মঙ্গলবার, ২০ অগাস্ট ২০১৯, ০২:৩১ পূর্বাহ্ন

ব্রাকেট থেকে পাবলিক লাইব্রেরি বাদ, পাঠাগারের প্রবেশপথে জ্যোতির ভাস্কর্য নির্মাণের সিদ্ধান্ত

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী, ২০১৮
  • ৩২ Time View

স্টাফ রিপোর্টার::
বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতির নামে সুনামগঞ্জ শহরের প্রাণকেকেন্দ্র ডিএস রোডে অবস্থিত ‘শহীদ জগৎজ্যোতি পাঠাগার’ কেবল এ নামেই এখন থেকে পরিচিত পাবে এই পাঠাগারটি। ব্র্যাকেটে ‘পাবলিক লাইব্রেরি’ বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত সাধারণসভায়। একই সভায় পাঠাগারের সম্মুখে শহীদ জগৎজ্যোতির ভাস্কর্য নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন জেলা পরিষদ প্রশাসক নূরুল হুদা মুকুট। এই খবরে উৎফুল্ল জেলার প্রগতিশীল রাজনীতি ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের লোকজন।
জানা গেছে আশির দশকে স্বাধীনতাবিরোধী একটি চক্র শহীদ জগৎজ্যোতির নাম বাদ দিয়ে পাঠাগারটি ‘পাবলিক লাইব্রেরি’ নামে নামকরণ করে। নব্বই দশকে জেলা প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক সংগঠনের লোকজন ফের জগৎজ্যোতি পাঠাগার নামে পাঠাগারের আনুষ্ঠানিক নামকরণ করেন। কিন্তু এরপরও পাঠাগারটির নামের সঙ্গে কৌশলে ওই চক্র ব্রাকেটে ‘পাবলিক লাইব্রেরি’ কথাটি যুক্ত রাখে। এ নিয়ে বিভিন্ন সভায় ও লেখায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন জেলার বিভিন্ন প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলের কর্মী ও প্রগতিশীল সংগঠনের সংস্কৃতিকর্মীরা।

গত বছর সাধারণসভায় এক বক্তব্যে পাঠাগারের আজীবন সদস্য সাংবাদিক শামস শামীম পাঠাগারের ব্রাকেটে ‘পাবলিক লাইব্রেরি’ বাদ এবং পাঠাগারের প্রবেশপথে শহীদ জগৎজ্যোতির ভাস্কর্য নির্মাণের দাবি জানান। ৩১জানুয়ারি মঙ্গলবার রাতের সাধারণসভায়ও একাধিক সদস্য একই দাবি জানান।
এই দাবির প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসক ও সভাপতি শেখ রফিকুল ইসলাম এখন থেকে ‘পাবলিক লাইব্রেরি’ কথাটি বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান। এর আগে বক্তব্যে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নূরুল হুদা মুকুট জেলা পরিষদের অর্থায়নে শহীদ জগৎজ্যোতির ভাস্কর্য নির্মাণের ঘোষণা দেন। এসময় উপস্থিত সদস্যবৃন্দ এই ঘোষণা প্রদানের জন্য নূরুল হুদা মুকুটকে অভিনন্দন জানান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24