রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৪:৩২ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নতুন ২ কাণ্ডারির পরিচিতি জনগণের মৌলিক অধিকার ও আইনের শাসনে গুরুত্ব দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী দ.সুনামগঞ্জে বিদেশী রিভলবারসহ গ্রেফতার ১ সাংবাদিক এ এস রায়হানের পিতার মৃত্যু, জানাজা সম্পন্ন পাটলী উইমেন্স কলেজ উন্নয়নে প্রবাসীদের ১২ লাখ টাকার অনুদান জগন্নাথপুরে শ্রমিক-ব্যবসায়ীদের দ্বন্দ্বের নিস্পত্তি, পরিবহন ধর্মঘট প্রত্যাহার বাংলাদেশে ঢুকে মসজিদ নির্মাণে বিএসএফ’র বাধা প্রদান জগন্নাথপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন জগন্নাথপুরে সালিশী ব্যক্তিত্ব নুরুল ইসলাম আর নেই সুনামগঞ্জে বিয়ের খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে ৮০ জন হাসপাতালে, ১ জনের মৃত্যু

সম্ভ্রম বাঁচাতে জীবন দেন সুনামগঞ্জের তাসলিমা

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ৮ মে, ২০১৯
  • ৩৮৬ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
ঘটনার তিন বছর পর বখাটের স্বীকারাক্তিতে আদালতসহ সংশ্লিষ্টরা জানলেন সম্ভ্রব রক্ষা করতে অটোরিক্সা থেকে লাফিয়ে পড়ে জীবন দিয়েছেন ২০ বছর বয়সি তাসলিমা। শাল্লার মার্কুলি গ্রামের আব্দুল মান্নানের মেয়ে তাসলিমা। গত বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ সদর জোনের জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শ্যাম কান্ত সিনহা’র আদালতে সুনামগঞ্জের সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক শহরতলির ওয়েজখালী’র ফরজ আলী’র ছেলে শেরজাহান মিয়া ওরফে সেজান মিয়াকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করলে আদালতের কাছে শেরজাহান অপরাধ স্বীকার করে জানায়, ‘তাসলিমা অটোরিক্সা থেকে লাফিয়ে পড়ে মারা যায়।’
২০১৬ সালের ২২ জুন সুনামগঞ্জ শহরের আত্মীয়ের বাড়ী থেকে দিরাই যাবার জন্য ওয়েজখালী পয়েন্টে যায় তাসলিমা ওরফে তাসনিমা। ওখান থেকে একটি অটো রিক্সায় করে কিছু দূর গিয়েই চলন্ত অটো রিক্সা থেকে পড়ে যায় তাসলিমা। পথে থাকা র‌্যাব-৯’এর একটি টহল গাড়ী কিশোরীকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়। অবস্থার অবনতি হলে পরদিন তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় তাসলিমা। তাসলিমার মৃত্যুর পর বাবা আব্দুল মান্নান বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে দুর্ঘটনায় তাসলিমা’র মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে অটোরিক্সা চালক সোহেব’এর বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে।
আদালতে স্বাক্ষ্য প্রদানের সময় র‌্যাব’এর সাব ইন্সপেক্টর দেব দুলাল ধর বলেন,‘মেয়েটির নিছক দূর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে, এটি আমার কাছে মনে হয়নি। এরমধ্যে অন্য কোন কারণও থাকতে পারে।’
তাঁর স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত ২০১৮ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য সিআইডি’র কাছে পাঠান।’
সিআইডি’র সুনামগঞ্জের দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিদর্শক জরিরুল কবির মঙ্গলবার এ প্রতিবেদককে জানান, আদালতের নির্দেশে এই মামলার তদন্ত চলাকালে অটোরিক্সা চালক শহরতলির ইকবাল নগরের চাঁন মিয়ার ছেলে সোহেবকে বার বার খুঁজে গিয়েছি। একদিন সোহেব’এর মা জানায়, তার ছেলে ওই দিন গাড়ী চালায়নি, গাড়ী চালিয়েছে ওয়েজখালীর সেজলু মিয়া। পরে ওয়েজখালীর মছব্বির আলী’র ছেলে সেজলু’র বাড়ীতে গিয়ে জানা যায়, সে দীর্ঘদিন ধরেই পলাতক। তার পরিবারের লোকজনের সঙ্গে একাধিকবার কথা বলে জানা গেল, সেজলু মিয়ার সঙ্গে ওই দিন একই গ্রামের ফরজ আলী’র ছেলে শেরজাহান ওরফে সেজান মিয়া (২২), মানিক মিয়ার ছেলে দুলাল মিয়া ওরফে দুলাল (২৪), সুধাংশু দাসের ছেলে নারায়ণ দাস (২২) ছিল।’
জহিরুল কবির জানান, তদন্তকালে তারা জানতে পারেন এরা সকলেই ২০১৬ সালের ২২ জুন অটো রিক্সাতে বসে আড্ডা মারছিল। তাসলিমা এদের সকলকে যাত্রী মনে করে দিরাই যাবে কী-না, জিজ্ঞেস করলে তাঁরা সকলেই দিরাই’র যাত্রী জানিয়ে তাকে তুলে নেয়। ওই সময় রমজান মাস হওয়ায় সড়কেও বেশি লোকজনও ছিল না। তাসলিমাকে নিয়ে কিছু দূর যেতেই (ভার্ড চক্ষু হাসপাতালের সামনে) তারা তাসলিমাকে যৌন হয়রানির চেষ্টা করে। তাসলিমা বাধা দিলে এরা সকলে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। এসময় তাসলিমার সঙ্গে এদের ধস্তাধস্তিও হয়। এক পর্যায়ে সড়কে র‌্যাবের টহল গাড়ী দেখে তাসলিমা বাাঁচাও বাঁচাও চিৎকার দিয়ে লাফিয়ে পড়ে সড়কে। গুরুতর আহত অবস্থায় র‌্যাবের টহল দল তাকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওখান থেকে পরে তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
সিআইডি’র পরিদর্শক জহিরুল কবির জানান, গত বৃহস্পতিবার অপরাধী শেরজাহানকে শহরের পুরাতন বাসস্টেশন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। অন্যরা পলাতক রয়েছে।
বৃহস্পতিবার সুনামগঞ্জ সদর আদালতের বিচারক শ্যাম কান্ত সিনহা’র আদালতে শেরজাহানকে হাজির করলে সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে।
সিআইডি’র সুনামগঞ্জের পরিদর্শক জহিরুল কবির বলেন,‘মামলাটি তদন্তকালে মনে হয়েছে ঘটনাটি মর্মস্পর্শি, অমানবিক, গুরুত্ব দিয়ে মামলার তদন্ত করা হয়েছে। এখনো তদন্ত অব্যাহত রয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24