মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে গ্রামীণ ফোনের ৫ লাখ টাকা ছিনতাই, জনতার ধাওয়ায় বাইকসহ আটক ১ জগন্নাথপুরে সড়ক রক্ষায় ১০ টন ওজনের অধিক যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ, আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা প্রার্থীরা গরুর মাংস বিক্রি: ভারতে খ্রিস্টান যুবককে পিটিয়ে হত্যা জগন্নাথপুরের ব‌্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া খুনের ঘটনায় সানিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সুনামগঞ্জে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড, তিনজনের যাবজ্জীবন ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের ‘হামলা’ আহত ২৫ অনেকেই গা ঢাকা দিয়েছে, অনেককেই নজরদাড়িতে রাখা হয়েছে: কাদের বিরিয়ানি খেলে শিক্ষকসহ ৪০ জন অসুস্থ আল কোরআন অনুসরণের আহ্বান রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের!

টমটম গাড়ীর জন্য জগন্নাথপুরের এক চালককে রশিদপুরে নিয়ে খুন,গ্রেফতার-১

বিশেষ প্রতিনিধি::
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯
  • ৭৪২ Time View

টমটম (ইজিবাইক) গাড়ির জন্য সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের সাইদুল ইসলাম (১৭) নামে এক চালককে দুর্বৃত্তরা হত্যা করে তার মরদেহ খালের ঝোপের মধ্যে ফেলে দেয়।

আজ বৃহস্পতিবার ভোররাতে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ চালকের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জন্য  সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রেরণ করে। ময়না তদন্ত শেষে বিকেল নিহতের লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়। বিকেল ৫টায় নিহতের জানাজা নামাজ শেষে তার দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

এদিকে হত্যাকাণ্ডের জড়িত থাকার অভিযোগে এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ আজ ভোরে ব্রাক্ষণবাড়িয়া জেলার নাছিরনগর থানার হাতিকুড়া গ্রামের গোপাল দেবনাথের ছেলে কাজল দেবনাথ(২৮)কে টমটম গাড়িসহ আটক করে।

পুলিশ ও নিহত পরিবারের লোকজন জানান,

জগন্নাথপুর উপজেলার মীরপুর ইউনিয়নের বাউরকাপন গ্রামের মৃত শফিক মিয়ার ছেলে টমটম চালক সাইদুল ইসলাম গত ১১ আগষ্ট (ঈদের আগের দিন রোববার ) সকালে টমটম গাড়ি দিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়।  এরপর থেকে তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। এঘটনায় চালকের বড় ভাই রিয়াজুল হক জগন্নাথপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) দায়ের করেন।  গতকাল বুধবার দিবাগত মধ্যরাতে জগন্নাথপুর থানা পুলিশ খবব পায় নিখোঁজ টমটম চালকের লাশ সিলেটর রশিদপুর এলাকায় পাওয়া গেছে। এখবর পেয়ে ভোররাতে পুলিশ ওই চালকের গলিত লাশ উদ্ধার করে। এঘটনায় পুলিশ টমটম গাড়িসহ কাজল দেবনাথকে তার গ্রামের বাড়ি থোক আটক করে। জগন্নাথপুর থানা পুলিশের একটি বিশ্বস্থ সুত্র জানায়, থানায় আটককৃত কাজল দেবনাথ হত্যাকাণ্ডে ঘটনায় সে নিজে জড়িত বলে স্বীকার করেছে। এ হত্যাকাণ্ডে রশিদপুর বাজারের ভাঙ্গারী ব্যবসায়ী বিলাল ও বাজারের নৈশ প্রহরী শরিফ মিয়া জড়িত। ওই সুত্র জানায়, নৈশ প্রহরী শরিফ মিয়া টমটম চালক সাইদুলকে মোবাইল ফোন  কল দিলে রশিদপুর ডেকে নেয়।পরে চালককে তারা হত্যা করে  তার লাশ সিলেট-ঢাকা মহাসড়কের রশিদপুর এলাকায় খালের ঝোপে ফেলে দেয়।

নিহতের বড়ভাই রিয়াজুল হক জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আমার ভাই জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-রশিদপুর সড়কে টমটম গাড়ী চালাতো। গত ১১ আগষ্ট সকালের দিকে

বাড়ী থেকে টমটম গাড়ী নিয়ে বিশ্বনাথের বাগিচাবাজারের উদ্যোগে বের হয়ে আর বাড়ী ফিরেনি।তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি আমরা বন্ধ পাই। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও ভাইয়ের কোন সন্ধান না পেয়ে থানায় জিডি দায়ের করি। তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আমার ভাইকে ডেকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে ঘাতকরা হত্যা করেছে। আমি আমার নিম্পাপ ছোট ভাইয়ের ঘাতককে ফাঁসি চাই।

জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, টমটম গাড়ীর জন্য চালক সাইদুল ইসলামকে হত্যা করা হয়েছে।আটককৃত ঘাতক হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে। তার স্বীকারোক্তি অনুয়ায়ী নিহতের ব্যবহৃত মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডে আরো কয়েকজন জড়িত আছে। তাদেরকে গ্রেফতারে পুলিশী অভিযান চলছে।এএঘটনায় থানায় হত্যা মামলার প্রস্তুুতি চলছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24