বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে র‍্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে বৈধ কাজগপত্র না থাকায় ১২টি মোটরসাইকেল চালককে জরিমানা জগন্নাথপুরে বিভিন্ন কর্মসুচির মধ্যে দিয়ে নিরাপদ সড়ক দিবস পালন জগন্নাথপুরে দু’পক্ষের বিরোধে বলীর শিকার শিশু সাব্বিরের খুনীরা এখনও ধরা পড়েনি জগন্নাথপুরে ৬০ কৃষক কৃষাণীদের প্রশিক্ষণ প্রদান জগন্নাথপুরে সনাক্তকারী ‘বহিরাগতদের’ বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের আবেদন প্রাণের চেয়েও প্রিয় মহানবী (সা.) সুনামগঞ্জে আ.লীগ নেতার ছেলে পিটালেন ডাক্তারকে সুনামগঞ্জ পৌর শহরে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে আহত ৩ জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠানের উদ্যাগে সম্মাননা ক্রেষ্ট প্রদান

সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রার্থী ১৮৩৩

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৩০ মার্চ, ২০১৫
  • ৫৯ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডেস্ক:: উৎসবমুখর পরিবেশে ঢাকা উত্তর, দক্ষিণ ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে। এবার তিন সিটির নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোট এক হাজার ৮৩৩ জন। শুধু মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৬০ জন। এর মধ্যে ঢাকা উত্তরে ২১ জন, দক্ষিণে ২৬ জন এবং চট্টগ্রামে ১৩ জন। কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মোট এক হাজার ৭৭৩ জন।
তবে রোববার বিকেলে শেষ মুহূর্তে এসে মনোনয়নপত্র জমা দিতে না পেরে ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ করেছেন কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগ্রহীরা। চলমান আন্দোলনে নাশকতার মামলা থাকায় গ্রেফতার এড়াতে স্ত্রী-সন্তান, আইনজীবী ও দলীয় নেতাকর্মীদের মাধ্যমে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন অনেক বিএনপি নেতা। এ নিয়ে বিএনপি শিবিরে কিছুটা আতঙ্কও বিরাজ করে।

মনোনয়নপত্র জমা দিতে গতকাল বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট অবরোধ বহাল রাখলেও হরতাল দেয়নি। আজ ভোর ৬টা থেকে আবার ৪৮ ঘণ্টার হরতাল ডাকলেও আওতামুক্ত রাখা হয়েছে ঢাকা ও চট্টগ্রামমহানগরকে।

ঢাকা উত্তরে আওয়ামী লীগ ও ব্যবসায়ী নেতাদের সঙ্গে নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন আনিসুল হক। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুল আউয়াল মিন্টু এবং তার বড় ছেলে তাবিথ এম আউয়ালও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ঢাকা দক্ষিণে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও সাবেক মেয়র মোহাম্মদ হানিফের ছেলে সাঈদ খোকন মনোনয়নপত্র জমা দেন দলের নেতাদের সঙ্গে নিয়ে। এই সিটিতে মহানগর বিএনপি আহ্বায়ক মির্জা আব্বাসসহ একই দলের চারজন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। একইভাবে চট্টগ্রামে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আ জ ম নাছির উদ্দিন ও বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী এম মনজুর আলম নিজ নিজ দলের নেতাদের সঙ্গে নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। অবশ্য আওয়ামী লীগ তিন সিটিতে দল সমর্থিত একক মেয়র প্রার্থী দিলেও বিএনপি ঢাকায় এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কাউকে সমর্থন দেয়নি।

ঢাকা উত্তরে ৩৬টি ওয়ার্ডে ৪৯৪ জন, দক্ষিণ সিটিতে ৫৭টি ওয়ার্ডে ৬৩২ জন এবং চট্টগ্রামে ৪১টি ওয়ার্ডে ২৮৮ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ঢাকা উত্তরের ১২টি সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে ১৩৫ জন, দক্ষিণে ১৯ ওয়ার্ডে ১৫৩ জন এবং চট্টগ্রামে ১৪টি ওয়ার্ডে ৭১ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তিন সিটির রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় ও নির্বাচন কমিশন থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

আগামী ১ ও ২ এপ্রিল মঙ্গল ও বুধবার মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই করা হবে। ৯ এপ্রিল পর্যন্ত প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সুযোগ থাকবে। ২৮ এপ্রিল তিন সিটিতে একযোগে ভোট গ্রহণ করা হবে। ওই দিন ঢাকা ও চট্টগ্রামের নির্বাচনী এলাকায় সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচন আইন অনুযায়ী ভোট গ্রহণের ২১ দিন আগে, অর্থাৎ ৭ এপ্রিলের আগে কোনো প্রার্থী প্রচার শুরু করতে পারবেন না।

কাগজে-কলমে এই নির্বাচনকে নির্দলীয় বলা হলেও বেশির ভাগ প্রার্থী আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সমর্থন নিয়ে ভোটের লড়াইয়ে নেমেছেন। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট ভোটে অংশ নেওয়ায় রাজনৈতিক অঙ্গনে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। বিএনপির নেতাকর্মীরা তিন সিটির প্রায় সবক’টি পদেই প্রার্থী হয়েছেন। কোনো কোনো পদে তাদের একাধিক প্রার্থীও রয়েছেন। তবে গ্রেফতার-আতঙ্কে তাদের পক্ষে আইনজীবী অথবা তাদের পরিবারের সদস্যরা মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

আইন অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় পাঁচজনের বেশি প্রার্থীর সঙ্গে না যাওয়ার বিধিনিষেধ থাকলেও তা বেশির ভাগই মানেননি। ইসি বিষয়টি কিছুটা শিথিলভাবে নিয়েছে। তিনি সিটির তিন রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে প্রার্থীদের উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমা দিতে দেখা গেছে।

নির্বাচনের সময় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নানামুখী পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ। বিএনপির পক্ষ থেকে নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে পুলিশি হয়রানির অভিযোগ আনা হলেও কমিশন তা অস্বীকার করছে। তারা বলছেন, মামলা, গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি ও কারাগারে আটকদের জামিনের বিষয়ে ইসির কোনো পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ নেই। তবে তফসিল ঘোষণার পর কাউকে হয়রানিমূলক মামলায় জড়ানোর অভিযোগ পাওয়া গেলে কমিশন সে ব্যাপারে ব্যবস্থা নেবে। এক প্রশ্নের জবাবে ইসি শাহনেওয়াজ সমকালকে বলেন, আদালতের দৃষ্টিতে পলাতক বা ফেরারি ব্যক্তিরা নির্বাচনে অযোগ্য হবেন।

এদিকে, মনোনয়নপত্র জমা দিতে ঘোড়ার গাড়িতে নিজের ছবিযুক্ত ব্যানার নিয়ে আসায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী মো. নাঈম হাসানকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক মাসের কারাদ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ঢাকা উত্তর সিটি: মেয়র পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী আনিসুল হক বিকেল ৩টার পর মনোনয়নপত্র জমা দেন রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে। এ সময় তিনি বলেন, দলীয় প্রার্থী না হলেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সমর্থন রয়েছে তার প্রতি। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান এমপি, সাবেক মন্ত্রী ড. আবদুর রাজ্জাক এমপি, এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি এ. কে. আজাদ, বিজেএমইএর সভাপতি আতিকুল ইসলাম।

এর আগে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী আবদুল আউয়াল মিন্টুর পক্ষে তার দুই ছেলে তাফসির ও আজওয়ার আউয়াল মনোনয়নপত্র জমা দেন। পরে তার বড় ছেলে তাবিথ এম আউয়াল দুই ভাইকে সঙ্গে নিয়ে মেয়র পদে নিজের মনোনয়নপত্র জমা দেন। তাবিথ বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহসভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন।

তাফসির আউয়াল বলেন, নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ চাই। জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য বাহাউদ্দিন আহমেদ বাবুল মনোনয়নপত্র জমা দিয়ে সুষ্ঠু পরিবেশের জন্য সেনা মোতায়েনের দাবি জানান।

মেয়র প্রার্থী কবরী: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘আশীর্বাদ’ নিয়েই মেয়র নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী। গতকাল উত্তর সিটির মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। উত্তর সিটিতে দলের পক্ষ থেকে ব্যবসায়ী আনিসুল হককে আওয়ামী লীগের সমর্থন দেওয়ার পর নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে কবরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে নির্বাচন থেকে বিরত থাকতে বলেননি। তার আশীর্বাদ নিয়েই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। তিনি আরও বলেন, দীর্ঘ ৫০ বছর তিনি সংস্কৃতি অঙ্গনের সঙ্গে জড়িত। ১৬ কোটি মানুষ তার অভিনীত ছবি দেখেছেন। এ ছাড়া তিনি একজন মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক এমপি। তিনি মেয়র হলে জনগণ, বিশেষ করে মেয়েরা বেশি সুযোগ-সুবিধা পাবে বলে দাবি করেন।

উত্তর সিটির মেয়র পদে আরও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন- বিকল্পধারা বাংলাদেশের মাহী বি. চৌধুরী, জাপা চেয়ারম্যানের সদ্য বহিষ্কৃত উপদেষ্টা ববি হাজ্জাজ, বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা চৌধুরী তানভীর আহমেদ সিদ্দিকীর ছেলে চৌধুরী ইরাদ আহম্মদ সিদ্দিকী, সিপিবির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও যুব ইউনিয়নের সভাপতি আবদুল্লাহ আল কাফি রতন, গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক মো. জোনায়েদ আবদুর রহিম সাকী, জাসদ সমর্থিত অভিনেতা নাদের চৌধুরী, এ ওয়াই এম কামরুল ইসলাম, সামছুল আলম চৌধুরী, কাজী মো. শহীদুল্লাহ, মোয়াজ্জেম হোসেন খান মজলিশ, মো. নাঈম হাসান, মো. আনিসুজ্জামান খোকন, মো. জামান ভূঞা, শেখ শহিদুজ্জামান, শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ ও মোস্তফা কামাল আজাদী।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি: ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী সাঈদ খোকন। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী হবেন তার প্রতিপক্ষ। বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী তিনি। তার সঙ্গে ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্র্রীয় নেতা ড. আবদুর রাজ্জাক, ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস, ড. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, দলের নগর শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ আজিজসহ নেতাকর্মীরা।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে গতকাল বিএনপি নেতা মির্জা আব্বাস, আবদুস সালাম, ড. আসাদুজ্জামান রিপন ও নাসির উদ্দিন আহম্মেদ পিন্টুর মনোনয়নপত্র জমা পড়েছে। এর মধ্যে মির্জা আব্বাসের পক্ষে দুটি মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হয়েছে। তবে আইনগতভাবে এ সুযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ সিটির রিটার্নিং কর্মকর্তা মিহির সারোয়ার মোর্শেদ। গতকাল রোববার দুপুরে মহানগর নাট্যমঞ্চে মির্জা আব্বাসের পক্ষে মনোনয়নপত্র জমা দেন তার আইনজীবী ও যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ।

মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর মির্জা আব্বাসের আরেক আইনজীবী এ কে এম শাজাহান বলেন, মির্জা আব্বাস পলাতক নন। তার বিরুদ্ধে অনেক রাজনৈতিক মামলা আছে; কিন্তু এ অবস্থায় নির্বাচনে অংশ নিতে তার কোনো বাধা নেই। এ সময় আব্বাসের চাচাতো ভাই মির্জা আবদুস সালাম আরিফসহ বেশ কয়েকজন কর্মী উপস্থিত ছিলেন। বিএনপির অর্থনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সালামের পক্ষে তার স্ত্রী ফাতেমা সালাম এবং সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক সাংসদ নাসির উদ্দিন পিন্টুর পক্ষে তার স্ত্রী নাসিমা আক্তার কল্পনা মনোনয়নপত্র জমা দেন। বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন নিজেই মনোনয়নপত্র জমা দেন। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত নির্বাচনের জন্য সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরি হয়নি। তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিলেও প্রার্থিতার ব্যাপারে দলের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে জানান।

এ ছাড়া মেয়র পদে মনোনয়নপত্র জমা দেন আওয়ামী লীগের সাবেক এমপি গোলাম মাওলা রনি, বাসদ সমর্থিত বজলুর রশীদ ফিরোজ, ভাড়াটিয়া পরিষদের নেতা বাহারানে সুলতান বাহার ও এএসএম আকরাম।

চট্টগ্রাম সিটি: চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, এই সিটিতে মেয়র পদে প্রার্থী হলেন- আওয়ামী লীগ সমর্থিত আ জ ম নাছির উদ্দিন, ২০ দল সমর্থিত এম মনজুর আলম, জাতীয় পার্টি সমর্থিত সোলায়মান আলম শেঠ, ইসলামী ফ্রন্ট ও আহলে সুন্নাত সমর্থিত মাওলানা এমএ মতিন, বিএনএফের আরিফ মইনুদ্দিন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও বেসরকারি কারা পরিদর্শক সাইফুদ্দিন আহম্মেদ রবি, গাজী মো. আলাউদ্দিন, ফোরকান চৌধুরী, সৈয়দ সাজাদ দোহা, হোসাইন মোহাম্মদ মজিবুল হক, মো. শফিউল আলম, মো. ওয়াহেজ হোসেন ভূঁইয়া ও মো. আবুল কালাম আজাদ।

আওয়ামী লীগ সমর্থিত নাগরিক কমিটির ব্যানারে আ জ ম নাছির উদ্দিন মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় তার সঙ্গে ছিলেন সাবেক মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য মো. ইছহাক মিয়া, নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি নুরুল ইসলাম বিএসসি, সাবেক সাংসদ ডা. আফছারুল আমীন, সাংসদ এম এ লতিফ, সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম প্রমুখ।

এর আগে গতকাল সকালে রিটার্নিং অফিসার মো. আবদুল বাতেনের হাতে মনোনয়নপত্র তুলে দেন ২০ দল সমর্থিত প্রার্থী এম মনজুর আলম। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সহসভাপতি আবদুল্লাহ আল নোমান, নগর বিএনপির সভাপতি আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, উত্তর জেলা সহসভাপতি ও ব্যবসায়ী নেতা এসএম ফজু, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান শামীম প্রমুখ।

তা ছাড়া বেলা ১১টায় রিটার্নিং অফিসার কার্যালয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে হাজির হন জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা সোলায়মান আলম শেঠ। তবে এ সময় তার সঙ্গে মহানগরের কিংবা কেন্দ্রীয় কোনো শীর্ষ নেতাকে দেখা যায়নি। একইভাবে সুনি্ন নাগরিক ঐক্য পরিষদ মনোনীত বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট সমর্থিত মেয়র প্রার্থী এমএ মতিনও দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24