বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০৬:১১ পূর্বাহ্ন

ডাকাত আতঙ্কে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন দক্ষিণ সুনামগঞ্জের ৮ গ্রামের মানুষ

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ::
  • Update Time : শনিবার, ২৭ জুলাই, ২০১৯
  • ৩৪৮ Time View

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে ডাকাত আতংকে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন উপজেলার পাথারিয়া ইউপির গনিগঞ্জ, জাহানপুর, শ্রীনাথপুর, আসামমুড়া, কাশিপুর, দরগাহপুর, হাসারচর ও গাজীনগর গ্রামের মানুষ। একদিকে পানিবন্দি অন্যদিকে ডাকাত আতংক সব মিলিয়ে কষ্টের শেষ নেই তাদের। বিগত ১ মাস যাবৎ নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছেন পানিবন্দি এই গ্রামের মানুষজন। দিন অতিবাহিত হয়ে সন্ধ্যা নামার পরপরই তাদের মনে ভয় কাজ করে কখন জানি ডাকাত এসে সব নিয়ে যায়।
জানা যায়, ইতিমধ্যেই ডাকাতরা বিভিন্ন বাড়িতে হানা দিয়ে মূল্যবান জিনিস পত্র ডাকাতি করে নিয়ে গেছে। ফলে জানমালের নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন তারা। এর আগে ডাকাতের এমন ছড়াছড়ি ছিল না বলে জানান আতংকগ্রস্ত গ্রামের মানুষজন। এই গ্রাম গুলোর চারিদিকে পানি থাকায় নৌকা যোগে ডাকাতি করতেই ডাকাতরা হানা দেয়।
এলাকাবাসী জানান, আমাদের তো এখন ঘুম নেই। সন্ধ্যার পর থেকেই ভয়ে থাকি কখন ডাকাত আসে। ইতিমধ্যেই ডাকাত দল গ্রামের কয়েকটি ঘরে ডাকাতি করেছে। সন্ধ্যা নামার পরপরই ডাকাতরা নৌকা নিয়া ঘুরাঘুরি করে। সারারাত পাহারা দেয়া লাগে। তাই প্রশাসনের কাছে অনুরোধ আমাদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে ডাকাতদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হোক।
উপজেলা জাহানপুর গ্রামের আব্দুল আহাদ বলেন, জানমাল নিয়ে চিন্তায় আছি। ডাকাতের ভয়ে পরিবারের কারো ঘুম নাই।
হাসারচর গ্রামের নিজাম উদ্দিন বলেন, কষ্টের কথা কইয়া শেষ করা যাইবনি। ডাকাইতের ডরে রাইত ঘুমাই না, জানো ডর থাকে কোন সময় ডাকাইতের দল আইয়া ডাকাতি করে।
পাথারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আমিনুর রশীদ আমিন জানান, বিষয়টি আমি জানি। গ্রামের মানুষদের বলেছি সজাগ দৃষ্টি রাখতে। এ বিষয়ে থানা প্রশাসনকেও অবগত করেছি।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হারুনুর রশীদ চৌধুরী জানান, পুলিশ সর্বদা টহল দিচ্ছে এবং জনগণের সাথে স¤পৃক্ত হয়ে কাজ করছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24