শুক্রবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:২২ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে ২২তম ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সম্পন্ন জগন্নাথপুরে সেই সড়কে ২৩ কোটি টাকার টেন্ডার সম্পন্ন, নতুন বছরের শুরুতেই কাজ শুরু হতে পারে জগন্নাথপুরে ১৫ দিন পর অবশেষে ধান কেনা শুরু জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দুর্বৃত্তরা হত্যা করল স্টুডিও’র মালিক আনন্দকে সিলেট জেলা আ’লীগের নেতৃত্বে লুৎফুর-নাসির, মহানগরে মাসুক-জাকির প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রতিটি উপজেলায় সহায়তা কেন্দ্র: প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরশহরে স্টুডিও দোকানদারের মরদেহ পাওয়া গেছে হিন্দুরাষ্ট্রের পথে ভারত: সংসদে বিজেপি নেতা জামিন শুনানি পেছালো, এজলাসে হট্টগোল, আইনজীবীদের অবস্থান মানবজাতির প্রতি কোরআনের অমূল্য উপদেশ

লবনের গুজব জগন্নাথপুরের সর্বত্রজুড়ে,ক্রেতা সামলাতে না পেরে দোকান বন্ধ, চলছে মাইকিং

বিশেষ প্রতিনিধি::
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৭৭২ Time View

লবনের দাম বেড়েছে এমন গুজবে সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুরের সর্বত্রজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে।

আজ সোমবার সন্ধ্যার পর পরই জনসাধারণকে লবনের দাম বেড়েছে এমন গুজবে আগেই বাগেই কিনতে দোকানগুলোতে উপচে পড়েন ক্রেতারা। রাত সাড়ে ১০টার দিকে জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের জগন্নাথপুর বাজারে অধিকাংশ দোকানেই লবণের সংকট দেখা দিয়েছে। এদিকে জগন্নাথপুরের প্রত্যন্ত অঞ্চলের বাজারগুলোতে লবনের কেনার হিরিক পড়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

জনসচেতনতার জন্য রাত ১১টার দিকে গুজবে কান না দিতে জগন্নাথপুর থানা পুলিশের উদ্যোগে মাইকিং করা হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যার পর পরই চারদিকেই ছড়িয়ে পড়ে পেঁয়াজের পর লবনের দাম বেড়ে গেছে। এমন খবর কোথা শুনছেন, জানতে চাইতে জনসাধারণ জানান, সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে লবন বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে বলে শুনা যাচ্ছে। তাই পেঁয়াজের দামের মতো লবন বেশি দামে কিনার আগেই অনেকই ৫ থেকে ১০ থেকে করে লবন কিনে নিচ্ছেন বাড়িতে।  চারদিকে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়লেও স্থানীয় প্রশাসনের কাউকে মাঠে দেখা যায়নি।
এদিকে অনেক দোকানি ক্রেতার ঢল সামলাতে হিমশিম পোহাতে হয়। কেউ কেউ দোকান বন্ধ করে দিয়েছেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্চুক এক ব্যক্তি জানান, হঠাৎ করে শুনি লবনের দাম বেড়ে গেছে। তাই বেশি দামের কেনার ভয়ে এক সঙ্গে ১০ কেজি লবন কিনেছি। তবে ন্যায় দামেই কিনেছি। বাড়তি দাম রাখা হয়নি।

জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের জগন্নাথপুর বাজারের লবন ব্যবসায়ী সুধন্য পাল জানান, সন্ধ্যার পর থেকেই লবনের কেনার জন্য লোকজন দোকানে ভীর করেন। কেউ বলছেন আমাকে ১ কেজি লবন দাও, আবার আরেকজন বলেন আমাকে ২০ কেজি লবন দাও। সময়ের সঙ্গে ক্রেতার ভীর বাড়তে থাকে। লোকজনের সামলামে কষ্টকর হয়ে উঠে। এক পযার্য়ে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে দোকান বন্ধ করে দিয়েছি। তিনি জানান, লবনের দর বাড়েনি। অন্যদের মতো ৩০ টাকা করে প্রতিকেজি লবণ বিক্রি করছি।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহফুজুল আলম মাসুম বলেন, লবনের দাম বাড়েনি। এটি নিছক গুজব। তিনি জানান, কাল মঙ্গলবার প্রশাসন মাঠে নামবে।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী জানান,

জনসচেতনতার জন্য এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে। গুজব ছড়ানোদের বিরুদ্ধে তদন্তক্রমে প্রমান পাওয়া গেলে আইনানুত ব্যবস্থা নেব আমরা।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24