রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০৪:২০ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
‘ব্রিটিশ বাংলাদেশী হুজহু’র প্রকাশনা ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের বারোতম আসর বর্ণাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি:প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে অগ্নিকাণ্ডে নি:স্ব ৮ পরিবার আশ্রয় নিলেন স্কুলে.মানবেতর জীবন যাপন মিশর থেকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসছে মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যে বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সামাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল

আ’লীগের দু’গ্রপের সংঘর্ষে নিহত-১

Reporter Name
  • Update Time : রবিবার, ২৮ মে, ২০১৭
  • ৫৭ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন আরও ১২ জন। সংঘর্ষের সময় ঘরবাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনাও ঘটে।

আজ রোববার সকাল নয়টার দিকে উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের লক্ষণদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ লাঠিপেটা, কাঁদানে গ্যাস ও গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সংঘর্ষে নিহত হন ছরো মাতুব্বর (৩৫) নামের এক ব্যক্তি। তাঁর বাড়ি লক্ষণদিয়া গ্রামে।

এলাকাবাসী জানান, আওয়ামী লীগ-মনোনীত গট্টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) বর্তমান চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের সঙ্গে আওয়ামী লীগের সমর্থক হাফিজুর রহমান মাতুব্বরের বিরোধ ছিল। হাফিজুরের বাবা তেহারউদ্দিন মাতুব্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের নির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। গত বছর তিনিও প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হন।

সালথা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফারেকুজ্জামান জানান, হাবিবুর রহমান আওয়ামী লীগ-মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত। তাঁর সঙ্গে আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতা তেহারউদ্দিনের ছেলে হাফিজুরের বিরোধ ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা বলছেন, গতকাল শনিবার রাত থেকেই ওই গ্রামে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি বিরাজ করছিল। আজ সকাল আনুমানিক নয়টার দিকে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দুই পক্ষের সমর্থকেরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে ইউপির চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমানের সমর্থক ছরো মাতুব্বর নিহত হন। এতে কমপক্ষে আরও ১৫ জন আহত হয়েছেন।

সালথা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জিল্লুর রহমান বলেন, পুলিশ লাঠিপেটা করে সংঘর্ষ থামাতে ব্যর্থ হয়ে পরে কাঁদানে গ্যাস ও গুলি ছোড়ে। ওই এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24