শনিবার, ২৪ অগাস্ট ২০১৯, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
ঠিকাদারের দায়িত্বহীনতায় জগন্নাথপুর-বেগমপুর সড়কে অসহনীয় দুর্ভোগ জগন্নাথপুরের টমটম চালকের হত্যাকাণ্ড উন্মোচিত,ঘাতকের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান জগন্নাথপুরে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় জন্মাষ্টমী উদযাপন জগন্নাথপুরে সরকারি গাছ কাটায় সেই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের ভারত-পাকিস্তান গুলি বিনিময় প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা ১৭ নভেম্বর টমটম গাড়ীর জন্য জগন্নাথপুরের এক চালককে রশিদপুরে নিয়ে খুন,গ্রেফতার-১ জেলা আ.লীগের গণমিছিল ৫ বছরেও শেষ হয়নি জগন্নাথপুরের ভবেরবাজার-গোয়ালাবাজার সড়কের কাজ,দুর্ভোগ লাখো মানুষের “জুম্মু কাশ্মীরে,গণতহ্যা শুরু করেছে মোদী সরকার”

২০ বছর পর ছাত্রদল নেতা হাফিজ হত্যার রায়ে সব আসামি খালাস

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৫ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ১৪৫ Time View

স্টাফ রিপোর্টার –
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা ছাত্রদল নেতা হাফিজুর রহমান হাফিজ হত্যা মামলায় সব আসামি খালাস পেয়েছেন। মঙ্গলবার সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আব্দুল্লাহ আল মামুনের আদালত মামলার চুড়ান্ত প্রতিবেদনভুক্ত ৭ আসামি কে খালাস প্রদান করেন। খালাসপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন,জগন্নাথপুর পৌর এলাকার রতিয়ারপাড়া গ্রামের বাসিন্দা যুবলীগ নেতা আনহার মিয়া,পৌর আওয়ামী লীগ নেতা লুদরপুর গ্রামের আব্দুস সালাম, ইসাকপুর গ্রামের বাসিন্দা উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মোমিন আহমদ,একই গ্রামের বাসিন্দা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বদরুল ইসলাম, শাহ রফিকুল করিম, যুবলীগ নেতা শফিকুর রহমান, মিনার উদ্দিন। মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী হিসেবে ছিলেন এডভোকেট শফিকুল আলম,জহুর আলী,মতিউর রহমান পীর,,শুকুর আলী,আব্দুল ওয়াদুদ। বাদী পক্ষে ছিলেন এডভোকেট মল্লিক মঈন উদ্দিন সুহেল,সরকার পক্ষে ছিলেন পিপি ড. খায়রুল কবির রুমেন।
উল্লেখ্য ১৯৯৮ সালের ১৫ এপ্রিল বিএনপি জোটের হরতাল চলাকালে পৌর শহরের হবিবপুর এলাকায় পিকেটিং চলাকালে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে ছাত্রদল নেতা হাফিজ নিহত হন। এঘটনায় হাফিজের বড় ভাই হারুন মিয়া বাদী হয়ে আওয়ামীলীগের ২৫ নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার চুড়ান্ত প্রতিবেদনে ৭ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগ পত্র দেন। ৭ জনের মধ্যে ৪ জন পলাতক আসামি হিসেবে লন্ডন অবস্থান করছেন আর তিন জন উপস্থিত ছিলেন।
মামলার আসামি পক্ষের আইনজীবী এডভোকেট শফিকুল আলম বলেন,বাদী পক্ষ মামলাটি প্রমান করতে না পারায় আদালত সকল আসামি দের খালাস দিয়েছেন। মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী মল্লিক মইন উদ্দিন সুহেল বলেন,আমি আজ আদালতে ছিলাম না।রায় পর্যালোচনা না করে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য করব না।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24