মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে গ্রামীণ ফোনের ৫ লাখ টাকা ছিনতাই, জনতার ধাওয়ায় বাইকসহ আটক ১ জগন্নাথপুরে সড়ক রক্ষায় ১০ টন ওজনের অধিক যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিক বরাদ্দ, আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা প্রার্থীরা গরুর মাংস বিক্রি: ভারতে খ্রিস্টান যুবককে পিটিয়ে হত্যা জগন্নাথপুরের ব‌্যবসায়ী ফেরদৌস মিয়া খুনের ঘটনায় সানিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড সুনামগঞ্জে হত্যা মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড, তিনজনের যাবজ্জীবন ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের ওপর ছাত্রলীগের ‘হামলা’ আহত ২৫ অনেকেই গা ঢাকা দিয়েছে, অনেককেই নজরদাড়িতে রাখা হয়েছে: কাদের বিরিয়ানি খেলে শিক্ষকসহ ৪০ জন অসুস্থ আল কোরআন অনুসরণের আহ্বান রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিনের!

তাহিরপুরে ত্রাণের টোকেন নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ২০

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৭ জুলাই, ২০১৭
  • ২৩ Time View

তাহিরপুর প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ত্রাণের টোকেন দেওয়াকে কেন্দ্র করে দুই দফায় সংঘর্ষ হয়েছে। এতে নারীসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে।

গুরুতর আহতদের মধ্যে বাবলু তালুকদার (২৫), নির্মল তালুকদার (৩০), স্মৃতি তালুকদার (২৫) ও মেহেদীকে (১৮) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া গুরুত্বর আহত জুনায়েদ মিয়াকে (২০) সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছে।

এনজিও সংস্থা ‘ইরার’ ত্রাণের টোকেন দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রথমবার ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় তাহিরপুর সদর বাজারে ও দ্বিতীয় ঘটনাটি ঘটে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের সাহআগঞ্জ গ্রামে।

তাহিরপুর থানা পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, উপজেলায় দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ডালিম মিয়া এনজিও সংস্থা ‘ইরার’ ১০টি ত্রাণের টোকেন বিলি করার জন্য সাহাগঞ্জ গ্রামের মাজেদ মিয়াকে দেন। মাজেদ মিয়া বৃহস্পতিবার বিকেলে ওই ১০টি টোকেন গ্রামের লোকজনের মধ্যে বিলি করেন। এ নিয়ে একই গ্রামের অমল তালুকদারের সঙ্গে বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় তাহিরপুর বাজারে মাজেদ মিয়ার কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে দুজনের মধ্যে হাতাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় স্থানীয় লোকজন বিষয়টা মীমাংসাও করে দেয়।

পরে এই ঘটনার জের ধরে সাহাগঞ্জ গ্রামে শুক্রবার দুপুরে দুইপক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পুলিশ ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের চেষ্টায় ঘণ্টাব্যাপী সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আসে। এতে ২০ জন আহত হয়।

ওসি (তদন্ত) আসাদুজ্জামান হাওলাদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘এখনও কেউ অভিযোগ নিয়ে আসেনি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24