মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:৫২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে দু’পক্ষের বিরোধে বলীর শিকার শিশু সাব্বিরের খুনীরা এখনও ধরা পড়েনি জগন্নাথপুরে ৬০ কৃষক কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান জগন্নাথপুরে সনাক্তকারী ‘বহিরাগতদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন প্রাণের চেয়েও প্রিয় মহানবী (সা.) সুনামগঞ্জে আ.লীগ নেতার ছেলে পিটালেন ডাক্তারকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে আহত ৩ জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠানের উদ্যাগে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান জগন্নাথপুর আ,লীগের সন্মেলন কে স্বাগত জানিয়ে সৈয়দপুর বাজারে মিছিল জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সন্মেলন ১ ডিসেম্বর জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কে ফের বুধবার থেকে ধর্মঘট, এলাকায় মাইকিং

দুবাইতে গ্রেফতারকৃত শীর্ষ সন্ত্রাসী’ জিসান আহমেদকে আনা হচ্ছে দেশে

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
  • Update Time : শুক্রবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৯
  • ১৫৭ Time View

দুবাইতে পালিয়ে থাকা বাংলাদেশের পলাতক ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী’ জিসান আহমেদকে গ্রেফতার করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পুলিশ। গ্রেফতারের পর দ্রুত তাকে দুবাই থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বুধবার রাতে তাকে গ্রেফতার করার পর ইন্টারপোলের মাধ্যম দুবাই পুলিশ বাংলাদেশের পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরো) মহিউল ইসলাম জিসানকে গ্রেফতারের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

মহিউল ইসলাম বলেন ‘জিসান সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের কাছে কিছু তথ্য চেয়েছিল। ডিবি পুলিশের সহায়তায় আমরা সেগুলো পাঠানোর পর তারা জিসান আহমেদের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে জানিয়েছে। ইন্টারপোলের নোটিশটি আরো জোরালো করার জন্য আমাদের অনুরোধ করে।’

জিসানের নাম ইন্টারপোলের রেড অ্যালার্টের তালিকায় ছিল। তবে বাংলাদেশের পাসপোর্ট নয়, আলী আকবর চৌধুরী নামে একটি ভারতীয় পাসপোর্ট বহন করছিলেন জিসান।

দুবাইতে গ্রেফতারের পর এখন তাকে দুবাই থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে হত্যা, বিস্ফোরক সরঞ্জাম রাখার অভিযোগ রয়েছে বলে ইন্টারপোলের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে।

বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘোষিত ‘শীর্ষ ২৩ সন্ত্রাসী’র তালিকায় নাম ছিল জিসান আহমেদের। তাকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছিল।

এর আগে ২০০৩ সালে মালিবাগের একটি হোটেল দুইজন ডিবি পুলিশ সদস্যকে হত্যার ঘটনায় জিসান আহমেদের নাম আসে। এরপরে সে দেশ ত্যাগ করে ভারতে পালিয়ে যায়। ভারতে গিয়ে নিজের নাম পরিবর্তন করে আলী আকবর চৌধুরী নামে পাসপোর্ট সংগ্রহ করেন জিসান। এরপর সেই পাসপোর্ট নিয়ে তিনি দুবাইতে অবস্থান করছিলেন।

সম্প্রতি ক্ষমতাসীন দলের একটি অঙ্গ সংগঠনের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতি বিরোধী অভিযান শুরুর পর, তাদের সঙ্গে জিসান আহমেদের যোগাযোগ হয়েছিল বলে বাংলাদেশের গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। সূত্র : বিবিসি বাংলা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24