রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০১:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
‘ব্রিটিশ বাংলাদেশী হুজহু’র প্রকাশনা ও এওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানের বারোতম আসর বর্ণাঢ্য আয়োজনে সম্পন্ন পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি:প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড আ.লীগের কমিটি গঠন জগন্নাথপুরে অগ্নিকাণ্ডে নি:স্ব ৮ পরিবার আশ্রয় নিলেন স্কুলে.মানবেতর জীবন যাপন মিশর থেকে কার্গো বিমানে পেঁয়াজ আসছে মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যে বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি জগন্নাথপুরে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুরের সামাটে সমাপনী পরীক্ষার্থীদের সংবর্ধনা জগন্নাথপুর পৌরসভার মেয়র মনাফকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ জগন্নাথপুরের চিতুলিয়া গ্রামে আগুন,দুইটি ঘরসহ পুড়ল ১২ লাখ টাকার মালামাল

গরু কিনলে পালসার মোটরসাইকেল ফ্রি

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক::
  • Update Time : রবিবার, ৪ আগস্ট, ২০১৯
  • ৩০৯ Time View

আসন্ন ঈদুল আজহা সামনে রেখে জমে উঠতে শুরু করেছে গবাদিপশুর কেনাবেচা। এরই মধ্যে বড় আকারের গরুগুলো চলে এসেছে আলোচনায়। গণমাধ্যমে প্রকাশিত হচ্ছে খবর।

৫০ মণ ওজনের গরু বীরবাহাদুরের পর এবার আলোড়ন তুলেছে পালসার বাবু নামের একটি গরু। গরুটি এখন এর মালিকের বাড়ি যশোরের মণিরামপুর উপজেলায় রাখা হয়েছে।

একে দেখতে আশপাশের গ্রামসহ স্থানীয়রা ভিড় করছেন। পালসার বাবুকে দেখতে শত শত মানুষের ঢল নেমেছে মণিরামপুরের ইত্যা গ্রামের গরু ব্যবসায়ী ইয়াহিয়া মোল্লারবাড়ি। অনেকে গরুটির সঙ্গে সেলফি তুলছেন ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে পোস্ট করছেন।

গরুটির এমন নামের পেছনে যে কারণ জানা গেছে, এ গরুটি কিনলে একটি পালসার মোটরসাইকেল উপহার দেয়া হবে বলে ঘোষণা দিয়েছেন ইয়াহিয়া মোল্লা।

তিনি এ গরুর দাম হেঁকেছেন ১২ লাখ টাকা। ইতিমধ্যে কয়েকজন গরুটি কিনতেও এসেছেন বলে জানিয়েছেন বিক্রেতা ইয়াহিয়া মোল্লা।

স্থানীয় সাংবাদিকদের গরু ব্যবসায়ী ইয়াহিয়া মোল্লা বলেন, তিন বছর ধরে একটি বাচ্চা ষাঁড়কে সন্তানের মতো লালন-পালন করে বড় করেছি। তখন থেকেই পরিকল্পনা নিয়ে রেখেছিলাম বিক্রির সময় এ গরুর সঙ্গে পালসার মোটরসাইকেল উপহার দেব ক্রেতাকে। তাই ষাঁড়টির নাম দিয়েছি ‘পালসার বাবু’। এখন এ নামেই সবাই গরুটিকে চেনে।

ইয়াহিয়ার বাড়িতে গরুটি দেখতে আসা উপজেলার ঘুঘুরাইল গ্রামের মমতাজ হোসেন বলেন, ‘শুনলাম গরু কিনলে পালসার ফ্রি। এ কথা শুনে কৌতূহল জাগে মনে। তাই গরুটি দেখতে চলে এলাম।

একই গ্রামের আরেক ব্যক্তি বলেন, লোকমুখে শুনলাম ইত্যা গ্রামের এক গরুর দাম ১২ লাখ টাকা! এত দামি গরু না দেখলেই নয়। দেখে মন জুড়ে গেল। এত বড় গরু জীবনে প্রথম দেখলাম।’

কৃষ্ণবাটি গ্রামের বৃদ্ধ সুকৃতা মণ্ডল বলেন, ‘গতকাল আমাগে এলাকা থেকে গরু দেখতি আইল। তাগের মুখে শুনে আমরা আইছি। এত বড় গরু জীবনে চোহি (চোখে) পড়িনি।’ জানা গেছে, গত বছর পালসার বাবুকে কিনতে চেয়েছিল অনেকে। এর দাম উঠেছিল সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা। কিন্ত এ দামে গরুটি বিক্রি করেননি ইয়াহইয়া।

তিনি বলেন, আমি ক্ষুদ্র গরুর ব্যবসায়ী। ১৯৯৬ সাল থেকে একটা করে সংকর জাতের গরু পুষে আসছি। তিন বছর আগে ৪৫ হাজার টাকায় হলেস্টিয়ান’ জাতের এই ষাঁড়টি কিনি। শখ করে এর নাম দিয়েছি ‘পালসার বাবু’। গত বছর গরুটি কিনতে ঢাকা থেকে অনেকেই এসেছিলেন। বিক্রি করিনি আমি।

তিনি যোগ করেন, এই এক বছরে গরুটি বেশ বড় হয়েছে। প্রায় ২০ মণ মাংস আছে এর গায়ে। এখন পর্যন্ত এর দাম আট লাখ টাকা বলেছে কেউ কেউ। তবে ১২ লাখ টাকার নিচে বিক্রি করব না বলে ভাবছি। এ দামে কেউ কিনে নিলে ক্রেতাকে খুশি হয়ে পালসার মোটরসাইকেল উপহার দেব।

সৌজন‌্যে আমার সংবাদ

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24