শুক্রবার, ১৫ নভেম্বর ২০১৯, ০৯:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সাম্রাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল জগন্নাথপুরে এখনও সম্পন্ন হয়নি আ.লীগের ওয়ার্ড ভিত্তিত্ব কমিটি প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা শুরু ১৭ নভেম্বর জগন্নাথপুরে সংবাদ প্রকাশের পর অবশেষে সুযোগ পেল ১৭ পরীক্ষার্থী বন্ধ হলো ফেসবুকের সাড়ে পাঁচ’শ কোটি ভুয়া অ্যাকাউন্ট রংপুর এক্সপ্রেসে আগুন, চারটি বগি লাইনচ্যুত জেলা মহিলা আ.লীগ নেত্রী রফিকা চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে জগন্নাথপুরে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত

মৌলভীবাজারে প্রকাশ্যে স্ত্রীকে কোপালেন স্বামী

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮
  • ৫৩ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলায় দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে পৌর শহরের প্রধান সড়কে স্ত্রীকে উপর্যুপরিভাবে কোপালেন স্বামী।

আজ শনিবার দুপুর ২টার দিকে শহরের দক্ষিণবাজারে ডাক ঘরের সামনের সড়কে এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা যায়, আহত নারী হাকিমা বেগমের (২৯) পিতার বাড়ি উপজেলার কর্মধা ইউনিয়নের মুড়ইছড়া নতুন বস্তিতে। স্বামী উপজেলার জয়চণ্ডী ইউনিয়নের রঙ্গীরকুল গ্রামের মর্তূজা হোসেনর ছেলে শাহ আমানত হোসেন।

প্রত্যক্ষদর্শী, পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে হাকিমা বেগম পিতার বাড়ি যাওযার উদ্দেশে স্বামীর বাড়ি থেকে রওয়ানা দেন। এ সময় তার সাথে ছোট ভাই ও বোন ছিলেন। রঙ্গীরকুল থেকে সিএনজি অটোরিকশায় কুলাউড়া শহরের উত্তরবাজারে এসে নামেন। সেখান থেকে পায়ে হেটে শহরের দক্ষিণবাজারে বাস স্ট্যান্ডে রওয়ানা দেন। দক্ষিণবাজারে ডাকঘর অফিসের সামনের সড়কে পৌঁছানো মাত্র পিছন থেকে দা হাতে তেড়ে আসেন তার স্বামী আমানত। কোনকিছু বোঝে ওঠার আগেই এলোপাথাড়ি কোপাতে থাকেন হাকিমাকে।

এ সময় পার্শ্ববর্তী সিএনজি অটোরিকশা স্ট্যান্ডের চালক ও স্থানীয়রা এসে আমানতকে ধরে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। ঘটনাস্থলেই দায়ের কোপে হাকিমার দুই হাতের চারটি আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। আহতাবস্থায় হাকিমাকে কুলাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসকরা তার অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় দ্রুত সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. জাকির হোসেন বলেন, হাকিমা বেগমের মাথায় দায়ের চারটি কোপ রয়েছে। এছাড়াও হাতের আঙ্গুল বিচ্ছিন্ন ও হাতের কব্জিতে দায়ের কোপ রয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছে।

কুলাউড়া থানার এসআই মো. খালেদ হোসেন বলেন, আটককৃত আমানত তার স্ত্রীকে কী কারণে কুপিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। বিষয়টি পরবর্তীতে আমানতকে জিজ্ঞাসাবাদ ও তদন্তক্রমে জানা যাবে।

কুলাউড়া থানার ওসি তদন্ত সঞ্জয় চক্রবর্তী বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, হাকিমার স্বামী আমানতকে আটক করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24