রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৮:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে নৌপথে বেপরোয়া ‘চাঁদাবাজি’,চাঁদা না দিলে শ্রমিকদের মারধর করে লুটে নেয় মালামাল মিরপুরের সেই প্রার্থী আপিলে ফিরলেন নির্বাচনী লড়াইয়ে মিরপুর ইউপি নির্বাচনে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করলেন দুইজন, কাল প্রতিক বরাদ্দ পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের নামাজ শেখানো হয় যে বিদ্যালয়ে পানির নিচে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিতে গিয়ে মৃত্যু! সিলেটে চারদিনের রিমান্ডে পিযুষ যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ২ জগন্নাথপুরে ৩৯টি মন্ডপে দুর্গাপূজার প্রস্তুতি,চলছে প্রতিমা তৈরীর কাজ জগন্নাথপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির বিরুদ্ধে অপপ্রচারে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে ৬ মাসেও বকেয়া টাকা মিলেনি, ঋণের চাপে দিশেহারা পিআইসিরা

ফোন নাম্বার ক্লোনে ওসমানীনগরের ইউএনও পরিচয়ে জনপ্রতিনিধিদের কাছে চাঁদা দাবি

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১৬ জুলাই, ২০১৭
  • ৯৮ Time View

ওসমানীনগর প্রতিনিধি
সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. মনিরুজ্জামানের সরকারি ও ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার থেকে জনপ্রতিনিধিদের নিকট টাকা দাবি করা হয়েছে। চাঁদা দাবিকারী নিজেকে ইউএনও হিসেবেও পরিচয় দেয়।

তবে ইউএনওর’র দাবি তার মোবাইল ফোন নাম্বার ক্লোন করে এটি করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পুলিশ প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছন।

রোববার দুপুরে মোবাইল নাম্বার ক্লোনের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন ইউএনও।

এদিকে, ইউএনও তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দিয়ে ওসমানীনগর বাসীকে তাঁর ক্লোন হওয়া নম্বর থেকে টাকা পয়সা চাইলে না দিতে অনুরোধ জানিয়ে সতর্ক করেন।

জানা যায়, রোববার দুপুরে ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের ওসমানীনগর ০১৭৩০৩৩১০২৯/ ০১৭১২৬১৮৯১২ মোবাইল ফোন নম্বর ক্লোনিং করে উপজেলার উছমানপুর ইউপি চেয়ারম্যান মঈনুল ফারুককে ফোন করে ইউএনও পরিচয় দিয়ে টিআর কাবিখা বরাদ্দের জন্য বিকাশের মাধ্যমে টাকা পাঠাতে বলে। এসময় চেয়ারম্যান ফারুক কলদাতাকে বিভিন্ন প্রশ্ন করলে ফোনের লাইন কেটে দেয়।

উছমানপুর ইউপি চেয়ারম্যান মঈনুল আজাদ ফারুক বলেন, ইউএনও’র নম্বর থেকে একজন আমাকে কল করে বলে আমি ওসমানীনগরের ইউএনও বলছি আমি আরেকটি নাম্বার থেকে কল দিচ্ছি ফোনটি রিসিভ করেন। অপরিচিত ০১৮৪৯৪৫৪০২৮ এই নাম্বার থেকে কল করে টিআর কাবিখা বরাদ্দের নামে টাকা দিতে দাবি করে ওই কলদাতা।

ওসমানীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনিরুজ্জামান বলেন, এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে ওসমানীনগর থানার ওসি মোহাম্মদ সহিদ উল্যাকে নির্দেশ দিয়েছি।

এ ব্যাপারে ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সহিদ উল্যা বলেন, ইউএনও মৌখিকভাবে বিষয়টি আমাকে জানিয়েছেন। কিন্তু লিখিত কোনো অভিযোগ পাইনি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24