বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন

জগন্নাথপুরে তৃণমুল নেতাদের পক্ষে বিএনপির আট ইউনিয়নের কমিটি ঘোষনা করলনে মালেক খান

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ২ অক্টোবর, ২০১৫
  • ১২০ Time View

স্টাফ রিপোর্টার:: জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির ৮ ইউনিয়নের পাল্টা কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধাদলের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এম এ মালেক খান আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমুলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের পক্ষে গনমাধ্যমে উপজেলার আটটি ইউনিয়নের বিএনপির কমিটির নাম ঘোষনা করেন। পরে তিনি নবগঠিত কমিটির নের্তৃবৃন্দ ও উপজেলা বিএনপির নেতাদের নিয়ে সুনামগঞ্জ শহরে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সাবেক সংসদ সদস্য নাছির উদ্দিন চৌধুরীর সাথে দেখা করে তৃণমুল নেতাকর্মীদের সমন্ধয়ে গঠিত আটটি ইউনিয়ন বিএনপির কমিটি তুলে দিয়ে তা অনুমোদনের জন্য আহ্বান জানান। ঘোষিত কমিটিতে কলকলিয়া ইউনিয়নে শমসের উদ্দিন আহমদকে আহ্বায়ক ও মোঃ এখলাসুর রহমান তালুকদার নিকসন কে প্রথম সদস্য করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেন। ২ নং পাটলী ইউনিয়নে জামিল হোসেন গেদকে আহ্বায়ক ও মইনুল ইসলামকে প্রথম সদস্য করে ৯১ সদস্য বিশিষ্ট ৩ নং মীরপুর ইউনিয়নে মোঃ খুরশেদ মিয়াকে আহ্বায়ক ও মোঃ আব্দুল হান্নান কে প্রথম সদস্য করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ট ৫ নং চিলাউড়া-হলদিপুর ইউনিয়নে হাজী ছায়াদ মিয়াকে আহ্বায়ক ও মামুল আহমদকে প্রথম সদস্য করে ৫১ সদস্য,৬ নং রানীগঞ্জ ইউনিয়নে সামছুল ইসলামকে আহ্বায়ক করে ও আকমল হোসেনকে প্রথম সদস্য করে ৭১ সদস্য বিশিষ্ঠ,৮নং আশারকান্দি ইউনিয়নে গোলাম মোস্তফাকে আহ্বায়ক ও গোলাম কিবরিয়া চৌধুরীকে প্রথম সদস্য করে ৮১ সদস্য ও ৯ নং পাইলগাঁও ইউনিয়নে শাহ মোহাম্মদ ইয়াবর মিয়াকে আহ্বায়ক ও শামীম আহমদকে প্রথম সদস্য করে ১০৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি ঘোষনা দেন। তৃণমুল নেতাকর্মীদের পক্ষে কমিটি ঘোষনা দিয়ে উপজেলা বিএনপির আহ¦ায়ক কমিটির সদস্য এম এ মালেক খান জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক লে.ক.আলী তৃণমুলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের বাদ মিয়ে মনগড়া আটটি ইউনিয়নে নামসর্বস্থ কমিটি করায় নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্ঠি হয়। তাই আমরা প্রতিটি ইউনিয়নের তৃণমুলের ত্যাগী নেতাকর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে কমিটি করে জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত আহ্বায়কের হাতে জমা দিয়েছি। তিনি বলেণ, যে মুহুর্তে বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে দলকে ঐক্যবদ্ধ করে কাজ করার কথা ঠিক সেই মুহুর্তে ত্যাগী নেতাকমীদের বাদ দিয়ে কোন কমিটি তৃণমুলের নেতাকমীরা মেনে নিতে পারছেন না। তিনি সন্মেলনের মাধ্যমে জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপিকে রক্ষার জন্য বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহকেন্দ্রীয় ও জেলা বিএনপি নেতাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
উল্লেখ্য উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক লেঃ কর্নেল অবঃ আলী আহমদকে আহ্বায়ক ও কবির আহমদকে প্রথম সদস্য করে উপজেলা বিএনপির কমিটি গঠন পর থেকে উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আক্তার হোসেনসহ উপজেলা বিএনপির বৃহৎ অংশ একমিটির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষনা করে পৃথক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছিলেন। সাম্প্রতিককালে উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আট ইউনিয়নে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করলে তৃণমুলের নেতাকর্মীদের মধ্যে ক্ষাভের সৃষ্টি হয়। তাই তৃণমুলের নেতাকর্মীদের ব্যনারে প্রতিটি ইউনিয়নে আলাদা আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। শুক্রবার তা আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে ধরেন উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ও জেলা সভাপতি এম এ মালেক খান।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24