শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
একটি নৃশংস হত্যাকাণ্ড,নাড়িয়ে দিল জগন্নাথপুরবাসিকে, ক্রাইম সিন ইউনিটের ঘটনাস্থল পরিদর্শন অফিসার্স ক্লাব থেকে রানীগঞ্জের তহশীলদারসহ ৪ জুয়াড়ি গ্রেফতার আজানের মর্মবানী জগন্নাথপুরে ২২তম ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সম্পন্ন জগন্নাথপুরে সেই সড়কে ২৩ কোটি টাকার টেন্ডার সম্পন্ন, নতুন বছরের শুরুতেই কাজ শুরু হতে পারে জগন্নাথপুরে ১৫ দিন পর অবশেষে ধান কেনা শুরু জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দুর্বৃত্তরা হত্যা করল স্টুডিও’র মালিক আনন্দকে সিলেট জেলা আ’লীগের নেতৃত্বে লুৎফুর-নাসির, মহানগরে মাসুক-জাকির প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রতিটি উপজেলায় সহায়তা কেন্দ্র: প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরশহরে স্টুডিও দোকানদারের মরদেহ পাওয়া গেছে

পানির উপর ভাসছে সুনামগঞ্জের শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৬ জুলাই, ২০১৬
  • ৫৯ Time View

আল-হেলাল,সুনামগঞ্জ থেকে : সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলের প্রবল বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ী ঢলের কারনে পানি বৃদ্ধি পেয়ে বন্যা শুরু হওয়ায় পানির উপর ভাসছে জেলার শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্টান। পানিবন্দী হওয়ার কারনে কমলমতি শিশু শিক্ষার্থীদের পিতা মাতাসহ অভিভাবকরা দূর্ঘটনার আশঙ্কায় তাদের সন্তানদেরকে শিক্ষা প্রতিষ্টানে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছেন। ফলে হাওরাঞ্চলের শিক্ষকরাও স্কুলে ছাত্র-ছাত্রী না আসায় অলস সময় পাড় করে বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন। শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অবর্তমানে বন্ধ রয়েছে জেলার প্রায় শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্টান। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সুত্রে জানা যায়,জেলায় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে ১ হাজার ৪২৬ টি। এর মধ্যে জেলার ৮টি উপজেলায় তাহিরপুরে ১২টি স্কুল,দোয়ারা বাজারে ৬টি,বিশ্বম্ভরপুরে ২০টি,ছাতকে ২টি,ধর্মপাশায় ৪টি,জগন্নাথপুরে ১৫টি,সুনামগঞ্জ সদরে ৭টি,দক্ষিন সুনামগঞ্জে ২৪টি সহ মোট ৯৫টি শিক্ষা প্রতিষ্টান পানিবন্দী থাকায় পাঠদান বন্ধ রয়েছে। এছাড়াও তাহিরপুর উপজেলার রাস্ক প্রকল্পের ৭৫টি আনন্দ স্কুলে পানিতে ডুবে গেছে। এছাড়াও জেলার প্রায় দু-শতাধিক প্রাথমিক,মাধ্যমিক,নিন্ম মাধ্যমিক ও কলেজের সংযোগ সড়ক ও স্কুলের আঙ্গিনা পানিতে ডুবে গেছে। বন্যার পানি বাড়তে থাকায় আরো দু-শতাধিক অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্টানে পানি ছুই ছুই করছে। তাহিরপুর উপজেলার বড়দল নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়,লক্ষীপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,পাতারগাঁও সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,ইমলামপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,মানিকখিলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,মাড়ালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,জামলাবাজ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,জামালগড় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয,রতনশ্রী পূর্বপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,বড়খলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,বালিজুরী,দুমাল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,ধর্মপাশা উপজেলা আটাইশা মাছিমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,ঘাসি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,বিসসিম পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,বিশ্বাম্ভপুর উপজেলার মুক্তিখলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়,সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার নিয়ামতপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ে পানি প্রবেশ করায় ৩-দিন ধরে পাঠ বন্ধ রয়েছে জানান স্থানীয় এলাকাবাসী। বড়খলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মঞ্জু তালুকদার জানান,আমার বিদ্যালয়ের আজ পানি খুব বেশি প্রবেশ করায় বন্ধ করে চলে আসছি। উপজেলা অন্যান্য স্কুল গুলোর আবস্থা খারাপের দিকে যাবে পানি আরো বাড়লে। তাহিরপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম জাহান রাব্বি জানান,উপজেলার ১২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বন্যার পানিতে ডুবেছে হাওরাঞ্চলের বাকি স্কুল গুলোর অবস্থা খুবেই খারাপ। আমরা আমাদের উবর্ধতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছি তাদের সাথে কথা বলে স্কুল বন্ধের বিষয়ে প্রয়োজনী নিদ্ধান্ত নেব। তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান কমরুল জানান,উপজেলায় পাহাড়ী ঢল ও বৃষ্টির পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় অনেক বিদ্যালয়ে পানি প্রবেশ করেছে ও বন্ধী রয়েছে। যার জন্য শিশু শিক্ষার্থী ও মাধ্যমিক,উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে তাদের পিতা মাতা ভয়ে পাঠাচ্ছে না। তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ খালেদুর রহমান জানান,বন্যার পানি বৃদ্ধির কারনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্টানে পানি প্রবেশ করছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কে জানানো হয়েছে। নিরাপত্তার স্বার্থে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24