শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
মুসলিমবিদ্বেষী আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ আমি স্বাধীনতা বিরুধী পরিবারের সন্তান নই- চেয়ারম্যান আব্দুল হাশিম জগন্নাথপুরে বাংলা মিরর সম্পাদক আব্দুল করিম গনি সংবর্ধিত জগন্নাথপুরে তিনদিন ব্যাপি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ব্রিটেনের নির্বাচনে আফসানার বড় জয়ে জগন্নাথপুরে উৎসবের আমেজ ব্রিটিশ পালার্মেন্টে ঝড় তুলবে বিজয়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারী এমপি ব্রিটেনের নির্বাচনে একটি আসনে বিশাল জয় পেয়েছেন জগন্নাথপুরের আফসানা বেগম অপরাধীদের প্রতি মহানবীর আচরণ যেমন ছিল সুদখোরদের ধরতে জেলা ও উপজেলায় মাঠে নামছে প্রশাসন জগন্নাথপুরে হাওরের জরিপ কাজ শেষ, কাজের তুলনায় বরাদ্দ কম, প্রকল্প কমিটি হয়নি একটিও

দ.সুনামগঞ্জে চুরির দায়ে ইউপি সদস্য আটক

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি::
  • Update Time : সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ২২২ Time View

দক্ষিণ সুনামগঞ্জে চুরি যাওয়া রড় সহ এক ইউপি সদস্যকে আটক করা হয়েছে। রড পাচার করতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন তিনি।
জানা যায়, পাগলা-জগন্নাথপুর-আউশকান্দি সড়কের কাজ চলছে। এই কাজটি এম এম বিল্ডর্স নামের একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বাস্তবায়ন করছে। দরগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের পাশেই আব্দুর রশিদ উচ্চ বিদ্যালরে দক্ষিণ পাশে এই সড়কের একটি ব্রিজ নির্মাণ হচ্ছে। এই ব্রিজের কাজে ব্যবহৃত রড নির্মাণ এলাকা থেকে চুরি করছিলেন ঐ ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম কুটি ও তার সহযোগীরা। কিন্তু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের লোকজন প্রমাণের অভাবে ধরতে পারেননি। পরে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় এম এম বিল্ডার্স একটি সাধারণ ডায়েরী করেন। এর পর থেকেই পুলিশ ইউপি সদস্য ফরিদুল ইসলাম কুটিকে নজরদারির মধ্যে রাখে।
গত বৃহস্পতিবার রাতে জগন্নাথপুর থানা এলাকা থেকে দরগাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মো. ফরিদুল ইসলাম কুটি ও তার সহযোগী সিএনজি চালক দেলোয়ার হোসেনকে চোরাই ২ শত কেজি রড সহ হাতে নাতে গ্রেফতার করে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানা পুলিশ। গ্রেফতারের পরেই গত শনিবার আরও ৩ শত কেজি রড উদ্ধার করা হয়।
গ্রেফতারে পর এম এম বিল্ডার্স এর হিসাব রক্ষক জামাল আহমদ বাদী হয়ে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানায় মামলা করেন। মামলা নং-১০, তারিখ-১৪.১১.২০১৯ইং।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার এসআই জয়নাল আবেদীন জানান, আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাঁকে হাতে নাতে ধরেছি। অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ চুরি যাওয়া রড উদ্ধার করেছি।
দরগাপাশা ইউনিয়ন পরিশদের চেয়ারম্যান মনির উদ্দিন জানান, তার বিরুদ্ধে আগেও চুরির অভিযোগ ছিল। পুলিশ প্রশাসনের কাছে আমার অনুরোধ এই ইউনিয়নের যারা চুরি পেশায় জড়িত তাদেরকে আইনের আওতায় আনা হোক।
দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার অফিসার ইনর্চাজ মো. হারুনুর রশিদ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24