রবিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২০, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে ইউনিয়ন আ,লীগের সম্মেলন সফল করার লক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ডাক্তার-নার্সের অবহেলায় শিশুর মৃত্যুের অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন মুঠোফোনে প্রেমের ফাঁদে ফেলে কিশোরগঞ্জের তরুণী কে জগন্নাথপুর এনে ধর্ষণ নান্দনিক আয়োজনে ঐতিহ্যবাহি মিরপুরের উচ্চ বিদ্যালয়ে সাবেক শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় বাঁধাভাঙা উচ্ছ্বাস জগন্নাথপুরে জুয়াড়িসহ গ্রেফতার-১৩ কুকুরের সঙ্গে সেলফি, অতঃপর মুখে ৪০ সেলাই পৌর মেয়র আব্দুল মনাফের মরদেহে হিন্দু কমিউনিটি নেতাদের শ্রদ্ধা নিবেদন চিরনিদ্রায় নিজের তৈরী কবরে শায়িত জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুল মনাফ শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় জগন্নাথপুর পৌরসভার জননন্দিত মেয়র আব্দুল মনাফকে শেষ বিদায়,জানাজায় শোকার্ত মানুষের ঢল পৌর মেয়র আব্দুল মনাফ এর মরদেহে পরিকল্পনা মন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন

জগন্নাথপুরে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে এসে জামাতা আত্মগোপনে অতঃপর উদ্ধার এলাকায় তোলপাড়

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ১২৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: জগন্নাথপুরে ফিরাযাত্রায় এসে শশুর বাড়ি থেকে জামাতা আত্মগোপনের ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় দেখা দিয়েছে। জানা গেছে ছাতক পৌর শহরের ফকির টিলা এলাকার বাসিন্দা কাজী মো: লিলু মিয়ার পুত্র কাজী জায়েদ মিয়া গত ১১সেপ্টেম্বর জগন্নাথপুর পৌর শহরের ইসহাকপুর গ্রামের তারা মিয়ার মেয়ে কে ইসলামী শরিয়া অনুযায়ী বিয়ে করেন। বিয়ের পর প্রথা অনুযায়ী গত ১৩ সেপ্টেম্বর কাজী জায়েদ মিয়া তার নববধু স্ত্রী ও আত্বীয় স্বজন নিয়ে শশুর বাড়ি জগন্নাথপুর পৌর শহরের ইসহাকপুর গ্রামে ফিরাযাত্রায় আসেন। শশুর বাড়িতে আড়াই দিন থাকার পর ১৫ সেপ্টেম্বর কাজী জায়েদ মিয়া তার নববধু স্ত্রীকে নিয়ে ছাতকে নীজ বাড়িতে যাওয়ার কথা থাকলেও ঐদিন হঠাৎ করে বর কাজী জায়েদ মিয়া শশুর বাড়ি থেকে আত্মগোপনে চলে যান। এনিয়ে হৈচৈ শুরু হলে শুরু হয় খোঁজাখুঁজি। বিষয়টি স্বামীর বাড়ির লোকজনকে জানানো হলে উভয় পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করেন। ওইদিন রাতেই উভয় পরিবারের লোকজন জগন্নাথপুর থানায় সাধারন ডায়েরি করেন। এঘটনায় গত বৃহস্পতিবার কাজী মোঃ লিলু মিয়া বাদী হয়ে জগন্নাথপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন । পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে নববধু ও তার বড় ভাই রিপন মিয়াকে ইসহাকপুর নীজ বাড়ি থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। রাতে আত্মগোপনে থাকা বর কাজী জায়েদ মিয়াকে বিশ্বনাথ থেকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। থানায় পুলিশ ও গনমাধ্যম কর্মীদের সামনে আত্মগোপনে থাকা কাজী জায়েদ মিয়া অসংলগ্ন কথাবার্তা বলেন। মেয়েটির পরিবারের লোকজন জানান,পরিচিত এক ব্যক্তির মাধ্যমে হঠাৎ করে বিয়ে দেয়ায় আমরা ছেলেটির বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পারিনি। এখন বুঝতে পারছি ছেলেটি মানসিকভাবে কিছুটা অসুস্থ ও নেশাগ্রস্থ।
জগন্নাথপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি আসাদুজ্জামান জানান, উদ্ধারকৃত ব্যক্তি শারিরীকভাবে অসুস্থ বলে মনে হচ্ছে। তাই তার কাছ থেকে সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে চিকিৎসা করানো হচ্ছে। ছেলেটি থানায় একেক সময় একেক রখম কথা বলছে। সঠিক তথ্য পাওয়া গেলে পরবর্তী আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24