মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ১২:০৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
রাধারমন দত্ত এ দেশের লোক সংস্কৃতির ভান্ডার কে সমৃদ্ধ করেছেন: জেলা প্রশাসক ‘আওয়ামী লীগে দুঃসময়ের কর্মী চাই, বসন্তের কোকিল না’ জগন্নাথপুরে মূল্য তালিকা না থাকায় ভ্রাম‌্যমান আদাতের অভিযানে জরিমানা আদায় ঈদে মীলাদুন্নবী (সা:) উপলক্ষে জগন্নাথপুরে র‌্যালি ও আলোচনাসভা জগন্নাথপুরে যুবলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত সুনামগঞ্জে নৌকাডুবিতে প্রহরীর মৃত্যু দেখে নিন যে স্থানে জন্মগ্রহণ করেছিলেন মহানবী (সা.) বাবরি মসজিদ ধ্বংসকারী সেই বলবীর সিং এখন মুসলিম! রাধারমণের মৃত্যুবার্ষিকীতে ‘ক্লোজআপ ওয়ান’র সেরা প্রতিযোগি সালমা জগন্নাথপুর আসছেন সোমবার সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় সিলেটের নুরুল নিহত

সুনামগঞ্জ ৪ আসনে আ.লীগের প্রার্থী দেওয়ার দাবী

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮
  • ৭৬ Time View

স্টাফ রিপোর্টার
‘সন্ত্রাস, নৈরাজ্য ও নাশকতার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও বাংলাদেশ’ স্লোগান নিয়ে রবিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ শহরে নৌকার সমর্থনে গণমিছিল হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমন গণমিছিলের নেতৃত্বে দেন। তিনি সুনামগঞ্জ-৪ আসনে (সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর) আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশী।
মিছিলে শেখ হাসিনা, নৌকা মার্কা ও ব্যারিস্টার ইমনের সমর্থনে নানা স্লোগান লেখা প্ল্যাকার্ড বহন করেন কয়েক হাজার নেতা-কর্মী। মিছিলের অন্যতম স্লোগান ছিল- ‘নৌকা-বাইয়া দেউরে, সুনামগঞ্জের মাটি- শেখ হাসিনার ঘাটি’।
গণমিছিলে অংশ নিতে সকাল থেকে সুনামগঞ্জ শহরের বিভিন্ন এলাকা, সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও গ্রাম থেকে খ- খ- মিছিল নিয়ে দলীয় নেতা-কর্মীরা পৌর শহরের সরকারি জুবিলী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে এসে জড়ো হন। সকাল থেকেই মাঠে গণসংগীত পরিবেশন করেন শিল্পীরা। পরে এখানে সমাবেশ হয়। সমাবেশের পর দুপুরে গণমিছিল বের হয়। সমাবেশে বক্তারা বলেন, সুনামগঞ্জ জেলা সদরের আসন থেকে বারবার আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা নৌকা প্রতীক নিয়ে জয়ী হয়েছেন। জেলা সদর হিসেবে রাজনীতি ও উন্নয়নের ক্ষেত্রে এই আসনের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। কিন্তু গত দুটি নির্বাচনে এখানে মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টি থেকে প্রার্থী দেওয়া হয়। এতে আওয়ামী লীগ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এলাকার মানুষ কাঙ্খিত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এবার কোনোভাবেই এই আসন শরিকদের দেওয়া যাবে না।’ আওয়ামী লীগ থেকে ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমনকে এখানে প্রার্থী দেওয়ার দাবি জানানো হয় সমাবেশ থেকে।
সমাবেশে ব্যারিস্টার ইমন বলেন, ‘আমাকে ২০১৪ সালের নির্বাচনে এই আসনে দলের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছিল। পরে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে আমি মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নেই। সে হিসেবে আগামি নির্বাচনে এখানে আমিই আওয়ামী লীগের প্রার্থী। এবার শরিকদের কোনো ছাড় দেওয়া হবে না। জেলা আওয়ামী লীগ এ বিষয়ে ঐক্যবদ্ধ। আমরা সবাই আগামী নির্বাচনে এখানে নৌকার প্রার্থী চাই।’ তিনি দলীয় মনোনয়ন পাবেন বলে শতভাগ আশাবাদও ব্যক্ত করেন।
সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নান্টু রায় ও অ্যাডভোকেট হায়দার চৌধুরী লিটন, সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুর রহমান সিরাজ, কোষাধ্যক্ষ ইশতিয়াক শামীম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অভিজিৎ চৌধুরী, ত্রাণ ও দুর্যোগব্যবস্থাপনা সম্পাদক শাহ আবু নাসের, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মফিজুল হক, দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট নুরে আলম সিদ্দিকী উজ্জ্বল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুল আজাদ রুমান, জেলা কমিটির সদস্য রেজাউল আলম নিক্কু, অ্যাডভোকেট মলয় চক্রবর্তী রাজু ও রফিকুল্লাহ ফজুল প্রমুখ।
সমাবেশ শেষে দুপুর সাড়ে ১২টায় শহরে গণমিছিল বের হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার সরকারি জুবিলী উচ্চবিদ্যালয় মাঠে গিয়ে শেষ হয়। জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ ইশতিয়াক শামীম দাবি করেছেন, সুনামগঞ্জ সদর ও বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও গ্রাম থেকে প্রায় ১০ হাজার মানুষ গণমিছিলে অংশ নিয়েছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24