নাথপুর প্রেসক্লাবের নের্তৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করে সপ্তাহব্যাপী মৎস্য সপ্তাহের কর্মসূচী তুলে ধরেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ওয়াহিদুল আবরার। এসময় জগন্নাথপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শংকর রায়, সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার হাসান সুনু, জগন্নাথপুর প্রেসক্লাব যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম সম্পাদক অমিত দেব, সদস্য ও জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম বার্তা সম্পাদক আলী আহমদ উপস্থিত ছিলেন। বিকেলে উপজেলা পরিষদ পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়।
IMG-20160720-WA0008=== জগন্নাথপুর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা ওয়াহিদুল আবরার সপ্তাহব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে বৃহস্পতিবার বর্তমান সরকারের সময়ে মৎস্য সেক্টরের অর্জিত গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি বিষয়ে আলোচনাসভা ও প্রামাণ্য চিত্র প্রর্দশন,শুক্রবার,মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, শনিবার স্কুল,কলেজে মৎস্য চাষ বিষয়ে আলোচনাসভা ও প্রামান্য চিত্র প্রর্দশন, রবিবার হাট বাজার ও উন্মুক্ত জনবান্ধন স্থানে মৎস্য চাষ ভিত্তিক উদ্বুধকরণ আলোচনা সভা ও প্রামাণ্য চিত্র প্রর্দশন,সোমবার সমাপনী দিনে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের মূল্যায়ন সভা ও সফল মৎস্য কর্মীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান। তিনি উপজেলার সকল জলমহাল পূর্বের ন্যায় মৎস্য অধিদপ্তরের হাতে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়ে বলেন, মৎস্য সেক্টরে বর্তমানে বাংলাদেশে প্রচুর অগ্রগতি হয়েছে। আরো অগ্রগতি করতে হলে মৎস্য সম্পদগুলো মৎস্য দপ্তরের হাতে ফিরিয়ে দিতে হবে। তিনি জানান, মাছ ধরার সময় যদি কোন প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে কোন মৎস্যজীবি মারা যান মৎস্য দপ্তর থেকে তার পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হবে। এছাড়াও জগন্নাথপুর উপজেলার মৎস্য কার্ডধারী ব্যক্তিরা আগামী বছর থেকে মাছ ধরা বন্ধের সময়ে ৪০ থেকে ৫০ কেজি করে চাল পাওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীণ রয়েছে। জগন্নাথপুর মৎস্য চাষী ও মৎস্যজীবি মিলিয়ে ৬৬০০ পরিবার রয়েছে বলে তিনি জানান। এছাড়াও তিনি উপজেলা পরিষদের মাধ্যমে উপজেলার পরিত্যক্ত পুকুর,জলাশয়কে মৎস্য চাষের আওতায় আনার প্রস্তাব দিয়েছেন বলে সংবাদ সন্মেলনে জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24