1. forarup@gmail.com : jagannthpur25 :
  2. jpur24@gmail.com : Jagannathpur 24 : Jagannathpur 24
উন্নয়নকামী জনবান্ধন জনপ্রতিনিধি আকমল হোসেন - জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:২৬ অপরাহ্ন

উন্নয়নকামী জনবান্ধন জনপ্রতিনিধি আকমল হোসেন

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৩৬৪ Time View

অমিত দেব-
মৃত্যু চিরন্তন তারপরও কিছু কিছু মৃত্যুতে তৈরি শূন্যতা মানুষকে পীড়া দেয়। দ্বিতীয় বারের মতো উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব গ্রহণের মাত্র ১৮ দিনের মধ্যে পরপারে চলে যাওয়া আকমল হোসেনের আকস্মিক মৃত্যু শোকে মুহ্যমান জগন্নাথপুরের মানুষ। তাঁর শূন্যতা অনুভবের কথা ভাবতে শুরু করেছেন সচেতন মহল। তৃণমূল থেকে ওঠে আসা একজন রাজনীতিবীদ ও জনপ্রতিনিধির আকস্মিক চলে যাওয়া সত্যি বেদনার। আকমল হোসেন ১৯৫৭ সালের ২২ ডিসেম্বর জগন্নাথপুর উপজেলার মীরপুর ইউনিয়নের শ্রীরামসি গ্রামে তালেব হোসেন ও ময়মনা খাতুন দম্পতির ঘরে জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৭০ সালে তিনি শ্রীরামসি আঞ্চলিক শাখা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক হিসেবে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে যোগদেন। পরে সিলেটের এমসি কলেজে ছাত্রলীগের রাজনীতির সক্রিয় রাজনৈতিক জীবন শুরু করলেও তিনি যৌবনে সিলেট শহরে ব্যবসায়ী হিসেবে প্রতিষ্ঠা পান। ১৯৯৮ সালে তাঁর জন্মভূমি শ্রীরামসি গ্রামের মানুষের আহ্বণে সাড়া দিয়ে তিনি মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ৫ বছর দায়িত্ব পালনে ইউনিয়নবাসীর মন জয় করেন। তিনি মিরপুর ইউনিয়নকে শতভাগ স্যানিটেশনের আওতাশ আনতে এভাবে বক্তব্য দিয়ে প্রচারণা চালান যে, গরিবের ঘরের খোলা ল্যাট্রিনে বসা মাছি, ধনীর ঘরের খাবারে গিয়ে বসে রোগ ব্যাধি ছড়ায়। তাই গরিবের খোলা ল্যাট্রিন বন্ধ করতে ধনীদেরকেও এগিয়ে আসতে হবে। তাঁর এ শ্লোগান ব্যাপক সাড়া জোগায়। সরকারের পাশাপাশি ইউনিয়নের ধনাঢ্য ব্যক্তিদের সহায়তায় মিরপুর ইউনিয়ন শতভাগ স্যানিটেশনের আওতায় আসে। তখন সরকারি সফরে ভিয়েতনাম ঘুরে আসেন। ২০০৩ সালে ইউনিয়নবাসীর স্বতস্ফূর্ত সাড়ায় দ্বিতীয়বারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০০৭ সালে তত্বাবধায়ক সরকারের শাসনামলে তিনি জেলার শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে গোল্ড মেডেল পান। ২০০৯ সালে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে তিনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচনে অংশ নেন। নানা নাটকীয়তা ও আইনি লড়াইয়ে পর উচ্চ আদালতের রায়ে সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে পুননির্বাচনের মাধ্যমে দুই বছর পর তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ১৯৯৮ সালে প্রয়াত জাতীয় নেতা আবদুস সামাদ আজাদের সান্নিধ্যে তিনি জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে তিনি সভাপতি নির্বাচিত হন। সর্বশেষ গত ১৬ নভেম্বর উপজেলা আওয়ামী লীগের সন্মেলনে তিনি আবারও সভাপতি নির্বাচিত হন। এর আগে ২ নভেম্বর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে দ্বিতীয়বারের মতো উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়ে ৮ ডিসেম্বর দায়িত্ব গ্রহণ করেন। উপজেলা পরিষদের প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসেবে ২০১৬ সালে তিনি সিলেট বিভাগের শ্রেষ্ঠ চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়ে জাতীয় প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। সৎ সজ্জন পরোপকারী অসাম্প্রদায়িক আকমল হোসেন একজন ধৈর্যশীল ও ভালো মানুষ ছিলেন। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে শ্রীরামসি গণহতয়ায় তাঁর চাচাতো ভাই সাদ উদ্দিন শহীদ হন। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের প্রতি তিনি ছিলেন অবিচল। দুই যুগেরও বেশী সময় ধরে জগন্নাথপুরের রাজনীতিতে নেতৃত্ব দেওয়া আকমল হোসেন কে কোন দুনীতি অনিয়ম স্পর্শ করতে পারেনি। তিনি ছিলেন একজন উন্নয়নকামী সফল জনবান্ধন জনপ্রতিনিধি। তাঁর উন্নয়নের ছোঁয়ায় মীরপুর ইউনিয়ন আজো উপজেলার আট ইউনিয়নের মধ্যে অগ্রসরমান। প্রচুর আত্মবিশ্বাসী এ মানুষ নিজের জীবনের প্রতি খেয়াল করেননি। চারবার স্টোক করেও প্রচুর আত্মবিশ্বাস নিয়ে সক্রিয় থেকেছেন কর্তব্যকর্মে। সাদামাটা রাজনৈতিক জীবন অতিবাহিত করেছেন। মুজিব আর্দশের বীজ রক্ষায় শত ঘাত প্রতিঘাত অতিক্রম করে সক্রিয় ছিলেন। ২৪ ডিসেম্বর দলের জাতীয় সম্মেলনে যোগদিতে ঢাকায় যান। সম্মেলন শেষে সুস্থভাবে বাড়ি ফেরার আগেই ২৬ ডিসেম্বর রাত দেড়টায় চিরনিন্দ্রায় শায়িত হন।
জীবনের শেষ দিনগুলোতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির মতো পদে থেকে মর্যাদার আসন অলংকিত করেই পরপারে চলে গেলেন। জগন্নাথপুরের রাজনীতিতে তাঁর শূন্যতা অপূরণীয়। পরপারে ভালো থাকুন আকমল ভাই। গভীর শোক ও শ্রদ্ধা। আকমল হোসেন জন্ম ২২ ডিসেম্বর ১৯৫৭, মৃত্যু ২৬ ডিসেম্বর ২০২২। (লেখক – অমিত দেব. সাংবাদিক জগন্নাথপুর।)





শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩
Design & Developed By ThemesBazar.Com
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com