বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০৪:২০ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জের ছাত্রলীগে নাটকীয়তা!

Reporter Name
  • Update Time : বুধবার, ১৮ এপ্রিল, ২০১৮
  • ৫৯ Time View

স্টাফ রিপোর্টার ::
সুনামগঞ্জে ছাত্রলীগের কার্যক্রম নিয়ে নাটকীয়তা সৃষ্টি হয়েছে। এক পক্ষ সম্মেলনের আয়োজনে ব্যস্ত থাকলেও আরেক পক্ষ ১০টি ইউনিট কমিটির জীবন বৃত্তান্ত সংগ্রহ করেছে। অন্যদিকে জেলা আ.লীগের সভাপতি জানিয়েছেন, সম্মেলন নিয়ে তার সঙ্গে কারো কোনো যোগাযোগ হয়নি।
সংগঠন সূত্রে জানা যায়, গত বছরের ৩ ডিসেম্বর জেলা ছাত্রলীগের ১১ সদস্যবিশিষ্ট কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ। আরিফ উল আলমকে আহ্বায়ক, নাজমুল হক কিরণ, দিপঙ্কর কান্তি দে, এনায়েত রেজা জিসান, সোহেল রানা, মাসকাওয়াত জামান ইন্তি, আশিকুর রহমান রিপনকে যুগ্ম আহ্বায়ক এবং ফয়সল আহমেদ, অভিজিৎ চৌধুরী, আশরাফুল ইসলাম, ইশতিয়াক আলম পিয়ালকে কমিটিতে সদস্য হিসেবে রাখা হয়। কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস.এম জাকির হোসাইন কমিটির মেয়াদ তিন মাস বেধে দেন। জেলা কমিটির দায়িত্বশীলদের তিন মাসের মধ্যে সব উপজেলা, পৌর, কলেজ ইউনিটের সম্মেলন অথবা জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহ করে কমিটি অনুমোদনের নির্দেশ দেয় কেন্দ্র। কিন্তু চার মাসেও একটি ইউনিটের কমিটি দিতে পারেনি জেলা ছাত্রলীগ। এমন অবস্থায় গত সোমবার কেন্দ্র থেকে ২০এপ্রিল সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু ছাত্রলীগের আহ্বায়কসহ দায়িত্বশীল অনেকেই এই সম্মেলন সম্পর্কে কিছুই জানেন না।
এদিকে সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের অন্তর্ভুক্ত ১০ ইউনিটের কমিটি গঠনের লক্ষ্যে পদপ্রত্যাশীদের জীবনবৃত্তান্ত আহ্বান করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আরিফুল উল আলম, যুগ্ম আহ্বায়ক যুগ্ম আহ্বায়ক সোহেল রানা, মাসকাওয়াত জামান ইস্তি ও আশিকুর রহমান রিপন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ১৮ এপ্রিলের মধ্যে জীবনবৃত্তান্তসহ সদ্য তোলা পাসপোর্ট সাইজের এক কপি রঙিন ছবি, এসএসসি’র সনদপত্রের সত্যায়িত ফটোকপি ও জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি পাঠানোর জন্য আহ্বান জানানো হয়।
ইউনিটগুলো হল- ছাতক উপজেলা, ছাতক পৌরসভা, জনতা মহাবিদ্যালয়, দোয়ারাবাজার উপজেলা, দিরাই উপজেলা, দিরাই পৌরসভা, শাল্লা উপজেলা, সুনামগঞ্জ পৌরসভা, সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজ, জগন্নাথপুর পৌরসভা।
জীবনবৃত্তান্ত সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ফয়সল আহমদ, অভিজিৎ চৌধুরী, আশরাফুল ইসলাম ও ইশতিয়াক আলম পিয়ালের কাছে জমা দেওয়ার জন্য বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
এক পক্ষ ইউনিট কমিটি নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও আরেক পক্ষ সম্মেলন নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছে। সম্মেলনের পোস্টার, ভেন্যু, অতিথিসহ নির্ধারণসহ নানা কাজ করছেন তারা।
জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক দিপঙ্কর কান্তি দে বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসাইন ভাইয়ের নির্দেশনায় সফলভাবে সম্মেলন করার জন্য আমরা কাজ করে যাচ্ছি। নেতাকর্মীরা সম্মেলনের জন্য প্রস্তুত, আশা করছি সুন্দরভাবেই তা সম্পন্ন করতে পারবো।
তবে জেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক আরিফ উল আলম বলেন, ছাত্রলীগ বড় সংগঠন। সম্মেলনের জন্য প্রস্তুতি দরকার। আমি সম্মেলনের ব্যাপারে কিছুই জানি না। কেন্দ্র থেকে আমাকে কিছু বলা হয়নি।
জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মো. মতিউর রহমান বলেন, জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন স¤পর্কে আমি কিছুই জানি না। শুনেছি পোস্টারে আমার নাম দেয়া হয়েছে কিন্তু আমাকে তো এ বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ বা জেলা ছাত্রলীগের কেউ কিছুই জানায়নি।
সুনামকন্ঠ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24