শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
মুসলিমবিদ্বেষী আইনের বিরুদ্ধে ভারতজুড়ে বিক্ষোভ আমি স্বাধীনতা বিরুধী পরিবারের সন্তান নই- চেয়ারম্যান আব্দুল হাশিম জগন্নাথপুরে বাংলা মিরর সম্পাদক আব্দুল করিম গনি সংবর্ধিত জগন্নাথপুরে তিনদিন ব্যাপি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ব্রিটেনের নির্বাচনে আফসানার বড় জয়ে জগন্নাথপুরে উৎসবের আমেজ ব্রিটিশ পালার্মেন্টে ঝড় তুলবে বিজয়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারী এমপি ব্রিটেনের নির্বাচনে একটি আসনে বিশাল জয় পেয়েছেন জগন্নাথপুরের আফসানা বেগম অপরাধীদের প্রতি মহানবীর আচরণ যেমন ছিল সুদখোরদের ধরতে জেলা ও উপজেলায় মাঠে নামছে প্রশাসন জগন্নাথপুরে হাওরের জরিপ কাজ শেষ, কাজের তুলনায় বরাদ্দ কম, প্রকল্প কমিটি হয়নি একটিও

বাংলাদেশকে গোনাতেই ধরলেন না -শেবাগ

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১২ জুন, ২০১৭
  • ৬১ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: চ্যাম্পিয়নস ট্রফির দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ভারত-বাংলাদেশের মুখোমুখি হওয়াটা মোটামুটি নিশ্চিতই। কিন্তু ১৫ জুন এজবাস্টনের সেই ম্যাচের আগেই ভারতের ফাইনাল খেলাটাও ‘নিশ্চিত’ই মনে হচ্ছে বীরেন্দর শেবাগের কাছে। এক টুইটার বার্তায় শেবাগ ভারতীয় দলকে ‘ফাইনালের জন্য’ আগাম শুভ কামনাও জানিয়ে রেখেছেন।
গ্রুপ ‘বি’তে ‘কোয়ার্টার ফাইনালে’ রূপ নেওয়া ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে প্রোটিয়াদের হারিয়ে হেসে খেলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে বিরাট কোহলির দল। দাপুটে এই জয়ের পর ‘টুইটার রাজা’ শেবাগের টুইট, ‘দারুণ এক জয় ভারতের। দুর্দান্ত পারফরম্যান্স। সেমিফাইনাল ও ফাইনালের জন্য শুভকামনা।’
সেমিফাইনালের জন্য নিজের দেশের প্রতি শুভকামনা থাকতেই পারে শেবাগের। এটা নিয়ে কোনো কথা নেই। তাই বলে ফাইনালের জন্যও। তবে কি প্রতিপক্ষ হিসাবে বাংলাদেশকে ধর্তব্যের মধ্যেই নিতে চাচ্ছেন না ভারতের সাবেক এই ব্যাটসম্যান।
ব্যাপারটা তা-ই। বাংলাদেশকে তিনি পাত্তাই দিচ্ছেন না। হয়তো ২০১৫ বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল কিংবা গত বছরের এশিয়া কাপের ফাইনালের কথা মনে করেই ভারতের জয় নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই তাঁর মনে। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির আগে ভারতের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে বাংলাদেশের ৮৪ রানে অলআউট হওয়াও হয়তো ছিল তাঁর মাথায়।
এমন কিছু যদি শেবাগের মাথায় থাকে, তাহলে শেবাগ হয়তো ভুলে গেছেন গত শুক্রবারেরই কথা। ৩৩ রানে ৪ উইকেট পড়ে যাওয়ার পরেও মাহমুদউল্লাহ ও সাকিব আল হাসানের ২২৪ রানের জুটির বীরত্বে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েই কিন্তু সেমির পথে পা বাড়িয়েছে বাংলাদেশ। তিনি হয়তো ভুলে গেছেন ২০০৭ বিশ্বকাপ কিংবা ২০১২ এশিয়া কাপের কথা। সেই দুই আসরেই বাংলাদেশের কাছে হেরেই বিদায়-ঘণ্টা বেজে গিয়েছিল শক্তিশালী ভারতের।
২০১৫ বিশ্বকাপের পরপরই বাংলাদেশ-ভারত ক্রিকেট লড়াই অন্য মাত্রা পেয়েছে। দুই দলের প্রতিদ্বন্দ্বিতার বাইরে সমর্থকদের আচরণ অনেক সময় ছাড়িয়ে যাচ্ছে ভব্যতার মাত্রা। সেমিফাইনালের আগেই বাংলাদেশকে পাত্তা না দিয়ে টুইট করে তেমন কিছুই কি উৎসাহিত করছেন শেবাগ?

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24