বৃহস্পতিবার, ২১ নভেম্বর ২০১৯, ০২:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
মিরপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান শেরীন শপথ নেবেন ২৫ নভেম্বর দক্ষিণ সুরমার একাধিক মামলার আসামি গ্রেফতার সাহাবাদের যুগে শিশুদের শিক্ষায় অধিক গুরুত্ব দেওয়া হতো জগন্নাথপুরের সন্তান অতিরিক্ত সচিব শিশির রায় কে ফুলেল শ্রদ্ধায় চীরবিদায় সিলেটে হিরন মাহমুদ নিপু আটক তারেক জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে জগন্নাথপুরে ছাত্রদলের এতিমদের মধ্যে খাদ্য বিতরণ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত সসীমের অসহায়ত্ব -মোহাম্মদ হরমুজ আলী তারেক জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে জগন্নাথপুরে বিএনপির দোয়া মাহফিল পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান জগন্নাথপুরে কাল আসছেন জগন্নাথপুরে বাজার মনিটরিং করলেন পুলিশের এএসপি

এনজিওরা নেই কৃষকের পাশে

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০১৭
  • ৫৭ Time View

বিন্দু তালুকদার
বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ‘ব্র্যাক’ হাওর অঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্তদের ১৫ কোটি টাকার ত্রাণ সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দিলেও অন্য কোন এনজিও বা উন্নয়ন সংস্থা সুনামগঞ্জের ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের পাশে এখনও দাঁড়ায়নি বা সহায়তা করার ঘোষণা দেয়নি।
মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথোরটি কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী হাওরের এই দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাড়ানো ও সহায়তা করছেন না সুনামগঞ্জ জেলায় অর্থ লগ্নিকারী বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো (এনজিও)।
তবে এনজিও ফেডারেশন অব বাংলাদেশ এর সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি পদক্ষেপ এর সুনামগঞ্জ অঞ্চলের কর্মকর্তা মুজিবুল হক বলেন, ‘কাজ করছে না, একথা সঠিক নয়। কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী ব্র্যাক শুরু করেছে, আমরা শুরু করেছি। অন্যরা পর্যায়ক্রমে করবেন।’
ব্র্যাক গতকাল বুধবার দিরাই উপজেলায় ফসল হারা ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের মাঝে প্রক্রিয়াজাত গো খাদ্য বিতরণ করেছে। আগামী কয়েক দিন পর চাল ও নগদ অর্থ বিতরণ করবে বলে জানা গেছে।
শাল্লা উপজেলার মুক্তার গ্রামের কৃষক ব্রজেন্দ্র দাস বলেন,‘ আমাদের এলাকার সব কৃষকের বোরো ধান পানিতে তলিয়ে গেছে। এনজিও সংস্থার লোকজন এখন কোন ধরনের সাহায্য-সহাযোগিতা নিয়ে আসেনি। হাওরের মানুষ মহা বিপদে পড়ছে এবার। উল্টো কিছু কিছু এনজিও সংস্থা ঋণের কিস্তির জন্য কৃষকদের চাপ প্রয়োগ করছে। টাকা দেয়ার
জন্য নানা ধরনের কথাবার্তা বলছে।’
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তাদির আহমদ মুক্তা বলেন,‘ হাওরাঞ্চলের এবারের সমস্যা খুব গভীর। এই দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি সকল বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাকেও সমন্বিতভাবে মাঠ পর্যায়ে কাজ করতে হবে। ব্র্যাকের পাশাপাশি সুনামগঞ্জে কর্মরত সকল এনজিওকে কৃষকদের পাশে দাঁড়াতে হবে ও সহায়তা করতে হবে। না হলে হাওরের এই সমস্যা দিনে দিনে আরো প্রকট হবে।’
এনজিও ফেডারেশন অব বাংলাদেশ এর সুনামগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি মুজিবুল হক বলেন,‘ সকল এনজিও প্রতিষ্ঠান আমাদের সংগঠনের সদস্য নয়। আমরা পদক্ষেপের পক্ষ থেকে কম সুদে ঋণ বিতরণ করছি। আগামী ২৮ এপ্রিল ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প ও ২৯ তারিখ ত্রাণ বিতরণ করব। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়ানো ও সহায়তা করার বিষয়ে মাইক্রোক্রেডিট রেগুলেটরি অথোরটির একটি নির্দেশনা জারী করেছে। আমরা আমাদের সংগঠনের পক্ষ থেকে সুনামগঞ্জে একটি সভা করেছি। ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা করার জন্য অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের সুনামগঞ্জের কর্মকর্তাগণ ঢাকায় চিঠি লিখেছেন। আমরা আশা করি সকল প্রতিষ্ঠানই সাধ্যমত ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা করবেন। ’
ব্র্যাক এর সুনামগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি মো. মনিরুজ্জামান বলেন,‘ ব্র্যাক হাওর অঞ্চলের ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ সহায়তা দেয়ার জন্য ১৫ কোটি টাকার বরাদ্দ ঘোষণা দিয়েছে। আমরা শুধুমাত্র সুনামগঞ্জের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ৩০ হাজার ৭৫০ পরিবারকে ৩০ কেজি করে চাল ও ৫০০ করে নগদ টাকা প্রদান করব। গতকাল বুধবার দিরাই উপজেলার ৩২৮টি কৃষক পরিবারকে ৪৪ কেজি করে গো খাদ্য প্রদান করা হয়েছে। দিরাইয়ে মোট ১৮৪০টি কৃষক পরিবারকে এই সহায়তা প্রদান করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24