বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ০৬:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
ধর্মঘট স্থগিত, যান চলাচল শুরু ঢাকা-চট্টগ্রাম-সিলেট মহাসড়কে প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে নেদার‌ল্যান্ডসের রাজধানীতে প্রথমবার মাইকে আজান জগন্নাথপুরের কৃতি সন্তান অতিরিক্ত সচিব শিশির রায় আর নেই জগন্নাথপুরে ভ্রাম্যমান আদালতের টের পেয়ে পেঁয়াজ ১৭০ থেকে নেমে এলে ১২০ টাকা কেজি জগন্নাথপুর উপজেলাকে মাদকমুক্ত করতে মতবিনিময়সভা অধ্যক্ষকে পানিতে নিক্ষেপ: ছাত্রলীগের আরো পাঁচজন গ্রেফতার নবীজীর কাছে যে সকল বেশে হাজির হতেন জিবরাইল (আ.) অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে পণ্য পরিবহন মালিক শ্রমিক লবনের গুজব জগন্নাথপুরের সর্বত্রজুড়ে,ক্রেতা সামলাতে না পেরে দোকান বন্ধ, চলছে মাইকিং জগন্নাথপুর বাজারে লবন নিয়ে গুজব

গুলি করে ৬৬ লাখ টাকা ছিনতাই

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৮ মে, ২০১৭
  • ৩৪ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক :: গাজীপুরে গুলি ছুড়ে গাড়ি থেকে আরবিএসআর ফ্যাশন লিমিটেড নামের একটি পোশাক কারখানার ৬৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। ছিনতাইকালে গুলিতে কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক রবিউল ইসলাম, গাড়ি চালকসহ তিনজন আহত হয়েছেন। রবিউল ইসলামকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
আহত গাড়িচালক মোজাম্মেল হক জানান, রোববার দুপুর ১টার দিকে ইসলামী ব্যাংকের নগরের চান্দনা চৌরাস্তার থেকে ৬৬ লাখ ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করা হয়। শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন দিতে টাকা উত্তোলন করে কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক রবিউল ইসলাম ও হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা একটি প্রাইভেটকারযোগে টঙ্গীর মরকুনের কারখানার উদ্দেশে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে প্রাইভেটকারটি ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের জয়দেবপুর থানার মালেকের বাড়ি এলাকায় পৌঁছলে প্রথমে একটি পিকআপ ভ্যান গাড়ির গতিরোধ করে। পরে পেছন থেকে আসা সশস্ত্র ছিনতাইকারী দল দুটি মোটর সাইকেলে মাথায় হেলমেট পরা অবস্থায় এসে গাড়ির সামনে দাঁড়ায়। এসময় ছিনতাইকারীরা প্রাইভেটকারের কাঁচ ভাঙচুর করে এবং ওই কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালকের পায়ে গুলি ও চালকসহ অপর দুজনকে মারধর করে ৬৬ লাখ ৫০ হাজার টাকাভর্তি ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে দ্রুত টঙ্গীর দিকে পালিয়ে যায়। ঘটনার পর কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালককে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
জয়দেবপুর থানার উপপরিদর্শক শেখ ফরিদউদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ রাসেল ও সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাখাওয়াত হোসেন। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তবে ভোগড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জাকির হোসেন জানান, অতিরিক্ত পরিমাণের টাকা আনা নেয়ার জন্য পুলিশকে জানানো হলে কারখানা মালিকদের পুলিশি নিরাপত্তা দেয়া হয়। কিন্তু এ টাকা নেয়ার বিষয়টি তাদের জানানো হয়নি। অন্যদিকে কারখানা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এর আগে পুলিশ পাহারায় তারা কয়েকবার ব্যাংক থেকে কারখানায় টাকা নিয়েছেন। সে সময় তাদের ৬-৭ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। খরচ হয় বলে এবার তাদের জানানো হয়নি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24