মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে মানবাধিকার দিবসে র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত সিলেটে মাকে হত্যা করল পাষান্ড ছেলে ঘৃনার বদলে অমুসলিমদের মধ্যে ১০ হাজার কোরআন বিতরণ করবে নরওয়ের মুসলিমরা জগন্নাথপুরে ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে পারাপারের সময় খেলা নৌকা থেকে পড়ে মৃগী রোগির মৃত্যু জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহতের স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন, ৫ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে মুক্ত দিবস পালিত জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত দুই যুবকের জানাজায় শোকাহত মানুষের ঢল জগন্নাথপুরে আইনশৃংঙ্খলা সভায়-আনন্দ সরকারের হত্যাকারিদের গ্রেফতারের দাবি

কৃতিপুরুষ ফনী ভূষণ চৌধুরীর বর্ণাঢ্যজীবন

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ২৮ মার্চ, ২০১৬
  • ৮৮ Time View

মাহমুদ আলম :: বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক সমন্বয়ক ও পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য ফনী ভূষণ চৌধুরী পরলোক গমন করেছেন শনিবার। তাকে হারিয়ে স্বজনরা যেমন শোকে মুহ্যমান; তেমনি দেশ ও জাতির কল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ এ লোকটির মৃত্যুতে তার প্রিয় জন্মভূমি ছাতক তথা পুরো দেশবাসী বেদনাতুফনী ভূষণ চৌধুরী শৈশব থেকেই অত্যন্ত মেধাবী ছিলেন। শিক্ষাজীবনের প্রতিটির পরীক্ষায় তিনি এর উজ্জ্বল স্বাক্ষর রেখেছেন। চাকরিজীবনে নিজ সততা ও কর্মদক্ষতার জন্য সর্বমহলে প্রসংশিত হয়েছেন।

দেশের গর্বিত ব্যক্তিত্ব চিরকুমার ফনী ভূষণ চৌধুরী জীবনের অধিকাংশ সময়ই দেশ ও জাতির সেবায় কাজ করেছেন। বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন তিনি। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীর ওই বাহিনীর সমন্বয়ক হিসেবে দায়িত্ব পালনের পর ফণী ভূষণ পাট ও বস্ত্র সচিব হিসেবে কাজ করেন। সর্বশেষ তিনি পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্যের দায়িত্বে ছিলেন।

ফণি ভূষণ চৌধুরী জন্মগ্রহণ করেন বৃহত্তর সিলেটের সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক শহরের কালিবাড়িতে। তার পিতা নিবারণ চন্দ্র চৌধুরী ও মাতা রেখা চৌধুরী। ৪ ভাই ও ১ বোনের মধ্যে ফনী ভূষণ ছিলেন পিতা-মাতার দ্বিতীয় সন্তান।।

ছাতক ম-লীভোগ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষাজীবনের হাতেখড়ি হয় ফণি ভূষণ চৌধুরীর। প্রাথমিক শিক্ষার গন্ডি পেরোনোর পর তিনি ভর্তি হন ছাতক বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে। মাধ্যমিক শিক্ষা সম্পন্ন করে ফনী ভূষণ সিলেট মুরারী চাঁদ (এমসি) সরকারী কলেজে ভর্তি হন এবং কৃতিত্ত্বেও সাথে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। এরপর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন।

১৯৮২ বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচের কর্মকর্তা হিসেবে ফণি ভূষণ চৌধুরী বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগ দেন। সততা ও দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করায় তিনি ধাপে ধাপে পদোন্নতিও পান। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করা এ চৌকস কর্মকর্তা পুলিশ বিভাগে সর্বশেষ দায়িত্ব পালন করেন পুলিশের সমন্বয়ক হিসেবে। ২০১০ সালে তিনি এ পদে অধিষ্ঠিত হয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত আইজিপি হিসেবে সিআইডি প্রধানের দায়িত্বও পালন করেন ।

ফণি ভূষণ ২০১৩ সালে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের পূর্ণ সচিব হিসেবে যোগ দেন। ওই পদ থেকে ২০১৪ সালের ১০ নভেম্বর অবসরোত্তর ছুটিতে যান তিনি। এরপর একই বছরের ২৪ নভেম্বর তিনি পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) সদস্য পদে যোগ দেন এবং সর্বশেষ এ দায়িত্বেই ছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য, ফণি ভূষণ চৌধুরী গত শনিবার বিকাল সাড়ে ৪টায় তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে শেষ নিঃস্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। অাজ সকালে তার লাশ গ্রামের বাড়ি ছাতকে নিয়ে আসলে সর্বস্তরের মানুষ তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানায়। পরে তারসৎকার সম্পন্ন হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24