শনিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
একটি নৃশংস হত্যাকাণ্ড,নাড়িয়ে দিল জগন্নাথপুরবাসিকে, ক্রাইম সিন ইউনিটের ঘটনাস্থল পরিদর্শন অফিসার্স ক্লাব থেকে রানীগঞ্জের তহশীলদারসহ ৪ জুয়াড়ি গ্রেফতার আজানের মর্মবানী জগন্নাথপুরে ২২তম ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধন সম্পন্ন জগন্নাথপুরে সেই সড়কে ২৩ কোটি টাকার টেন্ডার সম্পন্ন, নতুন বছরের শুরুতেই কাজ শুরু হতে পারে জগন্নাথপুরে ১৫ দিন পর অবশেষে ধান কেনা শুরু জগন্নাথপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে দুর্বৃত্তরা হত্যা করল স্টুডিও’র মালিক আনন্দকে সিলেট জেলা আ’লীগের নেতৃত্বে লুৎফুর-নাসির, মহানগরে মাসুক-জাকির প্রতিবন্ধীদের জন্য প্রতিটি উপজেলায় সহায়তা কেন্দ্র: প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথপুর পৌরশহরে স্টুডিও দোকানদারের মরদেহ পাওয়া গেছে

ছাতকে ১৫ বছর ধরে বন্ধ স্বাস্থ্যকেন্দ্র

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ১৪ জুলাই, ২০১৭
  • ১৫৭ Time View

শাহ্ মো.আখতারুজ্জামান, ছাতক :: ছাতক উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের একটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র প্রায় ১৫ বছর ধরে বন্ধ রয়েছে। ফলে এলাকার ১৫টি গ্রামের প্রায় ৪০ হাজার মানুষ স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। পরিত্যক্ত স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের ভবনটি এখন মাদক সেবন ও জুয়াড়িদের আস্তানায় পরিণত হয়েছে। এমনই অভিযোগ করেছেন গ্রামাঞ্চলের অসংখ্য নারী-পুরুষ।

১৯৯০ সালের ইসলামপুর ইউনিয়নের ছনবাড়ী বাজারের পাশে একটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র স্থাপন করা হয়। সেবাজনক প্রতিষ্ঠানটি স্থাপিত হওয়ার পর এলাকার লোকজনের মধ্যে স্বস্তি ফিরে আসে। কিন্তু শুরু থেকেই এই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি চলতে থাকে খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে।

বছর না ঘুরতেই স্বাস্থ্যকেন্দ্রটির ভূমির মালিকানা নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দা হৃষিকেষ রায় তৎকালীন জেলা প্রশাসক, ইউএনওসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। ওই মামলা-সংক্রান্ত আইনি জটিলতার কারণে ২০০২ সালে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি প্রশাসনের পক্ষ থেকে তালাবদ্ধ করে দেওয়া হয়। বন্ধ হয়ে যায় এলাকার মানুষের স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম। ফলে সেবাবঞ্চিত হয়ে পড়ে ইউনিয়নের রহমতপুর, দারোগাকান্দি, বৈশাকান্দি,

বাহাদুরপুর, নোয়াকোর্ট, নিজগাঁও, রতনপুর,

লুভিয়া, রাসনগর, ধনিটিলা, ঢলাপার, বনগাঁওসহ প্রায় ১৫টি গ্রামের মানুষ।

এক পর্যায়ে স্থানীয় সেবা কার্যক্রম চালু করতে এলাকার আবদুল জব্বার খোকনের একটি বাড়ি ভাড়া নেওয়া হয়। কিছুদিন সেবা কার্যক্রম চালু থাকলেও পরে তা বন্ধ হয়ে যায়। বর্তমানে পরিত্যক্ত এ ভবনের আশপাশে ঝোঁপ-ঝাড় হয়ে ভুতুরে বাড়িতে পরিণত হয়েছে। ভবনের কাচের দরজা-জানালা ভেঙে গেছে। শ্যাওলা জমে ভবনের ঔজ্জ্বল্য হারিয়ে গেছে অনেক আগেই। প্রায় অর্ধকোটি টাকা মূল্যের সরকারি এ ভবনটি যেন দেখার কেউ নেই।

বনগাঁও গ্রামের বাসিন্দা পাথর ব্যবসায়ী ইলিয়াছ বলেন, বিশাল এ ইউনিয়নে যোগাযোগ ব্যবস্থা অনুন্নত। নূ্যনতম চিকিৎসাসেবা পেতে এ অঞ্চলের মানুষ স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি পুনরায় খুলে দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল হেকিম জানান, ছোট-বড় টিলাবেষ্টিত এলাকা থেকে ১৫ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে স্বাস্থ্যসেবা পেতে ছাতক সদর হাসপাতালে পেঁৗছাতে ৩ থেকে সাড়ে ৩ ঘণ্টা সময় লেগে যায়। এই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রটি চালু করা জরুরি প্রয়োজন।

ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অভিজিৎ শর্মা বলেন, কেন্দ্রটি

পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণাধীন। ভবনের ভূমি নিয়ে আইনি জটিলতা দূর হলে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি আবারও চালু হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24