শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুর আর্ট স্কুলের অধ্যক্ষ প্রণব বণিক আর নেই হাওরের দুনীতির বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবে হাওর বাঁচাও আন্দোলন কমিটি যুক্তরাজ্য বিএনপি থেকে সাবেক ছাত্র নেতা এম এ কাদিরের পদত্যাগ জগন্নাথপুরে শনিবার সকাল ৮টা থোক বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ থাকবে বিদেশে থেকেও তিনি ‘হত্যা’ মামলার দুই নম্বর আসামী! সন্মেলনকে সামনে রেখে কলকলিয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের সভা অনুষ্ঠিত ঈদে মিলাদুন্নবী (সাঃ) উপলক্ষে জগন্নাথপুরে মোবারক র‌্যালি জগন্নাথপুর পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটি গঠন তাহিরপুরকে হারিয়ে বিজয়ী জগন্নাথপুর,ম‌্যাচ সেরা অলি বাস-মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৭

ফলের কার্টনে সাপের বিষ !গ্রেফতার-৫

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৮ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৫০ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটপকম ডেস্ক :: আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের চোখ ফাঁকি দিতে ফলের কার্টনে করে সাপের বিষ বিক্রির সময় একটি চক্রকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিবি উত্তর)। সোমবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে রাজধানীর কুড়িল বাসস্ট্যান্ডে সাপের বিষ কেনা-বেচার সময় পাঁচজনকে গ্রেফতার করে ডিবি।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আবু হানিফ (চেয়ারম্যান), আফছার আলী, নজরুল ইসলাম, মুক্তার হোসেন ও রহিচ উদ্দিন। তাদের কাছে থেকে উদ্ধার হওয়া কার্টন থেকে ছয়টি কাঁচের কৌটায় ১২ পাউন্ড বিষ আছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। তবে বিষ আসল না নকল তা নিশ্চিত হতে পারেনি তারা। পরীক্ষার জন্য বিষ ল্যাবে পাঠানো হবে।
মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবি যুগ্ম কমিশনার আব্দুল বাতেন এই তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘সাপের বিষ নিয়ে প্রতারণা হচ্ছে। আমরা যে চক্রটিকে গ্রেফতার করেছি, তারা নিজেরাই ক্রেতা, নিজেরাই বিক্রেতা সাজে। কেবল মধ্যবর্তী একজন লোককে খুঁজে বের করে তারা। সেই লোক এই চক্রের তৎপরতা দেখে লাভবান হওয়ার জন্য কেনার আগ্রহ দেখায়। তখন তার কাছে বিক্রি করে দেয়। তবে এই বিষ আসল না নকল তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। চক্রটি দাবি করেছে, উদ্ধারকৃত ছয়টি কাঁচের কৌটায় ১২ পাউন্ড বিষ আছে, যার বাজার মূল্য নাকি ৫০ কোটি টাকা। তবে আসল বিষের মূল্য এতো হওয়ার কথা না। বিষ আসল কিনা তা পরীক্ষার জন্য আমরা ল্যাবে পাঠাবো।’

লাল একটি বড় কাগজের কার্টনের ভেতরে ছোট ছোট আলাদা কার্টনে কাঁচের কৌটা। বড় কার্টনটির গায়ে ইংরেজি অক্ষরে লেখা, ‘fresh fruit, Premimum quality apple. Apple produce of china’. এই বড় কার্টনের ভেতরেই আকাশি রংয়ের পৃথক ছোট কার্টনে সাজানো রয়েছে কাঁচের কৌটা। ছোট ছোট এই কার্টনের গায়ে সাপের ছবি দিয়ে ইংরেজি অক্ষরে লেখা আছে, ‘COBRA’ Red Dragon Company, Made in France. অপর পাশে বড় অক্ষলে লেখা, ‘COBRA, Snake Poson.’ অপর পাশে লেখা, কোড নম্বর, মেয়াদ, নিশ্চয়তা ও কৌটার ভেতরে থাকা সাপের বিষের পরিমাণ লেখা রয়েছে। প্রতিটি কাঁচের কৌটাতেই আলাদা আলাদ কোড রয়েছে। ছয়টি কৌটার ভেতরে দুটাতে তরল এবং চারটিতে পাউডার আকারে বিষ রয়েছে। কাঁচের কৌটায় ইংরেজিতে লেখা রয়েছে, Snake Poison of France, CAREFULLY HANDLING.’

আব্দুল বাতেন বলেন, ‘গ্রেফতারকৃতরা দাবি করেছে, তারা বিদেশ থেকে এই বিষ নিয়ে আসে। দেশের ওষুধ কোম্পানিগুলোতে সাপের বিষের চাহিদা রয়েছে। তবে কোম্পানিগুলো বৈধভাবে বিষ আমদানি করে। কোনও কোম্পানি যদি তাদের কাছ থেকে বিষ কেনার কথাও বলে তাও অবৈধ। তবে আমরা এখনও এমন কিছু পাইনি।’
তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে ১০ গ্রাম আসল বিষের দাম তিন থেকে চার হাজার টাকা। আমরা যাচাই বাছাই করছি, আসল না নকল। তাদের কাছ থেকে একটি প্রাইকার উদ্ধার করা হয়েছে। যার নম্বর ঢাক মেটো গ-২১-১৭১০।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24