সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯, ০২:৫৮ অপরাহ্ন

জগন্নাথপুরে ডাউকা নদীর সেতুর সংযোগ সড়কে ফের ধস

Reporter Name
  • Update Time : মঙ্গলবার, ৯ অক্টোবর, ২০১৮
  • ৯৭ Time View

বিশেষ প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার পাটলী ইউনিয়নের রসুলগঞ্জ-লামা টুকেরবাজার সড়কের ডাউকা সেতুর সংযোগ সড়কের একাংস ধসে পড়েছে। ফলে ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন। ক্ষতিগ্রস্থ স্থানে দ্রুত সংস্কার কাজ না হলেও যে কোন মুর্হুতে সরাসরি যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে এমন শঙ্কার কথা জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার রসুলগঞ্জ-লামা টুকের বাজার সড়কের রসুলগঞ্জ বাজার নিকটবর্তী ডাউকা নদীর ওপর স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের অর্থায়নে ২০০১ সালে প্রায় ২০ লাখ টাকা ব্যয়ে
ডাউকা সেতু নির্মাণ করা হয়। ২০১৭ সালের আগষ্ট মাসে ওই সেতুর সংযোগ সড়কের একাংশ ধসে পড়লে স্থানীয় এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে জগন্নাথপুরের এলজিইডির উদ্যোগে কিছু সংস্কার কাজ করা হলেও হলেও ফের ওই স্থান ধস দেখা দিয়েছে। এ সেতু দিয়ে প্রতিদিন পাটলী ইউনিয়নের সেরা মোহাম্মদ, লামা টুকের বাজার, দরিকুঞ্জনপুর, যোগলনগর, পূর্ব বসন্তপুর, গোবিন্দপুর, মীরপুর ইউনিয়নের উত্তর গড়গড়ি, কচুরকান্দি, পাশের ছাতক থানার বসন্তপুর, তালুপাট,নরসিংহপুর, সুতারকালি, খাড়াটা,ভাটিপাড়া, বোরাইয়া ও সিংহেরকাচ গ্রামের লোকজন যাতাযাত করেন।

এলাকার যুবক আবু জিলানী জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, পাটলী ও মীরপুর ইউনিয়নের ৯টি গ্রামের লোকজন প্রতিনিয়ত এ সেতু দিয়ে চলাফেরা করেন। এছাড়াও আমাদের পাশের ছাতক থানার আরও ৮টি গ্রামের লোকজন এ সড়ক দিয়ে যাতাযাত করেন। দ্রুত সংস্কার কাজ করা না হলেও ১৭টি গ্রামের লোকজন দূর্ভোগে পড়বেন।
রসুলগঞ্জ বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারন সম্পাদক ইসলাম উদ্দিন জসিম জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, প্রায় ১৪ মাস পূর্বে সেতুর সংযোগ সড়কে ধস দেখা দিলে কিছু সংস্কার কাজ করা হলেও সম্প্রতি ওই স্থানে ভাঙন বড় আকার ধারন করেছে। ফলে ঝুঁকি নিয়ে শত শত ছোট বড় যানবাহন চলাচল করছে।

পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, জনগুরুত্বপূর্ণ এই সেতুর সংযোগ সড়কে সংস্কার কাজের জন্য একাধিকবার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেছি। আশা করছি দ্রুত সংস্কার কাজ শুরু হবে।

এব্যাপারে জগন্নাথপুরের এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ স্থানে সংস্কার কাজের জন্য বরাদ্দ চেয়ে আমরা উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট প্রতিবেদন পাঠিয়েছি।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24