রবিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৯, ১০:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নুর তাপস ব্যারিষ্টার এনামুল কবির ইমনের জন্মদিন পালন করল জগন্নাথপুরের আ.লীগ জগন্নাথপুরে মাছ ধরা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত-১০ জগন্নাথপুরে সিএনজি চালক হত‌্যাকাণ্ড, আটক-১ জগন্নাথপুরে নিসচার স্কুল পর্যায়ে সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন ভোলায় পুলিশ-জনতা সংঘর্ষ, নিহত ৪, শতাধিক আহত জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা ছাত্র সাব্বিরের হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল জগন্নাথপুরে পৃথক দুই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি সাংবাদিকতার উজ্জ্বল পরিম-লে কামকামুর রাজ্জাক রুনু এক স্বপ্নচারী পুরুষ শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে আ.লীগের আলোচনাসভা

বাল্য বিবাহের কারণে ৮৬ ভাগ মেয়ে ঝরে পড়ছে শিক্ষাজীবন থেকে

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ১ মে, ২০১৬
  • ৬৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার::
শুধু বাল্যবিয়ের কারণে শতকরা ৮৬ ভাগ মেয়ে শিক্ষাজীবন থেকে ঝরে পড়ছে। বাল্যবিয়ের ফলে অল্প বয়সেই মেয়েরা বিপজ্জনকভাবে গর্ভধারণে বাধ্য হয়। দেশে প্রতিবছর প্রায় পাঁচ লাখ ৬৯ হাজার কিশোরী মা সন্তান প্রসব করে থাকে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে বাল্যবিয়ে ঠেকাতে কোনো ধরনের শর্ত যুক্ত না করেই মেয়েদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮ এর ওপরে রাখার বিষয়ে জোর দিয়েছেন সংসদ সদস্যরা। তাঁরা এ বিষয়ে আইনের কঠোর প্রয়োগ দাবি করেছেন।

আজ শনিবার জাতীয় সংসদের মিডিয়া সেন্টারে অনুষ্ঠিত পরামর্শ সভায় সংসদ সদস্যরা এ দাবি জানান। জনসচেতনতা তৈরিতে সংসদ সদস্যদের নিয়ে মাতৃস্বাস্থ্য উন্নয়ন ও মাতৃমৃত্যু প্রতিরোধ, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ এবং যুব উন্নয়ন বিষয়ে জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিলের অর্থায়নে সংসদ সচিবালয় বাস্তবায়নাধীন ‘স্ট্রেনদেনিং পার্লামেন্ট’স ক্যাপাসিটি ইন ইন্টিগ্রেটেড পপুলেশন ইস্যু ইন টু ডেভেলপমেন্ট (এসপিসিপিডি)’ শীর্ষক প্রকল্পের উদ্যোগে এ সভার আয়োজন করা হয়। চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন হাবিবে মিল্লাত, অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি রেবেকা মমিন, হুইপ মো. শাহাব উদ্দিন, উম্মে কুলসুম স্মৃতি, অতিরিক্ত সচিব গোলাম কিবরিয়া ‌এবং এসপিসিপিডির প্রকল্প পরিচালক মো. কামাল বিল্লাহ।

উল্লেখ্য, মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ বছর থেকে কমানোর বিষয়ে সরকার পরিকল্পনা করলে বিভিন্ন মহল থেকে তা নিয়ে আপত্তি ওঠে। এরপর মেয়েদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স ১৮ বছর রেখেই ‘বিশেষ পরিস্থিতি’র ক্ষেত্রে তা ১৬ বছর করার প্রস্তাব সম্বলিত আইনের একটি খসড়া করা হয়েছে। বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন- ২০১৪ নামে ওই আইনের খসড়া এখন ভেটিংয়ের জন্য আইন মন্ত্রণালয়ে রয়েছে।

এ বিষয়ে এক সচিত্র প্রতিবেদন উপস্থাপনের সময় সংসদ সদস্য হাবিবে মিল্লাত বলেন, “১৮ বছরের নিচে কোনো মেয়ের বিয়ে দেওয়া যাবে না। খুব শিগগির এ সংক্রান্ত আইন সংসদে আসবে। সেখানে কোনো ‘কিন্তু’ বা ‘শর্ত’ যোগ করা যাবে না।” তিনি বলেন, “বাল্যবিয়ের সঙ্গে শিক্ষা ও মাতৃস্বাস্থ্যও সম্পর্কিত। যেসব এলাকায় বাল্যবিয়ের হার বেশি সেখানে শিক্ষার হার কম। অল্পবয়সী মেয়েরা বিয়ের পরই গর্ভধারণের কারণে তাদের স্বাস্থ্যও ঝুঁকিতে থাকে। দেশে মাতৃমৃত্যুর হার কমে এলেও তা এখনও সন্তোষজনক পর্যায়ে নয়। তাই সার্বিক উন্নয়নের জন্য বাল্যবিয়ে ঠেকাতে কঠোর আইন প্রণয়ন ও প্রয়োগ করতে হবে। ১৮ বছর বয়সের নিচে বিয়ে কোনো অবস্থাতেই দেওয়া যাবে না।

একই মত প্রকাশ করে সংসদ সদস্য সানজিদা খানম বলেন, “আইনের মাধ্যমে নারীদের বিয়ের বয়স ১৮ বছর করার ক্ষেত্রে আরো কঠোর হতে হবে। আন্তর্জাতিক বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের এ অবস্থান স্পষ্ট করতে হবে। এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে জোরালো ভূমিকা রাখার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানের সভাপতি সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ বলেন, “গণমাধ্যমে বাল্যবিয়ে সম্পর্কিত আইনের কঠোর দিকগুলো ফলাও করে প্রচার করলে জনসচেতনতা বাড়বে। গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব এলাকায় গণমাধ্যমের প্রচার কম সেসব এলাকায় বাল্যবিয়ের প্রবণতা বেশি। গণমাধ্যম এসব বিষয়ে আরো শক্তিশালী অবস্থান নিলে বাল্যবিয়ে রোধে সফলতা পাওয়া যাবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24