শুভজন্মদিন-অভিবাদন জনকল্যানে নিবেদিতপ্রাণ এম এ মান্নান

অমিত দেব :
আজ ১৬ ফেব্রয়ারি একজন সৎ সজ্জন নিবেদীতপ্রাণ রাজনৈতিক ব্যক্তি সাদামনের মানুষ পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের ৭৩তম জন্মদিবস। ১৯৪৬ সালের এই দিনে হাওর ব্যষ্টিত সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলার ডুংরিয়া গ্রামে তাঁর জন্ম। বাবা মৌলবি আরফান আলী ও মা গৃহিনী আজিজুস নেসা দম্পত্তির সন্তান এম এ মান্নান একজন সৎ আমলা নিবেদীতপ্রাণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সফল মন্ত্রী হিসেবে জনকল্যাণে কাজ করছেন। ইতিমধ্যে একজন সফল মানুষ হিসেবে তিনি সুখ্যতি অর্জন করেছেন। অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে নানা সংগ্রাম করে বেড়ে উঠা এম এ মান্নান ছোটবেলা থেকে শিক্ষার প্রতি বিশেষ অনুরাগী। গ্রামের বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রের্ণী পর্যন্ত পড়ালেখা করার পর তিনি মামার বাড়ি জেলার ছাতক উপজেলার ধারনে চলে যান। সেখানে পড়াশোনার পর মামা স্কুল শিক্ষকের বদলীজনিত কারনে তিনি আলমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপন করেন। পরে সুনামগঞ্জ সরকারি জুবলি স্কুলে ভর্তি হন। সপ্তম শ্রেণীতে পড়ার সময় এক সহপাঠীর মাধ্যমে জানতে পারেন পাকিস্তানের সারগোদা বিমান বাহিনীর বিদ্যালয়ে মেধাবী শিক্ষার্থীদের ভর্তির সুযোগের আবেদন নেয়া হচ্ছে। তিনি চট্রগ্রামে গিয়ে ভর্তিযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়ে সেখানে গিয়ে পাকিস্তানের সারগোদা বিমান বাহিনীর স্কুল থেকে ‘ও“লেভেল সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্মাতক পিজিডি(অর্থনীতি)ম্যানচেষ্টর বিশ্ববিদ্যালয় ইংল্যান্ড ওব্রাসলেস বিশ্ববিদ্যালয় বেলজিয়াম থেকে সার্টিফিকেট ইন ম্যানেজমেন্ট ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৭৪ সালে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে দেখা করে তাঁর নির্দেশে সিভিল সার্ভিসে যোগদান করেন। তিনি জেলা প্রশাসক হিসেবে কিশোরগঞ্জ,ময়মনাসংহ ও চট্রগ্রামে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় যুগ্ম সচিব( রাজনৈতিক) প্রদানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক,এনজিও ব্যুরোর মহাপরিচালেক,জেনেভায় বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনে ইকোনমিক মিনিষ্টার হিসেবে সফলতার সহিত দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৩ সালে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করর্পোরেশনের চেয়ারম্যান হিসেবে সততার সহিত সরকারি চাকুরি থেকে অবসর নেন। একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে দেশে বিদেশে তিনি প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন। তাঁর সহধর্মীনি জুলেখা মান্নান রাজধানীর সুনামধন্য হলিক্রস মহিলা কলেজের অধ্যাপক হিসেবে অবসর নিয়েছেন। এক ছেলে শাহাদাত মান্নান ইংল্যান্ডে ব্যাংক কর্মকর্তা ও মেয়ে সারাহ আফরীন মান্নান আমেরিকায় চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত। ২০০৫ সালে স্বাধীনবাংলার প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদের মৃত্যুর পর তিনি জগন্নাথপুর-দক্ষিন সুনামগঞ্জ নিয়ে গঠিত সুনামগঞ্জ-৩ আসনে (আওয়ামীলীগ দলীয়ভাবে এ নির্বাচনে অংশ না নেয়ায় ) স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপ নির্বাচনে অংশ নিয়ে আলোচনায় চলে আসেন। পরবর্তীতে তিনি আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফুল দিয়ে আওয়ামীলীগে যোগদান করে হাওর অঞ্চলের মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। ২০০৮ সালে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে প্রথমবারের মতো বিপুলভোটের ব্যবধানে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে আবারো তিনি সংসদ সদস্য হন। এসময় সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ গত ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে তিনি আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে সাংসদ নির্বাচিত হয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীর দায়িত্ব পান। গত ১০ বছরে তিনি সুনামগঞ্জে মেডিকেল কলেজ,টেক্সটাইল ইনষ্টিটিউটসহ অভূর্তপূর্ব উন্নয়ণ করেছেন। হাওর অঞ্চলের মাটি ও মানুষের সাথে মিলেমিলে একাকার হয়ে যাওয়া মানুষটি জনকল্যাণকে ব্রত মনে করে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নেয়ার সংগ্রামে তাঁর প্রচেষ্ঠা অনস্বীকার্য। তিনি মহান মুক্তিযোদ্ধের চেতনা,বাঙ্গালি জাতীয়তাবাদ, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি সুখি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার পরিকল্পনায় যুক্ত রয়েছেন। জীবনের শেষ দিনগুলো তিনি জনগনের জন্য কাজ করতে চান। জনকল্যাণে নিবেদীতপ্রাণ সৎ,সজ্জন,সফল সাদামনের মানুষ এম এ মান্নানকে জন্মদিনে জানাই অভিনন্দন ।
(অমিত দেব. সাংবাদিক)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জগন্নাথপুরের বীর মুক্তিযাদ্ধা আব্দুল কাদির শিকদার আর নেই, পরিকল্পনামন্ত্রীর শোক

» সুনামগঞ্জে তিন দিনে তিন খুন, ভাবাচ্ছে সকলকে

» হানিফ পরিবহনের ২ বাসের সংঘর্ষে নিহত-৩

» নিউজিল্যান্ডের রেডিও-টিভিতে জুমার আজান সম্প্রচারের ঘোষণা দিলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী

» ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম হত্যা: ১৫ আসামির মৃত্যুদণ্ড

» ইউসুফ (আ.)-এর কবরের পাশে তিন ফিলিস্তিনি যুবককে গুলি করে হত্যা

» জগন্নাথপুরে চার জুয়াড়ি আটক

» নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলন ২৮ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত

» তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত পরীক্ষা না রাখার নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

» বাসচাপায় নিহত আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

শুভজন্মদিন-অভিবাদন জনকল্যানে নিবেদিতপ্রাণ এম এ মান্নান

অমিত দেব :
আজ ১৬ ফেব্রয়ারি একজন সৎ সজ্জন নিবেদীতপ্রাণ রাজনৈতিক ব্যক্তি সাদামনের মানুষ পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নানের ৭৩তম জন্মদিবস। ১৯৪৬ সালের এই দিনে হাওর ব্যষ্টিত সুনামগঞ্জ জেলার দক্ষিন সুনামগঞ্জ উপজেলার ডুংরিয়া গ্রামে তাঁর জন্ম। বাবা মৌলবি আরফান আলী ও মা গৃহিনী আজিজুস নেসা দম্পত্তির সন্তান এম এ মান্নান একজন সৎ আমলা নিবেদীতপ্রাণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব সফল মন্ত্রী হিসেবে জনকল্যাণে কাজ করছেন। ইতিমধ্যে একজন সফল মানুষ হিসেবে তিনি সুখ্যতি অর্জন করেছেন। অনেক চড়াই উৎরাই পেরিয়ে নানা সংগ্রাম করে বেড়ে উঠা এম এ মান্নান ছোটবেলা থেকে শিক্ষার প্রতি বিশেষ অনুরাগী। গ্রামের বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রের্ণী পর্যন্ত পড়ালেখা করার পর তিনি মামার বাড়ি জেলার ছাতক উপজেলার ধারনে চলে যান। সেখানে পড়াশোনার পর মামা স্কুল শিক্ষকের বদলীজনিত কারনে তিনি আলমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপন করেন। পরে সুনামগঞ্জ সরকারি জুবলি স্কুলে ভর্তি হন। সপ্তম শ্রেণীতে পড়ার সময় এক সহপাঠীর মাধ্যমে জানতে পারেন পাকিস্তানের সারগোদা বিমান বাহিনীর বিদ্যালয়ে মেধাবী শিক্ষার্থীদের ভর্তির সুযোগের আবেদন নেয়া হচ্ছে। তিনি চট্রগ্রামে গিয়ে ভর্তিযুদ্ধে অবতীর্ণ হয়ে সেখানে গিয়ে পাকিস্তানের সারগোদা বিমান বাহিনীর স্কুল থেকে ‘ও“লেভেল সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্মাতক পিজিডি(অর্থনীতি)ম্যানচেষ্টর বিশ্ববিদ্যালয় ইংল্যান্ড ওব্রাসলেস বিশ্ববিদ্যালয় বেলজিয়াম থেকে সার্টিফিকেট ইন ম্যানেজমেন্ট ডিগ্রী লাভ করেন। ১৯৭৪ সালে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধ শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে দেখা করে তাঁর নির্দেশে সিভিল সার্ভিসে যোগদান করেন। তিনি জেলা প্রশাসক হিসেবে কিশোরগঞ্জ,ময়মনাসংহ ও চট্রগ্রামে সুনামের সহিত দায়িত্ব পালন করেন। তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয় যুগ্ম সচিব( রাজনৈতিক) প্রদানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক,এনজিও ব্যুরোর মহাপরিচালেক,জেনেভায় বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনে ইকোনমিক মিনিষ্টার হিসেবে সফলতার সহিত দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৩ সালে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করর্পোরেশনের চেয়ারম্যান হিসেবে সততার সহিত সরকারি চাকুরি থেকে অবসর নেন। একজন সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে দেশে বিদেশে তিনি প্রতিভার স্বাক্ষর রাখেন। তাঁর সহধর্মীনি জুলেখা মান্নান রাজধানীর সুনামধন্য হলিক্রস মহিলা কলেজের অধ্যাপক হিসেবে অবসর নিয়েছেন। এক ছেলে শাহাদাত মান্নান ইংল্যান্ডে ব্যাংক কর্মকর্তা ও মেয়ে সারাহ আফরীন মান্নান আমেরিকায় চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত। ২০০৫ সালে স্বাধীনবাংলার প্রথম পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুস সামাদ আজাদের মৃত্যুর পর তিনি জগন্নাথপুর-দক্ষিন সুনামগঞ্জ নিয়ে গঠিত সুনামগঞ্জ-৩ আসনে (আওয়ামীলীগ দলীয়ভাবে এ নির্বাচনে অংশ না নেয়ায় ) স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে উপ নির্বাচনে অংশ নিয়ে আলোচনায় চলে আসেন। পরবর্তীতে তিনি আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফুল দিয়ে আওয়ামীলীগে যোগদান করে হাওর অঞ্চলের মানুষের পাশে গিয়ে দাঁড়ান। ২০০৮ সালে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন নিয়ে প্রথমবারের মতো বিপুলভোটের ব্যবধানে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে আবারো তিনি সংসদ সদস্য হন। এসময় সরকারের অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন। সর্বশেষ গত ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচনে তিনি আওয়ামীলীগের প্রার্থী হিসেবে সাংসদ নির্বাচিত হয়ে পরিকল্পনামন্ত্রীর দায়িত্ব পান। গত ১০ বছরে তিনি সুনামগঞ্জে মেডিকেল কলেজ,টেক্সটাইল ইনষ্টিটিউটসহ অভূর্তপূর্ব উন্নয়ণ করেছেন। হাওর অঞ্চলের মাটি ও মানুষের সাথে মিলেমিলে একাকার হয়ে যাওয়া মানুষটি জনকল্যাণকে ব্রত মনে করে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নেয়ার সংগ্রামে তাঁর প্রচেষ্ঠা অনস্বীকার্য। তিনি মহান মুক্তিযোদ্ধের চেতনা,বাঙ্গালি জাতীয়তাবাদ, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ বিনির্মাণে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে একটি সুখি সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ার পরিকল্পনায় যুক্ত রয়েছেন। জীবনের শেষ দিনগুলো তিনি জনগনের জন্য কাজ করতে চান। জনকল্যাণে নিবেদীতপ্রাণ সৎ,সজ্জন,সফল সাদামনের মানুষ এম এ মান্নানকে জন্মদিনে জানাই অভিনন্দন ।
(অমিত দেব. সাংবাদিক)

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।