দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক:: অনেকদিন বাদে ইনিংস ঘোষণার স্বাদ নিল বাংলাদেশ। শেষ তিন বছরে হাতে গুনে তিনবার। এমনকি ঢাকা টেস্টের আগের আট ইনিংসে ২০০ রানও পার করতে পারেনি বাংলাদেশ। অথচ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মুশফিক একাই করেছেন দুইশ’ ছাড়ানো রান। আর বাংলাদেশ ৭ উইকেটে ৫২২ রান তুলে ইনিংস ছেড়েছে। এরপর ব্যাটে নামা জিম্ববুয়ের ২৫ রানে ১ উইকেটও তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা। প্রথম ইনিংসে লিড নিতে হলে জিম্বাবুয়ের করতে হবে আরও ৪৯৭ রান।

শেষ বিকেলটায় জিম্বাবুয়েকে ব্যাটে নামাতে চেয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ। আর তাই দুর্দান্ত খেলতে থাকা মুশফিক ও মেহেদি মিরাজকে উঠে আসার ইঙ্গিত করেন তিনি। বাংলাদেশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান তার আগে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি তুলে নেন। করেন টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ২১৯ রান। তার আগে সাকিবের ২১৭ রান ছিল টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ইনিংস। এছাড়া মেহেদি মিরাজ ৬৮ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। এরপর ব্যাটে নামা জিম্বাবুয়ে ওপেনার মাসাকাদজাকে ফেরান তাইজুল ইসলাম।

এরআগে প্রথম দিন ১৬১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে আউট হন মুমিনুল হক। প্রথম দিন ব্যাটে নামা মাহমুদুল্লাহ দ্বিতীয় দিন ৩৬ রান করে ফেরেন। তবে ঢাকা টেস্টেও বাংলাদেশের ইনিংসের শুরুটা ভালো হয়নি। দলের ২৬ রানে ৩ উইকেট পড়ে যায় বাংলাদেশের। সেখান থেকে ২৭৬ রানের জুটি গড়েন মুমিনুল ও মুশফিক। মুশফিক এ ম্যাচে বিশ্বের প্রথম উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে দুটি ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন। প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ের হয়ে কাইল জারভিস ৭১ রানে ৫ উইকেট নেন।

এরআগে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। কিন্তু ইনিংসের শুরুতেই তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় টাইগাররা। ওপেনার লিটন দাস করেন ৯ রান। ইমরুল কায়েস ও মোহাম্মদ মিঠুন শূন্য রানেই ফিরে যান। সেখান থেকে চতুর্থ উইকেটে ২৭৬ রানের জুটি গড়েন মুমিনুল ও মুশফিকুর। সেঞ্চুরি পান দুই ব্যাটসম্যানই। ওই তিন উইকেট নিয়েই প্রথম দিন শেষ করতে পারতো বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ বিকেলে দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দল এ ম্যাচে তিন পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে। দ্বিতীয় টেস্টের দলে মুস্তাফিজের সুযোগ পাওয়া অনুমিত ছিল। তিনি ফিরেছেন দলে। সঙ্গে ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ও পেসার খালেদ আহমেদের অভিষেক হয়েছে। দল থেকে বাদ পড়েছেন ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। এছাড়া প্রথম টেস্টের দলে থাকা পেসার আবু জায়েদ ও স্পিনার নাজমুল ইসলাম নেই দলে।

দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে:

জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস: ২৫/১, মাসাকদজা-১৪, ব্রেইন চেরি-১০ (অপ.), ডোনাল্ড ট্রিপানো-০ (অপ.)।

তাইজুল ইসলাম-৫/১।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৫২২/৭ ইনিংস ঘোষণা; মুমিনুল-১৬১, মুশফিকুর-২১৯ (অপ.), মাহমুদুল্লাহ-৩৬, মেহিদি মিরাজ-৬৮ (অপ.)।

কাইল জারভিস-৭১/৫, চাতারা-৩৪/১, ডোনাল্ড ট্রিপানো-৬৫/১।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



» এসএসসি পরীক্ষার ফল পাল্টে দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে অর্থ আদায়, গ্রেফতার ৪

» ক্ষমা চাইলেই সব কিছু মাফ হয়ে যাবে না: জামায়াত প্রসঙ্গে ড. কামাল

» সড়কে থ্রি-হুইলারের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৫

» জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের ৪৯ সংসদ সদস্য শপথ দিলেন

» ফসলরক্ষা বাঁধের উপর ঘাস ও গাছ লাগাতে হবে -পানিসম্পদ সচিব

» সুনামগঞ্জে মেলায় অবৈধ লটারি আটক ৯,অতঃপর মুচলেকায় মুক্ত

» জগন্নাথপুরে তালামীযের উদ্যোগে ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত

» বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতা ২২ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত

» জগন্নাথপুরে পাইপগান-গুলি উদ্ধার, গাঁজাসহ নারী আটক

» তামিল সঙ্গীত পরিচালকের ইসলাম গ্রহণ, সমর্থন পরিবারের

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ

জগন্নাথপুর২৪ ডেস্ক:: অনেকদিন বাদে ইনিংস ঘোষণার স্বাদ নিল বাংলাদেশ। শেষ তিন বছরে হাতে গুনে তিনবার। এমনকি ঢাকা টেস্টের আগের আট ইনিংসে ২০০ রানও পার করতে পারেনি বাংলাদেশ। অথচ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টে মুশফিক একাই করেছেন দুইশ’ ছাড়ানো রান। আর বাংলাদেশ ৭ উইকেটে ৫২২ রান তুলে ইনিংস ছেড়েছে। এরপর ব্যাটে নামা জিম্ববুয়ের ২৫ রানে ১ উইকেটও তুলে নিয়েছে স্বাগতিকরা। প্রথম ইনিংসে লিড নিতে হলে জিম্বাবুয়ের করতে হবে আরও ৪৯৭ রান।

শেষ বিকেলটায় জিম্বাবুয়েকে ব্যাটে নামাতে চেয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ। আর তাই দুর্দান্ত খেলতে থাকা মুশফিক ও মেহেদি মিরাজকে উঠে আসার ইঙ্গিত করেন তিনি। বাংলাদেশ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান তার আগে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় ডাবল সেঞ্চুরি তুলে নেন। করেন টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ২১৯ রান। তার আগে সাকিবের ২১৭ রান ছিল টেস্টে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ ইনিংস। এছাড়া মেহেদি মিরাজ ৬৮ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। এরপর ব্যাটে নামা জিম্বাবুয়ে ওপেনার মাসাকাদজাকে ফেরান তাইজুল ইসলাম।

এরআগে প্রথম দিন ১৬১ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে আউট হন মুমিনুল হক। প্রথম দিন ব্যাটে নামা মাহমুদুল্লাহ দ্বিতীয় দিন ৩৬ রান করে ফেরেন। তবে ঢাকা টেস্টেও বাংলাদেশের ইনিংসের শুরুটা ভালো হয়নি। দলের ২৬ রানে ৩ উইকেট পড়ে যায় বাংলাদেশের। সেখান থেকে ২৭৬ রানের জুটি গড়েন মুমিনুল ও মুশফিক। মুশফিক এ ম্যাচে বিশ্বের প্রথম উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান হিসেবে দুটি ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন। প্রথম ইনিংসে জিম্বাবুয়ের হয়ে কাইল জারভিস ৭১ রানে ৫ উইকেট নেন।

এরআগে মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রোববার শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। কিন্তু ইনিংসের শুরুতেই তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় টাইগাররা। ওপেনার লিটন দাস করেন ৯ রান। ইমরুল কায়েস ও মোহাম্মদ মিঠুন শূন্য রানেই ফিরে যান। সেখান থেকে চতুর্থ উইকেটে ২৭৬ রানের জুটি গড়েন মুমিনুল ও মুশফিকুর। সেঞ্চুরি পান দুই ব্যাটসম্যানই। ওই তিন উইকেট নিয়েই প্রথম দিন শেষ করতে পারতো বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ বিকেলে দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে বসে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দল এ ম্যাচে তিন পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নামে। দ্বিতীয় টেস্টের দলে মুস্তাফিজের সুযোগ পাওয়া অনুমিত ছিল। তিনি ফিরেছেন দলে। সঙ্গে ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ও পেসার খালেদ আহমেদের অভিষেক হয়েছে। দল থেকে বাদ পড়েছেন ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। এছাড়া প্রথম টেস্টের দলে থাকা পেসার আবু জায়েদ ও স্পিনার নাজমুল ইসলাম নেই দলে।

দ্বিতীয় ও শেষ টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে:

জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংস: ২৫/১, মাসাকদজা-১৪, ব্রেইন চেরি-১০ (অপ.), ডোনাল্ড ট্রিপানো-০ (অপ.)।

তাইজুল ইসলাম-৫/১।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৫২২/৭ ইনিংস ঘোষণা; মুমিনুল-১৬১, মুশফিকুর-২১৯ (অপ.), মাহমুদুল্লাহ-৩৬, মেহিদি মিরাজ-৬৮ (অপ.)।

কাইল জারভিস-৭১/৫, চাতারা-৩৪/১, ডোনাল্ড ট্রিপানো-৬৫/১।

© 2018 জগন্নাথপুর টুয়েন্টিফোর কর্তৃক সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত

সম্পাদক ॥ অমিত দেব, মোবাইল ॥ ০১৭১৬-৪৬৫৫৩৫,
ই-মেইল ॥ amit.prothomalo@gmail.com
বার্তা সম্পাদক ॥ আলী আহমদ, মোবাইল ॥ ০১৭১৮-২২২৯৭৫,
ই-মেইল ॥ ali.jagannathpur@gmail.com,
ওয়েবসাইট ॥ www.jagannathpur24.com, ই-মেইল ॥ jpur24@gmail.com

error: ভাই, কপি করা বন্ধ আছে।