জগন্নাথপুরে অনিয়মের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন

বিশেষ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরশ মিয়ার বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, দুর্ণীতির অভিযোগ এনে তার অপসারনের দাবীতেমানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছেন।
মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে চিলাউড়া-ইউনিয়নবাসির ব্যানারে আয়োজিত এ কর্মসুচি স্থানীয় চিলাউড়া বাজারে অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধবকালে বক্তব্য রাখেন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হারুনুর রাশিদ, শহিদুল ইসমলাম বকুল, আব্দুল গফুর, আবু তাহের, আখলাকুর রহমান, লুলু, আব্দুল মোতালিব, ফররুখ মিয়া, হানিফ উল্লা, আব্দুল হোসেন, আলেক মিয়া, আখলুছ মিয়া. জুলহাস মিয়া প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, প্রতি মাসের অধিকাংশ সময় ইউপি চেয়ারম্যান আরশ মিয়া অফিসে অনুপস্থিত থাকেন। গত ১৫ থেকে ২০ দিন ধরে তিনি অফিসে আসেন নি। পরিষদের কেউ জানেনা তিনি কোথায়। শুনা যাচ্ছে তিনি লন্ডনে চলে গেছেন। বেশির ভাগ সময় চেয়ারম্যান অনুপস্থিত থাকায় কারণে ইউনিয়ন পরিষদের কাজে আসা লোকজন নাগরিক সনদপত্র, জন্মসনদ, ট্যাক্স পরিশোর করাসহ জরুরি কাজে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। চরমভাবে বিঘিœত হচ্ছে পরিষদের কার্যক্রম। ইউনিয়নের প্রতিমাসে সাধারণ সভা হওয়ার নিয়ম থাকলেও আমাদের ইউনিয়নে হয় না। এছাড়া চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে চেয়ারম্যানের অপসারণ দাবী করেছেন বক্তারা।
চিলাউড়া গ্রামের বাসিন্দা শহিদুল ইসলাম বকুল জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, চেয়ারম্যানের দায়িত্বহীনতা ও খামখেয়ালিপনার কারণে সেবা পাচ্ছেন না ইউনিয়নের লোকজন। এছাড়াও সরকারী বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা তিনি আত্মসাৎ করেছেন বলে আমরা উঠেছে তার বিরুদ্ধে। চেয়ারম্যানের এসব অনৈতিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ইউনিয়নের ভুক্তভোগি নাগরিক প্রতিবাদে সোচ্ছার হয়ে তার অপসারণ দাবী করেছেন।
চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হারুনুর রাশিদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে গত সোমবার বিকেলে (১১ মার্চ) সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের নিকট এলাকাবাসির পক্ষে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস পরি সুষ্ঠু তদন্তের সাপেক্ষে তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করবো চেয়ারম্যানের পাসর্পোট দেখার জন্য। তার পাসপোর্টটি দেখতে প্রমাণিত হবে তিনি লন্ডণে গিয়েছেন কিনা।
তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরশ মিয়া জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আমি গত কয়েকদিন ধরে স্বাশ্বকষ্ট জণিত রোগে আক্রান্ত হয়েছি। আমার বিরুদ্ধে একটি মহল ষড়যন্ত্র করছি।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বিষয়টির খোঁজ খবর নিচ্ছি আমরা।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» জগন্নাথপুরে প্রবাসিদের সঙ্গে আইডিয়াল ভিলেজ ফোরামের মতবিনিময় সভা

» নিউজিল্যান্ডের সংসদে পবিত্র আল কোরআন তিলাওয়াত!

» প্রাথমিক শিক্ষক পদে এপ্রিলে পরীক্ষা

» বিশ্বনাথে দুই ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৯ জনের জামাত বাজেয়াপ্ত

» স্যান্ডেলের ভেতর ১০ হাজার ডলার!

» আবারও নিরাপদ সড়ক’র দাবীতে আন্দোলনে নামছে শিক্ষার্থীরা

» গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে রাষ্ট্রপতি- রডের পরিবর্তে বাঁশ দেবেন না

» জগন্নাথপুরে গাঁজাসহ গ্রেফতার-১

» আসসালামু আলাইকুম বলে পার্লামেন্টে বক্তব্য দিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

» সুনামগঞ্জে ছুরিকাঘাতে আ.লীগ নেতা খুন, আটক-৩

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

জগন্নাথপুরে অনিয়মের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানের অপসারণের দাবীতে মানববন্ধন

বিশেষ প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরশ মিয়ার বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম, দুর্ণীতির অভিযোগ এনে তার অপসারনের দাবীতেমানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেছেন।
মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে চিলাউড়া-ইউনিয়নবাসির ব্যানারে আয়োজিত এ কর্মসুচি স্থানীয় চিলাউড়া বাজারে অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধবকালে বক্তব্য রাখেন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হারুনুর রাশিদ, শহিদুল ইসমলাম বকুল, আব্দুল গফুর, আবু তাহের, আখলাকুর রহমান, লুলু, আব্দুল মোতালিব, ফররুখ মিয়া, হানিফ উল্লা, আব্দুল হোসেন, আলেক মিয়া, আখলুছ মিয়া. জুলহাস মিয়া প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, প্রতি মাসের অধিকাংশ সময় ইউপি চেয়ারম্যান আরশ মিয়া অফিসে অনুপস্থিত থাকেন। গত ১৫ থেকে ২০ দিন ধরে তিনি অফিসে আসেন নি। পরিষদের কেউ জানেনা তিনি কোথায়। শুনা যাচ্ছে তিনি লন্ডনে চলে গেছেন। বেশির ভাগ সময় চেয়ারম্যান অনুপস্থিত থাকায় কারণে ইউনিয়ন পরিষদের কাজে আসা লোকজন নাগরিক সনদপত্র, জন্মসনদ, ট্যাক্স পরিশোর করাসহ জরুরি কাজে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। চরমভাবে বিঘিœত হচ্ছে পরিষদের কার্যক্রম। ইউনিয়নের প্রতিমাসে সাধারণ সভা হওয়ার নিয়ম থাকলেও আমাদের ইউনিয়নে হয় না। এছাড়া চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে চেয়ারম্যানের অপসারণ দাবী করেছেন বক্তারা।
চিলাউড়া গ্রামের বাসিন্দা শহিদুল ইসলাম বকুল জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, চেয়ারম্যানের দায়িত্বহীনতা ও খামখেয়ালিপনার কারণে সেবা পাচ্ছেন না ইউনিয়নের লোকজন। এছাড়াও সরকারী বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা তিনি আত্মসাৎ করেছেন বলে আমরা উঠেছে তার বিরুদ্ধে। চেয়ারম্যানের এসব অনৈতিক কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ইউনিয়নের ভুক্তভোগি নাগরিক প্রতিবাদে সোচ্ছার হয়ে তার অপসারণ দাবী করেছেন।
চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হারুনুর রাশিদ জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে নানা অনিয়ম দুর্নীতির বিরুদ্ধে গত সোমবার বিকেলে (১১ মার্চ) সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসকের নিকট এলাকাবাসির পক্ষে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। আমরা বিশ্বাস পরি সুষ্ঠু তদন্তের সাপেক্ষে তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ করবো চেয়ারম্যানের পাসর্পোট দেখার জন্য। তার পাসপোর্টটি দেখতে প্রমাণিত হবে তিনি লন্ডণে গিয়েছেন কিনা।
তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরশ মিয়া জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আমি গত কয়েকদিন ধরে স্বাশ্বকষ্ট জণিত রোগে আক্রান্ত হয়েছি। আমার বিরুদ্ধে একটি মহল ষড়যন্ত্র করছি।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, বিষয়টির খোঁজ খবর নিচ্ছি আমরা।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।