মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৪:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে ফুটবল এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন উপলক্ষে প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে পারাপারের সময় খেলা নৌকা থেকে পড়ে মৃগী রোগির মৃত্যু জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহতের স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত জগন্নাথপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন, ৫ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে মুক্ত দিবস পালিত জগন্নাথপুরে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত দুই যুবকের জানাজায় শোকাহত মানুষের ঢল জগন্নাথপুরে আইনশৃংঙ্খলা সভায়-আনন্দ সরকারের হত্যাকারিদের গ্রেফতারের দাবি জগন্নাথপুরে নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বেগম রোকেয়া দিবস পালন, ৫ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান জগন্নাথপুরে দুর্নীতি বিরোধী দিবসে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত ১৭ ডিসেম্বর থেকে হাওরের বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু

ট্রেন থেকে এমপি পড়ে যাওয়ায় স্টেশন মাস্টার বরখাস্ত

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
  • ৫২ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
স্ত্রীকে ট্রেনে তুলে দিয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে পা পিছলে সিরাজগঞ্জ-৪ (উল্লাপাড়া)’র সাংসদ তানভীর ইমাম পড়ে যাবার ঘটনায় উল্লাপাড়ার স্টেশন মাস্টার শামছুল আলমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। পাকশী রেলের ব্যবস্থাপক অসিম কুমার তালুকদারের নির্দেশে বুধবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। সাংসদ পড়ে যাবার পর তার বিক্ষুব্ধ সমর্থকদের হাতে লাঞ্ছিত হন সহকারী ষ্টেশন মাস্টার আব্দুল বাতেন। সাংসদ পড়ে যাওয়া ও সহকারী স্টেশন মাষ্টারকে মারপিটের ঘটনার তদন্তে পাকশী রেল বিভাগ থেকে ২ সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। পাকশী রেল বিভাগের বিভাগীয় ট্রাফিক অফিসার শওকত জামিল মোহসী ও ট্রাফিক কমার্শিয়াল অফিসার আনোয়ার হোসেনের সমন্বয়ে গঠিত তদন্ত কমিটিকে আগামী রোববারের মধ্যেই তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
স্টেশন মাস্টার শামছুল আলমকে সাময়িক বরখাস্ত ও তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পশ্চিমাঞ্চল রেল বিভাগ, পাকশীর বিভাগীয় ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) অসিম কুমার তালুকদার। তিনি গণমাধ্যমকে জানান, উল্লাপাড়া ষ্টেশনে আন্ত:নগর ট্রেনে যাত্রী উঠানামার জন্য মাত্র ৩ মিনিট স্টপেজ রেল বিভাগ থেকে নির্ধারিত থাকলেও এমপি সাহেবের জন্য সেদিন সাড়ে ৪ মিনিট স্টপেজ দেয়া হয়েছে। আর এমপি সাহেব যে হঠাৎ সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে শুধু স্ত্রীকে তুলে দিয়ে আকস্মিক ট্রেন থেকে নেমে পড়বেন, সহকারী ষ্টেশন মাস্টার যিনি ট্রেনের ক্লিয়ারেন্স দিয়েছেন, তিনি হয়তো সেটি জানতেনই না। তারপরেও এমপি সাহেব যেহেতু ট্রেনে ওঠার আগে মূল ষ্টেশন মাষ্টারের কক্ষে বসে ছিলেন এবং ষ্টেশন মাষ্টার শামছুল আলম এমপি সাহেবকে ট্রেনে তুলে দিতে তার সঙ্গে যান, তাই প্রাথমিকভাবে তার দায়িত্বে কিছুটা অবহেলা প্রতীয়মান হওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।
এ ঘটনার পর সিরাজগঞ্জ-৪ (উল্লাপাড়া) আসনের সাংসদ তানভীর ইমাম গণমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, ‘স্টেশন মাস্টারদের নির্বুদ্ধিতার কারণে এ ধরনের দুর্ঘটনা ঘটেছে। সাধারণত এ স্টেশনে যাত্রী ওঠানামার জন্য কমপক্ষে পাঁচ মিনিট দেরি করে ট্রেন; কিন্তু সেদিন মাত্র চার মিনিট পর ট্রেনটি ছেড়ে দেয়। আমি নামতে গিয়ে পড়ে যাই। সবাই আমাকে ধরাধরি করে স্টেশন মাস্টারের কক্ষে নিয়ে যায়। তারা আমার ক্ষতস্থানে ডেটল লাগিয়ে দেন। আমি যতক্ষণ সেখানে ছিলাম, মারধর তো দূরের কথা কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনাই ঘটেনি। আমি চলে আসার সময় বিষয়টি তদন্ত করে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিতে রেল কর্তৃপক্ষকে জানাব বলে তাদের ভয় দেখাই। এমন কথা বলে চলে আসার পর বিষয়টি রঙচঙ লাগিয়ে সাংবাদিকদের মিথ্যা তথ্য দিয়ে আমাকে হেয় করার চেষ্টা করা হচ্ছে।’
সাময়িক বরখাস্ত করায় অসন্তোষ জানিয়ে স্টেশন মাস্টার শামছুল আলম বলেন, ‘পানি তো সব সময় নিচের দিকেই গড়ায়। আমি কী অপরাধ করলাম যে আমাকে বরখাস্ত করা হলো? আমি তো এমপির সাথেই ছিলাম।’
প্রসঙ্গত, গত সোমবার বিকেল পৌনে ৩টার দিকে ঢাকাগামী চিত্রা ট্রেনে স্ত্রীকে তুলে দিয়ে চলন্ত ট্রেন থেকে নামতে গিয়ে পা পিছলে পড়ে যান উল্লাপাড়ার সাংসদ তানভীর ইমাম। এরপর ষ্টেশনে থাকা লোকজন ও তার সমর্থকরা তাকে ধড়াধড়ি করে নিয়ে ষ্টেশন মাষ্টারের কক্ষে বসিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। আর এরই এক মুহুর্তে সাংসদের কতিপয় সমর্থকরা সহকারী ষ্টেশন মাষ্টার আব্দুল বাতেনের কক্ষে ঢুকে তাকে চর-থাপ্পর ও সিগনালের পতাকার লাঠি দিয়ে বেধড়ক পেটায় বলে উভয় ষ্টেশন মাষ্টারগন অভিযোগ করেছেন। সাংসদ তাঁর অবস্থানকালীন সময়ে মারপিটের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24