রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯, ০১:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে আশার আলো ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে তিন শতাধিক বন্যার্তদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ জগন্নাথপুরে বিপর্যস্ত যোগাযোগ ব্যবস্থা,১০ কোটি টাকার ক্ষতি, লাখো মানুষের দুর্ভোগ জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎ স্পর্শে শিশুর মৃত্যু সুনামগঞ্জের নিরপরাধ ব্যক্তিদের মিথ্যা মামলায় জড়ানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন যে পরিচয়ে হোয়াইট হাউসে যান প্রিয়া সাহা দুদকের তদন্তের অধিকাংশই চুনোপুঁটির বিরুদ্ধে : ইকবাল মাহমুদ প্রিয়া সাহার বক্তব্যকে ‘দেশদ্রোহী’ বললেন কাদের প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করবেন ব্যারিস্টার সুমন দোয়ারাবাজারে ইউএনওকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি ভারতের বিহারে এবার গোরক্ষকরা হত্যা করল ৩ জনকে

যুবলীগ-ছাত্রলীগের বিরোধে উত্তপ্ত, ১৪৪ ধারা জারি

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
  • Update Time : বুধবার, ২৬ জুন, ২০১৯
  • ৭৯ Time View

ছাত্রলীগ-যুবলীগ বিরোধে উত্তপ্ত দেবহাটা, ১৪৪ ধারা জারি

ছাত্রলীগ ও যুবলীগের দুই গ্রপের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলা। হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে বুধবার সকাল থেকে উপজেলাব্যাপী ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইকবাল হোসেন জানান, উপজেলাব্যাপী সকল সভা-সমাবেশ, আগ্নেয়াস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা আরোপসহ ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

পাশাপাশি উপজেলাব্যাপী দুই গ্রæপের নেতাকর্মীদের মাঝে বিরাজমান উত্তেজনাকর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণসহ জননিরাপত্তা নিশ্চিতে সখিপুর মোড়, সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজ মোড়, পারুলিয়া শহীদ আবু রায়হান চত্বরসহ বিভিন্ন পয়েন্টে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। বর্তমানে উপজেলা জুড়ে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, ছাত্রলীগ ও যুবলীগের মধ্যে বিরোধের জেরে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন করা হয়েছে। বর্তমানে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

উল্লেখ্য, অভ্যন্তরীণ বিরোধকে কেন্দ্র করে মঙ্গলবার সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজ, সখিপুর মোড় ও পারুলিয়াতে একাধিকবার হামলা-পাল্টা হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এতে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সুমনের বাবা শামছুর রহমান খোকন, সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মো. ফয়জুল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক আসিফ, ছাত্রলীগ নেতা রনি আহমেদসহ দুই গ্রæপের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হন।

তবে, দেবহাটা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিনুর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কথা বলেননি।

অপরদিকে, দেবহাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সুমনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও ফোন রিসিভ করেন সজীব নামের এক ব্যক্তি। তিনি বলেন, সভাপতি ব্যস্ত আছেন, পরে যোগাযোগ করেন।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল ইসলাম রেজা বলেন, ছাত্রলীগের সঙ্গে যুবলীগ সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্নুর মধ্যে বিরোধকে কেন্দ্র করে দেবহাটায় উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। আমরা বিষয়টি মিমাংসার চেষ্টা করছি।

সুত্র-ইনকিলাব

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24