শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:৫৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
জগন্নাথপুরে তিনদিন ব্যাপি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মেলার উদ্বোধন ব্রিটেনের নির্বাচনে আফসানার বড় জয়ে জগন্নাথপুরে উৎসবের আমেজ ব্রিটিশ পালার্মেন্টে ঝড় তুলবে বিজয়ী বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ৪ নারী এমপি ব্রিটেনের নির্বাচনে একটি আসনে বিশাল জয় পেয়েছেন জগন্নাথপুরের আফসানা বেগম অপরাধীদের প্রতি মহানবীর আচরণ যেমন ছিল সুদখোরদের ধরতে জেলা ও উপজেলায় মাঠে নামছে প্রশাসন জগন্নাথপুরে হাওরের জরিপ কাজ শেষ, কাজের তুলনায় বরাদ্দ কম, প্রকল্প কমিটি হয়নি একটিও জগন্নাথপুরে ডিজিটাল বাংলাদেশ উপলক্ষ্যে র‌্যালি, চিত্রাঙ্কন ও কুইজ প্রতিযোগিদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ জগন্নাথপুরে শিশু সাব্বির হত্যার ঘটনার গ্রেফতার-১ এনটিভি ইউরোপের জগন্নাথপুর প্রতিনিধি নিয়োগ পেলেন আব্দুল হাই

ড্রামের সেই লাশটি স্কুলশিক্ষকা নার্গিসের

Reporter Name
  • Update Time : সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭
  • ৬৬ Time View

জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর ডটকম ডেস্ক ::
গাজীপুরে ড্রাম থেকে উদ্ধার হওয়া নারীর লাশের পরিচয় পাওয়া গেছে। নিহত নারী নার্গিস বেগম (৫৪) নরসিংদী জেলার পূর্ব ব্রাহ্মণদি এলাকার আবদুর রহিমের মেয়ে এবং সাবেক এনএসআই কর্মকর্তা আনসার উল্লাহর স্ত্রী। নার্গিস আনসার উল্লাহর দ্বিতীয় স্ত্রী। তিনি নরসিংদীর ঘোরাদিয়া সরকারি প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক ছিলেন।

নিহত নার্গিসের ভাই সাইদুর রহিম জানান, আনসার উল্লাহ সাবেক এনএসআইয়ের কর্মকর্তা। তিনি প্রথম স্ত্রী ও উভয় পক্ষের সন্তানদের নিয়ে ঢাকার তেজকুনিপাড়ার ১৭০ নম্বর বাসায় থাকেন। আনসার উল্লাহ বর্তমানে প্রথম স্ত্রী নিয়ে মক্কায় হজ পালন করছেন। আগের ঘরে দুই মেয়ে রয়েছে। নার্গিসের ঘরে তিন ছেলে-মেয়ের মধ্যে বড় ছেলে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও ছোট ছেলে কুয়েটের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র। সবার বড় মেয়েও ঢাকায় বসবাস করেন।

জয়দেবপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মন্তোষ চন্দ্র দাস বলেন, গত বৃহস্পতিবার সকাল ৫টার দিকে তেজকুনিপাড়ার বাসা থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হন নার্গিস। শনিবার ঈদের দিন দুপুরে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ভোগড়া পেয়ারা বাগানের কাছে ঢাকা বাইপাস সড়কের পাশে কাওরান বাজার আড়তের গেইটের সামনে থেকে ওই নারীর লাশ ভরা ড্রাম উদ্ধার করে পুলিশ। তাঁর ছেলে নাজিউর রহমান মায়ের লাশ শনাক্ত করেছেন। নার্গিস চাকরির কারণে নরসিংদীতে থাকেন। ছুটির দিনে বা কোনো প্রয়োজনে নার্গিস ঢাকার বাসায় থাকেন।

এসআই মন্তোষ আরও বলেন, গত শনিবার ঈদের দিন বেলা ১১টার দিকে এলাকাবাসী ড্রাম থেকে দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে দুপুরে ড্রামে থাকা নারীর লাশটি উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। লাশের অবস্থা দেখে ধারণা করা হয়েছিল ২-৩ দিন আগে দুর্বৃত্তরা তাঁকে হত্যার পর ড্রামে ভরে বাইপাস সড়কের পাশে ফেলে রেখে গেছে।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাস জানান, নিহত নারীর বুকে ও পেটে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিক লক্ষণ দেখে মনে হচ্ছে, ২-৩ তিন আগে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে গতকাল রোববার বিকেলে নিহত নারীর ভাই আহমেদ হোসেন মানিক বাদী হয়ে জয়দেবপুর থানায় মামলা করেছেন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর
জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত © ২০১৯
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themebasjagannathpur24