মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:১৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে মোটরযান ও ভোক্তা আইনে ভ্রাম্যমান আদালতের জরিমানা সৌদিতে নির্যাতিতা জগন্নাথপুরের কিশোরীকে দেশে ফেরাতে পরিকল্পনামন্ত্রীর ডিও লেটার কলকলিয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সম্মেলন সম্পন্ন হলেও কমিটি হয়নি আইসিজেতে গাম্বিয়ার আইনমন্ত্রী-মিয়ানমারের গণহত্যা কোনোভাবেই গ্রহণ করা যায় না জগন্নাথপুরে মানবাধিকার দিবসে র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত সিলেটে মাকে হত্যা করল পাষান্ড ছেলে ঘৃনার বদলে অমুসলিমদের মধ্যে ১০ হাজার কোরআন বিতরণ করবে নরওয়ের মুসলিমরা জগন্নাথপুরে ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে পারাপারের সময় খেলা নৌকা থেকে পড়ে মৃগী রোগির মৃত্যু জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহতের স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত

‘ধার্মিক’ হ্যাপীর জীবনী বিদেশী গনমাধ্যমে

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২২ জুন, ২০১৭
  • ১১২ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার রুবেল হোসেনের সঙ্গে জড়িয়ে একসময় ব্যাপক আলোচিত হয়েছিলেন অভিনেত্রী নাজনীন আক্তার হ্যাপী। তারপর ঘটনা মোড় নিয়েছে অনেক। একসময় থেমে গেছে আলোচনা-সমালোচনাও। রুবেল এখনও খেলছেন জাতীয় দলে। হ্যাপী বেছে নেন নিভৃত জীবনযাপন। সেই হ্যাপী আবারও আলোচনায় এসেছেন তার নতুন জীবনের কাহিনী নিয়ে। সম্প্রতি একটি বই প্রকাশিত হয়েছে, যেখানে হ্যাপীর বোরকা আবৃত, কঠোর

ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলা জীবনের কাহিনী উঠে এসেছে। আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপি গতকাল বুধবার এ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

হ্যাপীর নতুন জীবনের গল্পের ওপর ভিত্তি করে লেখা বইটির নাম ‘হ্যাপী থেকে আমাতুল্লাহ’। ‘আমাতুল্লাহ’ অর্থ ‘আল্লাহর নারী বান্দা’। হ্যাপীর সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে বইটি লেখা হয়েছে। এএফপির ঢাকা অফিসের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বইটির জন্য বাংলাদেশের পাঠক ‘ক্ষুধার্ত’ হয়ে পড়েছে। চলতি মাসে প্রকাশের পর বইটির হাজারের বেশি কপি বিক্রি হয়ে গেছে। বইটির প্রকাশক মাকতাবাতুল আজহার প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের মালিক মোহাম্মদ ওবায়দুল্লাহ জানান, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বইয়ের অর্ডার আসছে। সবাই জানতে চাইছেন, কীভাবে একজন তারকা এমন ইসলামিক জীবনযাপনে অভ্যস্ত হলেন।

২০১৩ সালে ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা’ ছবি দিয়ে ঢাকাই সিনেমায় নাম লেখান হ্যাপী। এক বছর পর রুবেল হোসেনের নামে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে আলোচনায় আসেন তিনি। রুবেলকে এ জন্য কারাগারেও যেতে হয়। পরে আদালত ক্রিকেটারের পক্ষে রায় দেন। মুক্তি পেয়ে বিশ্বকাপ খেলতে যান তিনি। আর হ্যাপী নতুন করে বিনোদনপাড়ায় নিজের অবস্থান পাকা করতে নামেন। তবে পরিবর্তন দেখা যায় কয়েক মাস পরই। ফেসবুক থেকে নিজের শত শত ছবি মুছে ফেলতে থাকেন হ্যাপী। তার পরিবর্তে বোরকায় ঢাকা ছবি প্রকাশ করেন। নিজেকে ‘ইসলামের সেবিকা’ বলে দাবি করতে থাকেন তিনি।

সাক্ষাৎকারধর্মী এই বইটি লিখেছেন আবদুল্লাহ আল ফারুক ও তার স্ত্রী সাদিকা সুলতানা সাকী। ফারুক বলেন, হ্যাপী এখন আমাতুল্লাহ নাম গ্রহণ করেছেন। এখন সব সময় তিনি পুরো শরীর বোরকায় আবৃত রাখেন। বইয়ে হ্যাপী লেখেন, ‘যখন বোরকা গ্রহণ করি এবং নাম পাল্টাই, তখন নিজেকে নবজাতকের মতো মনে হচ্ছিল। আগের জীবনের সঙ্গে আমার কোনো বন্ধন নেই। নতুন এক মানুষের গল্প এটি।’

বিবিসি বাংলাকে বইটির সহলেখক আবদুল্লাহ আল ফারুক বলেন, ছয়-সাত মাস আগে একবার ফেসবুকে হ্যাপী পোস্ট করেছিলেন, তার জীবনকথা নিয়ে তিনি বই প্রকাশ করতে চান, কেউ কি সেটা ছাপবে? হ্যাপীর ফ্রেন্ডলিস্টে সব মেয়ে থাকায় আমার স্ত্রীর মাধ্যমে তাকে বলি যে আপনি যদি লেখেন, তাহলে আমরা ছাপব। এরপর হ্যাপী লেখা শুরু করেন। কিন্তু একপর্যায়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়ায় তার ইচ্ছাতেই সাক্ষাৎকারধর্মী এই বই লেখায় উদ্যোগী হন ফারুক দম্পতি।

ফারুক জানান, হ্যাপী এখন পুরোপুরি বদলে গেছেন এবং যেভাবে চলেন, সেটা তাদের অবাকও করেছে। তিনি বলেন, হ্যাপী বিয়ে করেছেন আট মাস হয়ে গেছে। বইয়ে ১০৪টি প্রশ্ন রয়েছে জানিয়ে ফারুক বলেন, হ্যাপীর শৈশব, তারুণ্য, অভিনয়, মডেলিং, জীবনের উত্থান, ধাক্কাটা কীভাবে এলো_ সব বইয়ে উঠে এসেছে। তার নামাজি ও পর্দানশীন হয়ে ওঠার বিষয়ও স্থান পেয়েছে বইয়ে।

রুবেল প্রসঙ্গটি বইয়ে না আসার বিষয়ে ফারুক বলেন, হ্যাপী আমাকে বললেন, এটা আমার জীবনের ভুলে যাওয়া অধ্যায়। আমার সংসারে এ নিয়ে কথা ওঠে না। আমি চাই না, এটা বইয়ে থাকুক। আর এ কারণেই ক্রিকেটারের সঙ্গে সম্পর্কের কথা সম্পূর্ণ এড়িয়ে যাওয়া হয়েছে। ইরানি একটা সিনেমা দেখে হ্যাপী দ্বীনের পথে আসতে উদ্বুদ্ধ হন বলে জানান ফারুক। গ্গ্ন্যামারের জীবন ছেড়ে বর্তমান সাংসারিক জীবন নিয়ে হ্যাপী অনেক খুশি বলেই লেখককে জানিয়েছেন তিনি।
সুত্র-সমকাল

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24