রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৩১ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
ভারতীয় মুসলিমদের পাশে থাকার আহবান ভারত থেকে ৯ পণ্য আমদানিতে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার বাংলাদেশের সমাজ মেরামতের দায়িত্ব আলেমদের জগন্নাথপুরে ব্রিটিশ বাংলা এডুকেশন ট্রাস্টের রিসোর্স সেন্টারের কাজ পরিদর্শনে ট্রাস্টের প্রতিনিধিদল জগন্নাথপুরে একদিনে ১১ জন ডাক্তারের যোগদান জগন্নাথপুরে বেড়িবাঁধের ৩০ প্রকল্প অনুমোদন কাল কাজ শুরু হতে পারে শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবসে জগন্নাথপুরে প্রশাসনের উদ্যোগে শ্রদ্ধা নিবেদন ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে আ.লীগের উদ‌্যোগে শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবসে আলোচনাসভা ও শ্রদ্ধা নিবেদন দিরাইয়ে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন মুসলিমবিদ্বেষী আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ

পীরমহল্লায় স্ত্রীকে খুন করে দুই শিশু সন্তান নিয়ে পালিয়েছে স্বামী

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১১ জুলাই, ২০১৬
  • ২৪ Time View

সিলেট প্রতিনিধি:সিলেট নগরীর পীর মহল্লায় একটি ভাড়া বাসা থেকে আয়েশা খানম (২৬) নামের এক মহিলার গলিত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রবিবার বিকেলে পীর মহল্লার সুনু মিয়ার কলোনির ১৮২ নং ভাড়া বাসা থেকে এই গলিত লাশটি উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর পরই ১ বছর ও ৩ বছর বয়সী দুই কন্যা সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে গেছে আয়েশার স্বামী কয়েছ আহমদ (৩৫)। কয়েছ বিয়ানীবাজারের গোবিন্দশ্রী গ্রামের মৃত ফরিদ উদ্দিনের পুত্র।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রায় এক সপ্তাহ আগে আয়েশা খানমের মৃত্যু হয়েছে। আয়েশার বাবা সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা আব্দুস শুকুর ও স্ত্রী সালমা বেগম একই এলাকয় ১৬৬ নং বাসায় ভাড়া থাকেন।
সালমা বেগম জানান, তার মেয়েকে তার স্বামী যৌতুকের জন্য প্রায়ই নির্যাতন করত। ঈদের ৩দিন পূর্বে মেয়ের সাথে সর্বশেষ দেখা হয়েছিল। সে সময় কয়েছ আহমদ তাদের কাছে ব্যবসার জন্য ৪ লাখ টাকা চেয়েছিল এবং দুই মেয়ে ও নিজেদের জন্য ঈদের বাজারের জন্য টাকা চেয়েছিল। তবে সে সময় টাকা না থাকায় তাদের দিতে পারেননি। সে দিনের মত তাদের বুঝিয়ে বাসায় পাঠিয়েছিলেন আয়েশার বাবা আব্দুস শুকুর ও মা সালমা বেগম।
আব্দুস শুকুর জানান, ঈদের একদিন আগে মেয়ের খোঁজ নিতে এসে দেখেছিলেন বাইরে থেকে বাসাটি তালাবদ্ধ করে রাখা। তিনি মনে করেছিলেন মেয়েকে নিয়ে কোথাও বেড়াতে গেছেন স্বামী।
এদিকে, রবিবার দুপুরে আয়েশা বেগমের ভাড়া বাসায় পচা গন্ধ পেয়ে পুলিশ ও আয়েশার বাবা আব্দুস শুকুর এবং পরিবারের লোকজনদের খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে তালা ভেঙে আয়েশার গলিত লাশ দেখতে পায়।
সিলেট এয়ারপোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গৌছুল হোসেন জানান, লাশ দেখে মনে করা হচ্ছে প্রায় এক সপ্তাহ আগে তাকে হত্যা করা হয়েছে। লাশের বেশীর ভাগ অংশ পচে গেছে। স্বামী কয়েছে তার দুই কন্যা শিশুকে নিয়ে পালিয়েছে। স্বামীকে গ্রেফতার করলে এ হত্যার আসল রহস্য উদঘাটন হবে বলে জানান ওসি। পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24