বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯, ১০:৩০ পূর্বাহ্ন

২৬৮ গ্রাম ওজন নিয়ে জন্মেছিল শিশুটি

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯
  • ৭৯ Time View

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক:: জন্মের সময় শিশুটির ওজন ছিল মাত্র ২৬৮ গ্রাম। মায়ের গর্ভকালীন জটিলতার কারণে গত বছরের আগষ্টে গর্ভকালীন মাত্র ২৪ সপ্তাহ বয়সে অপারেশনের মাধ্যমে ছেলে শিশুটির জন্ম হয় জাপানের টোকিওতে কিও ইউনিভার্সিটি হাসপাতালে।শিশুটির জন্মের পর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার আকৃতি দেখে তাকে একটি বড় পেঁয়াজের সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। শিশুটি এতটাই ছোট ছিল যে তাকে এক হাতের তালুতে ধরা যেত।

তবে আশার কথা হলো, ৫ মাসের চিকিৎসার পর ছেলেটির ওজন এখন দাঁড়িয়েছে ৩ দশমিক ২৩ কেজিতে । হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এখন সে স্বাভাবিক ভাবে খাবার খাচ্ছে। হাসপাতাল থেকে শিশুটিকে ছাড়পত্রও দেওয়া হয়েছে।

জাপানের গণমাধ্যম জানিয়েছে, শিশুটির জন্মের পর তাকে নবজাকদের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয। সেখানেই তার শ্বাস-প্রশ্বাস এবং পুষ্টির জন্য চিকিৎসকরা আপ্রাণ চেষ্টা চালান।

ধীরে ধীরে শিশুটি বড় হতে থাকে। একসময় বুকের দুধ খেতেও সে সমর্থ হয়।

শিশুটির মা বলেন, ‘ছেলেটি এত ছোট ছিল যে আমি ভাবতেই পারিনি সে বাঁচবে।চিকিৎসকদের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই।’

জানা গেছে, বিশ্বে এত অল্প ওজন নিয়ে জন্ম নেওয়া কোন শিশু এর আগে জীবিত থাকেনি। সর্বশেষ ২০০৯ সালে জার্মানিতে সবচেয়ে ছোট শিশু জন্ম নিয়েছিল যার ওজন ছিল ২৭৪ গ্রাম ।সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইভিনিং স্ট্যান্ডার্ড
সৌজন্যে- সমকাল

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24