মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ০২:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
রাধারমন দত্ত এ দেশের লোক সংস্কৃতির ভান্ডার কে সমৃদ্ধ করেছেন: জেলা প্রশাসক ‘আওয়ামী লীগে দুঃসময়ের কর্মী চাই, বসন্তের কোকিল না’ জগন্নাথপুরে মূল্য তালিকা না থাকায় ভ্রাম‌্যমান আদাতের অভিযানে জরিমানা আদায় ঈদে মীলাদুন্নবী (সা:) উপলক্ষে জগন্নাথপুরে র‌্যালি ও আলোচনাসভা জগন্নাথপুরে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সুনামগঞ্জে নৌকাডুবিতে প্রহরীর মৃত্যু দেখে নিন যে স্থানে জন্মগ্রহণ করেছিলেন মহানবী (সা.) বাবরি মসজিদ ধ্বংসকারী সেই বলবীর সিং এখন মুসলিম! রাধারমণের মৃত্যুবার্ষিকীতে ‘ক্লোজআপ ওয়ান’র সেরা প্রতিযোগি সালমা জগন্নাথপুর আসছেন সোমবার সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় সিলেটের নুরুল নিহত

শিশুদের মৌসুমি প্রতিযোগিতায় উপস্থিত বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন হবিগঞ্জ

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ১৪৭ Time View

কামরুল ইসলাম মাহি, সিলেট :: বাংলাদেশ শিশু একাডেমি কর্তৃক আয়োজিত শিশু-কিশোরদের মৌসুমি প্রতিযোগিতায় ‘উপস্থিত বিতর্ক’ বিষয়ে বিভাগীয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বিতার্কিকরা।

সোমবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত কবি নজরুল অডিটোরিয়ামে উপস্থিত বিতর্কসহ আরও তিনটি বিষয়ের উপর প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সিলেট বিভাগের চারটি জেলার বিভিন্ন স্কুলের বিতার্কিকরা অংশগ্রহণ করে।

চূড়ান্ত পর্বে বিতর্কের বিষয় ছিল ‘সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকই মানুষকে অসামাজিক করে তুলছে।’ বিষয়ের পক্ষে বিতর্ক করে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বিতার্কিকরা ও বিপক্ষে বিতর্ক করে মৌলভীবাজার জেলার দি ফ্লাওয়ার্স কেজি এন্ড হাই স্কুলের বিতার্কিকরা।

এই বিষয়ের উপর ৩০ মিনিট যুক্তি, তর্ক করে তথ্য, উপাত্ত দিয়ে বিশ্লেষণ করে বক্তব্য দিয়ে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বিতার্কিকরা জয়ী হয়।

হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের বিতার্কিকরা হলেন- প্রথম বক্তা ফাতিন ইশরাক, দ্বিতীয় বক্তা ইশতিয়াক রহমান ওয়াসী, তৃতীয় বক্তা প্রদীপ্ত রায় সরকার ও দলনেতা লুৎফুর রহমান তহবিলদার।

চূড়ান্ত বিতর্কে বিচারকের দায়িত্ব পালন করেন- এমসি কলেজের গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক গিয়াস উদ্দিন আহমদ, শিশু একাডেমির প্রাক্তন জেলা সংগঠক মাহবুবুজ্জামান চৌধুরী, জেলা শিল্পকলা একাডেমির আবৃত্তি প্রশিক্ষক জ্যোতি ভট্টাচার্য। বিতর্কে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করেন জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশগুপ্ত।

বিতর্ক শেষে প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকারের উপপরিচালক দেবজিৎ সিনহার কাছ থেকে পুরস্কার গ্রহণ করে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অধিকারী বিতার্কিকরা।

উল্লেখ্য, লেখাপড়া ও পরীক্ষার মাঝে যেন শিশুদের অবসর সময় নষ্ট না হয় সেই উদ্দেশ্যে শিশুদের পারস্পরিক সুসম্পর্ক গড়ে তোলা, হিংসা-বিদ্বেষ পরিহার, দলগত সমঝোতা বৃদ্ধি এবং শিশুদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশের লক্ষ্যে বাংলাদেশ শিশু একাডেমী ১৯৭৮ সাল থেকে শিশুদের মৌসুমি প্রতিযোগিতা আয়োজন করে আসছে। পাঁচটি বিষয়ে উপজেলা পর্যায় থেকে এ প্রতিযোগিতা শুরু হয়। যোগ্যতার ভিত্তিতে উপজেলা, জেলা, অঞ্চল পর্যায়ে প্রতিযোগিতা করে শিশুদের জাতীয় পর্যায়ে অংশগ্রহণের মাধ্যমে এই প্রতিযোগিতা শেষ হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24